বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দোকানের সামনে বাঁশ পুঁতেছেন কেন? প্রশ্ন করতেই বৃদ্ধাকে সপাটে চড় নেতার
বৃদ্ধাকে চড়া মারার অভিযোগ। প্রতীকী ছবি

দোকানের সামনে বাঁশ পুঁতেছেন কেন? প্রশ্ন করতেই বৃদ্ধাকে সপাটে চড় নেতার

  • অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার ধ্যানেশ্বর চৌহান জানিয়েছেন, ২৮ অগস্ট ওই নেতা ও তাঁর সঙ্গীরা মহিলার ওষুধের দোকানের সামনে বাঁশটি পুঁতেছিলেন। এনিয়ে আপত্তি তুলেছিলেন ওই মহিলা।অন্য কোথাও পোস্টার দেওয়ার জন্য তিনি বলেছিলেন। তখনই তাঁকে হেনস্থা করা হয় বলে অভিযোগ।

সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে সেই ভয়াবহ ছবি। মহারাষ্ট্রের নবনির্মাণ সেনার অফিস। সেখানকার এক নেতা এক বৃদ্ধাকে চড় মেরেছেন বলে অভিযোগ। এনিয়ে তুমুল শোরগোল মুম্বইতে। সূত্রের খবর, প্রকাশদেবী নামে ওই বৃদ্ধার কাছেই দোকান রয়েছে। কামাথিপুরাতে একটি বাঁশের খুঁটিতে পোস্টার সেঁটেছিল নবনির্মাণ সেনা। গণেশ ভক্তদের অভ্যর্থনা জানানোর জন্য এই উদ্যোগ। আর এনিয়ে আপত্তি ছিল ওই বৃদ্ধার।

এরপরই ৬০ বছর বয়সী ওই মহিলাকে সপাটে চড় মারার অভিযোগ। পুলিশ ইতিমধ্যেই তিন এমএনএস কর্মীকে গ্রেফতার করেছে।

প্রায় দেড় মিনিটের ওই ভিডিয়ো। সেখানে দেখা যাচ্ছে এক এমএনএস নেতা ওই মহিলাকে চড় মারছেন। এরপর বাসিন্দারা কোনওরকমে তাকে থামানোর চেষ্টা করেন। অভিযুক্তের নাম বিনোদ আর্গিল। ওই মহিলা বাঁশটিকে সরাতে বলেছিলেন। আর পালটা নেতার দাবি এটা করা হবে না। এরপরই তিনি মহিলাকে ধাক্কা দেন বলে অভিযোগ।

ওই নেতার দাবি, আচমকাই হয়ে গিয়েছে ব্যাপারটা। আমি ক্ষমাও চেয়েছি। মারাঠি সংবাদমাধ্যমে তিনি বিবৃতিও দেন। এদিকে অভিযুক্তকে হিন্দুস্তান টাইমস থেকে ফোন করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি। প্রকাশদেবীও ফোন ধরেননি।

অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার ধ্যানেশ্বর চৌহান জানিয়েছেন, ২৮ অগস্ট ওই নেতা ও তাঁর সঙ্গীরা মহিলার ওষুধের দোকানের সামনে বাঁশটি পুঁতেছিলেন। এনিয়ে আপত্তি তুলেছিলেন ওই মহিলা।অন্য কোথাও পোস্টার দেওয়ার জন্য তিনি বলেছিলেন। তখনই তাঁকে হেনস্থা করা হয় বলে অভিযোগ।

বন্ধ করুন