বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ১৮ ঊর্ধ্বদের বিনামূল্যে টিকাকরণের প্রথম দিনেই ২ গুণ ‘সাফল্য’, টিকা পেলেন ৮৫ লাখ মানুষ
প্রয়াগরাজে চলছে টিকাকরণ। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
প্রয়াগরাজে চলছে টিকাকরণ। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

১৮ ঊর্ধ্বদের বিনামূল্যে টিকাকরণের প্রথম দিনেই ২ গুণ ‘সাফল্য’, টিকা পেলেন ৮৫ লাখ মানুষ

  • এতদিন দৈনিক সর্বোচ্চ টিকাকরণের দ্বিগুণের থেকেও বেশি প্রতিষেধক দেওয়া হয়েছে সোমবার।

সোমবার থেকে দেশে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বদের বিনামূল্যে টিকাকরণ শুরু হয়েছে। আর প্রথমদিনেই তৈরি হল রেকর্ড। প্রায় এক কোটি করোনাভাইরাস টিকার ডোজ প্রদান করা হয়েছে। তার ফলে এতদিন দৈনিক সর্বোচ্চ টিকাকরণের দ্বিগুণের থেকেও বেশি প্রতিষেধক দেওয়া হয়েছে সোমবার। এমনটাই জানাল কেন্দ্র।

কেন্দ্রের (করোনা টিকা সংক্রান্ত ড্যাশবোর্ড- dashboard.cowin.gov.in) পরিসংখ্যান অনুযায়ী, পরিবর্তিত টিকা নীতির প্রথমদিনে দেশে ৮৬.১৬ লাখ ডোজ প্রদান করা হয়েছে। রবিবার ২৯,৩৭,৫০৩ ডোজ দেওয়া হয়েছিল আর ১৪ জুন ৩৮,২০,৭৫৫ ডোজ প্রদান করা হয়েছিল বলে কেন্দ্রের তরফে দাবি করা হয়েছে। যা এতদিন দৈনিক সর্বোচ্চ ছিল। অর্থাৎ নয়া নীতিতে টিকাকরণ শুরুর প্রথম দিনেই প্রতিষেধক প্রদানের সংখ্যা একধাক্কায় অনেকটা বেড়েছে। সবমিলিয়ে এখনও পর্যন্ত দেওয়া হয়েছে মোট ২৮,৩৮,৯১,৭৬৪ করোনা টিকার ডোজ। প্রথম ডোজ পেয়েছেন ২৩,৩২,৮৮,৮০৭ জন। দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে ৫,০৬,০২,৯৫৭ জনকে।

সেই রেকর্ডের জন্য সোমবার সন্ধ্যায় প্রথমসারির করোনাভাইরাস যোদ্ধাদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। টুইটারে তিনি লেখেন, ‘আজ রেকর্ড সংখ্যক টিকাকরণের বিষয়টি অত্যন্ত আনন্দের। করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য টিকা সবথেকে শক্তিশালী অস্ত্র। যাঁরা টিকা পেয়েছেন, তাঁদের অভিনন্দন। এত সংখ্যক নাগরিককে টিকা দিতে কঠোর পরিশ্রম করার জন্য সকল প্রথমসারির যোদ্ধাকে ধন্যবাদ। খুব ভালো কাজ করেছে ভারত (ওয়েল ডান ইন্ডিয়া)।’

তবে টিকার অপ্রতুলতার কারণ দর্শিয়ে পশ্চিমবঙ্গে এখনও সেই কর্মসূচি শুরু করা হয়নি। আগামীদিনে কত টিকা পাওয়া যাবে, তার ভিত্তিতেই সকল ১৮ ঊর্ধ্বদের বিনামূল্যে টিকাকরণ শুরু করা হবে বলে জানিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য অধিকর্তা অজয় চক্রবর্তী বলেন, 'রাজ্যের হাতে এখন করোনার টিকা ১৪ লাখ ডোজ আছে। সেই পরিমাণ টিকা দিয়ে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে টিকাকরণ সম্ভব নয়। টিকার সরবরাহ বাড়লে তবেই এই বিষয়ে পদক্ষেপ করতে পারবে সরকার। সেক্ষেত্রে আমাদের কিছুটা সময় লাগবে।' সঙ্গে তিনি যোগ করেন, 'প্রয়োজনের ভিত্তিতে টিকাকরণ চালিয়ে যাব আমরা। যদি এখনই সকল প্রাপ্তবয়স্কের টিকাকরণ শুরু করি, তাহলে প্রয়োজন অনুযায়ী টিকা মিলবে না।'

বন্ধ করুন