বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Murder: স্ত্রীকে বালিশ চাপা দিয়ে খুন করে মৃতদেহের পাশেই ঘুমোলেন স্বামী, কেন?
স্ত্রীকে বালিশ চাপা দিয়ে খুন করার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে উঠেছে। প্রতীকী ছবি।

Murder: স্ত্রীকে বালিশ চাপা দিয়ে খুন করে মৃতদেহের পাশেই ঘুমোলেন স্বামী, কেন?

  • বিনোদ পুলিশকে জানিয়েছে, তিনি ও তার স্ত্রী বৃহস্পতিবার রাতে মদ খাচ্ছিলেন। এরপর বিনোদ তার স্ত্রীকে রাতের খাবার দিতে বলেন। সোনালি তা দিতে চাননি। এনিয়ে দুজনের মধ্যে ঝগড়া বেধে যায়। সেই সময় সোনালি রাগের বশে, নেশার ঘোরে বিনোদকে টেনে থাপ্পড় মারে।

স্ত্রীর মুখে বালিশ দিয়ে চেপে ধরেছিলেন স্বামী। কিছুক্ষণ ছটফট করার পরে একসময় নিথর হয়ে যায় স্ত্রী। এরপর সেই দেহের পাশেই ঘুমিয়ে পড়েছিলেন স্বামী। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ এমনটাই জেনেছে। সাউথ দিল্লির ফতেপুর বেরি এলাকার এই ঘটনাকে ঘিরে শোরগোল পড়ে গিয়েছে এলাকায়। কিন্তু কেন এভাবে স্ত্রীকে নৃশংসভাবে খুন করলেন ওই ব্যক্তি?

অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (সাউথ) পবন কুমার জানিয়েছেন, অভিযুক্তের নাম বিনোদ কুমার দুবে। তিনি তাঁর স্ত্রী সোনালিকে বৃহস্পতিবার রাতে খুন করেছেন। পুলিশ সূত্রে খবর, শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টা নাগাদ পুলিশ কন্ট্রোল রুমে ঘটনার খবর আসে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখে সোনালি মৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন। এরপর শুক্রবারই পুলিশ বিনোদকে গ্রেফতার করে। 

বিনোদ পুলিশকে জানিয়েছে, তিনি ও তার স্ত্রী বৃহস্পতিবার রাতে মদ খাচ্ছিলেন। এরপর বিনোদ তার স্ত্রীকে রাতের খাবার দিতে বলেন। সোনালি তা দিতে চাননি। এনিয়ে দুজনের মধ্যে ঝগড়া বেধে যায়। সেই সময় সোনালি রাগের বশে, নেশার ঘোরে বিনোদকে টেনে থাপ্পড় মারে। আর এতেই প্রচণ্ড রেগে যান বিনোদ। তিনি বালিশ নিয়ে স্ত্রীর মুখে চেপে ধরেন বলে অভিযোগ। আর এতেই শ্বাসরোধ হয়ে মৃত্যু হয়ে সোনালির।

সূত্রের খবর, স্ত্রীকে খুন করার পরে ওই মৃতদেহের পাশেই ঘুমিয়ে পড়েছিলেন বিনোদ। এরপর সকালে বিষয়টি জানাজানি হয়। পুলিশ গিয়ে দেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে।

বন্ধ করুন