বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > গাড়ি বিক্রি করে করোনা আক্রান্তদের বিনামূল্যে অক্সিজেন দিচ্ছেন যুবক!

সত্যিই এক বিরল ঘটনা। নিজের দামী গাড়ি বেচে মানুষের মধ্যে বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহের কাজে এগিয়ে এলেন মুম্বইয়ের এক যুবক। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে এভাবে মানুষের পাশে দাঁড়ানোয় রীতিমতো এলাকায় সাড়া জাগিয়েছে। এভাবে সমাজ সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করে এখন সকলের নয়নের মণি শাহনওয়াজ শেখ।

মালাডে মালবনির ছোটো গলিতে নিজের এক সংস্থা ইউনিটি অ্যান্ড ডিগনিটি ফাউন্ডেশন শুরু করেছিলেন শাহনওয়াজ। নিজের দামী গাড়ি ফোর্ড এন্ডিওভার বেচে দিয়ে যে টাকা পেয়েছিলেন, তা দিয়েই অক্সিজেন সিলিন্ডার কিনতে শুরু করেন তিনি। গত বছর করোনা পরিস্থিতি যখন মারাত্মক আকার নিয়েছিল, তখন থেকেই এই উদ্যোগ নিতে শুরু করেন তিনি। করোনা পরিস্থিতির কথা বলতে গিয়ে এনডিটিভিকে শাহনওয়াজ বলেছেন, ‘‌গত বছর থেকেই এই কাজ শুরু করেছিলাম। আমরা ৫,০০০-৬,০০০ অক্সিজেন সিলিন্ডারের জোগান দিয়েছি। এই বছর মারাত্মক অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। আগে যেখানে আমরা ৫০টি কল পেতাম, এখন সেখানে ৫০০ থেকে ৬০০টি কল পাই।’‌

নিজের অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়ে শাহনওয়াজ বলেন,‘‌যখন করোনায় আমার বন্ধুর মৃত্যু হয়, তখন থেকেই ঠিক করেছিলাম সাধারণ মানুষের কাছে বিনামূল্যে অক্সিজেন পৌঁছে দেব, যাতে মানুষকে বিনা অক্সিজেনে মরতে না হয়। যখন দেখলাম, সঠিক সময়ে অক্সিজেনের জোগান দিলে মানুষের মৃত্যু হচ্ছে না, তখন ঠিক করি আমার এসইউভি গাড়িটা বেচে দেব। তার থেকে যে টাকা পাব, তা দিয়েই করোনা রোগীদের জন্য ওষুধ ও অক্সিজেন জোগানের ব্যবস্থা করব।’‌ একইসঙ্গে শাহনওয়াজ বলেন, ‘আগে টাকার অভাবে এই কাজ ঠিকভাবে করতে পারছিলাম না।পরে চিন্তা করলাম, এসইউভি গাড়ি তো পরেও কিনতে পারব। আগে মানুষের পাশে দাঁড়ানো দরকার।’

ইতিমধ্যে শাহনওয়াজের এই উদ্যোগ সোশ্যাল মিডিয়ায় সাড়া ফেলে দিয়েছে। আইএফএস অফিসার সুধা রামেনের মতে, শাহনওয়াজ ও তাঁর দলের লোকেরাই এখন সত্যিকারের হিরো।অপর আইএফএস অফিসার সীতাংশু পাণ্ডে জানান, অনেক অনেক ধন্যবাদ শাহনওয়াজকে করোনা রোগীদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য।

বন্ধ করুন