বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মার্চে লকডাউনের পর প্রতি ঘণ্টায় ৯০ কোটি টাকা কামিয়েছেন মুকেশ আম্বানি
মুকেশ আম্বানি (MINT_PRINT)
মুকেশ আম্বানি (MINT_PRINT)

মার্চে লকডাউনের পর প্রতি ঘণ্টায় ৯০ কোটি টাকা কামিয়েছেন মুকেশ আম্বানি

  • লকডাউনের শুরুতে কিন্তু মুকেশ আম্বানির সম্পদ কমে গিয়েছিল প্রায় ২৮ শতাংশ।

লকডাউনের বাজারে আম আদমির হাল খারাপ। ধণকুবেররা কিন্তু ফুলে ফেঁপে উঠছেন।IIFL Wealth Hurun India Rich List 2020 অনুযায়ী ভারতের ধনীতম ব্যক্তি মুকেশ আম্বানি মার্চের পর প্রতি ঘণ্টায় ৯০ কোটি টাকা রোজগার করেছেন। এই মুহূর্তে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী পাঁচজনের মধ্যে আছেন রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের কর্ণধার। 

এই তালিকা অনুযায়ী লাগাতার নবমবার ভারতের ধনীতম ব্যক্তি হলেন মুকেশ আম্বানি। ২.৭৭ লক্ষ কোটি থেকে তাঁর ব্যক্তিগত সম্পদের মূল্য ফুলেফেঁপে হয়েছে ৬.৫৮ লক্ষ কোটি টাকা।  বর্তমানে ভারতে পরবর্তী পাঁচজন ধনী ব্যক্তির সম্পদ জুড়লেও আম্বানিকে টেক্কা দিতে পারবে না, এতটাই এগিয়ে জিও-র মালিক। শুধু ভারত নয় এশিয়ার সবচেয়ে বিত্তবান পুরুষ তিনি। বিশ্বের নিরিখে ক্রমতালিকায় আপাতত চতুর্থ স্থানে মুকেশ আম্বানি। গত এক বছরে তাঁর সম্পদের পরিমাণ ৭৩ শতাংশ বেড়েছে। 

লকডাউনের শুরুতে কিন্তু মুকেশ আম্বানির সম্পদ কমে গিয়েছিল প্রায় ২৮ শতাংশ। তারপরে ফেসবুক, গুগল ও সিলভার লেক সহ বিভিন্ন সংস্থা জিও-তে বিনিয়োগ করে। এই ভাবেই মাত্র চার মাসে মুকেশ আম্বানির ভ্যালুয়েশন বৃদ্ধি হয় ৮৫ শতাংশ। 

এর মধ্যে রিলায়েন্সের মার্কেট ক্যাপ ১০ লক্ষ কোটির গণ্ডি পেরিয়েছে। ফলে ৭৩ শতাংশ বেড়েছে আম্বানির সম্পদের পরিমাণ। 

 

বন্ধ করুন