বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > স্বামীকে আটকে রেখে ৫ সন্তানের মা-কে ধর্ষণ ১৭ দুষ্কৃতীর, তদন্তে পুলিশ
ঝাড়খণ্ডের দুমকা জেলায় পাঁচ সন্তানের মা এক বধূকে ধর্ষণ করল এক পরিচিত-সহ ১৭ জন দুষ্কৃতী।
ঝাড়খণ্ডের দুমকা জেলায় পাঁচ সন্তানের মা এক বধূকে ধর্ষণ করল এক পরিচিত-সহ ১৭ জন দুষ্কৃতী।

স্বামীকে আটকে রেখে ৫ সন্তানের মা-কে ধর্ষণ ১৭ দুষ্কৃতীর, তদন্তে পুলিশ

  • দুমকায় পাঁচ সন্তানের মা-কে ধর্ষণ করল এক পরিচিত-সহ ১৭ জন দুষ্কৃতী।

স্বামীকে পণবন্দি করে পাঁচ সন্তানের মা এক বধূকে ধর্ষণ করল এক পরিচিত-সহ ১৭ জন দুষ্কৃতী। ঝাড়খণ্ডের দুমকা জেলার এই ঘটনার জেরে বুধবার এফআইআর দায়ের করেছেন নির্যাতিতা। 

অভিযোগ পেয়ে ঘটনার সরেজমিন তদন্তে নির্যাতিতার গ্রামে যান ডিআইজি (সাঁওতাল এলাকা) সুদর্শন মণ্ডল এবং দুমকার এসপি অম্বর লাকড়া। 

অভিযোগ, মঙ্গলবার রাতে স্বামীর সঙ্গে হাট থেকে ফেরার পথে মহিলার পথ আটকায় ১৭ জন দুষ্কৃতী। তাদের একজন ওই পরিবারের পূর্ব পরিচিত। তাঁর স্বামীকে আটকে রেখে পর পর ১৭ জন বছর ৩৫ এর বধূকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। 

পুলিশ জানিয়েছে, নির্যাতিতার মেডিক্যাল পরীক্ষা করা হয়েছে এবং রিপোর্ট শিগগিরই পাওয়া যাবে। 

ঘটনায় জড়িত দম্পতির পরিচিত অভিযুক্তকে আটক করে জেরা করছে পুলিশ। দোষী প্রমণিত হলে তাকেজেলে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন এসপি। অপরাধ সম্পর্কে গ্রামের বাসিন্দাদেরও জেরা করা হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। 

ডিআইজি জানিয়েছেন, আমরা খুঁটিয়ে তদন্ত করছি। প্রথমে নির্যাতিতা জানিয়েছিলেন, অপরাধে গ্রামের ৫ বাসিন্দা জড়িত। পরে তিনি বয়ান পরিবর্তন করেন। 

প্রসঙ্গত, গত জুলাই মাস পর্যন্ত দুমকা জেলায় মাসে গড়ে পাঁচটি ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এই তথ্য জানিয়েছে ঝাড়খণ্ড পুলিশের নিজস্ব ওয়েবসাইট।

বন্ধ করুন