বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বরযাত্রী ঢুকতেই পাথরবৃষ্টি, তাঁবু গুটিয়ে পালাল ডেকরেটর, কাঁদানে গ্যাস পুলিশের
বিয়ের শোভাযাত্রাকে কেন্দ্র করে তুমুল গণ্ডগোল। প্রতীকী ছবি (PTI Photo)  (PTI)

বরযাত্রী ঢুকতেই পাথরবৃষ্টি, তাঁবু গুটিয়ে পালাল ডেকরেটর, কাঁদানে গ্যাস পুলিশের

  • রাজগড়ের পুলিশ সুপার প্রদীপ শর্মা জানিয়েছেন, গ্রামে পুলিশ ছিল। কিন্তু পাথর ছুঁড়ে বিয়ে বাড়ির শোভাযাত্রাকে আটকে দেওয়া হচ্ছিল যাতে গ্রামের মধ্য়ে ওরা যেতে না পারে। এরপর কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটিয়ে তাদেরকে সরানো হয়। পরে পুলিশের নিরাপত্তায় বিয়ে হয়েছে।

শ্রুতি তোমার

দলিত পরিবারের বিয়েবাড়ির শোভাযাত্রায় হামলা চালানোর অভিযোগ। এই ঘটনায় ৫জনকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। ৩৫জনের নামে অভিযোগ জানানো হয়েছে। রবিবার রাতে ভূপালের রাজগড় জেলার ঘটনা। সূত্রের খবর, ডাঙ্গি কমিউনিটির একটি বিয়েবাড়ির শোভাযাত্রা বেরিয়েছিল।তখনই হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ। পরে পুলিশি পাহারায় বিয়ের বাড়ির কাজ হয়েছে।

কনের দাদা দীপক মেঘাওয়াল জানিয়েছেন,নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য আগে থেকেই পুলিশকে জানিয়েছিলাম। পুলিশও গ্রামে ছিল। কিন্তু রবিবার রাতে যেমনি বিয়ের শোভাযাত্রা গ্রামে ঢুকল তখনই বাহুবলীরা পাথর ছুঁড়তে শুরু করে। বিয়ের তাঁবুও তারা তুলে ফেলতে চায়। এরপর পুলিশ টিয়ার গ্যাসের সেল ফাটিয়ে পরিস্থিতি মোকাবিলার চেষ্টা করে।

রাজগড়ের পুলিশ সুপার প্রদীপ শর্মা জানিয়েছেন, গ্রামে পুলিশ ছিল। কিন্তু পাথর ছুঁড়ে বিয়ে বাড়ির শোভাযাত্রাকে আটকে দেওয়া হচ্ছিল যাতে গ্রামের মধ্য়ে ওরা যেতে না পারে। এরপর কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটিয়ে তাদেরকে সরানো হয়। পরে পুলিশের নিরাপত্তায় বিয়ে হয়েছে।

এদিকে পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে বিয়ে বাড়ির তাঁবু খুলে পালানোর চেষ্টা করেন তাঁবুর মালিক। তবে পরে পুলিশের উপস্থিতিতে ফের তাঁবু খাটিয়ে বিয়ে শুরু হয়। কিন্তু কেন বাধা দেওয়া হচ্ছিল? 

এক গ্রামবাসী জানিয়েছেন, দিন দুয়েক আগে মেঘাওয়াল পরিবারের বিয়ের শোভাযাত্রা বেরিয়েছিল। তখন কেউ আপত্তি করেননি। কিন্তু ওই পরিবারের জামাই রাহুল মেঘাওয়াল সোশ্যাল মিডিয়ায় গ্রামবাসীদের বিরুদ্ধে ভুল প্রচার করছেন। এর জেরেই রেগে গিয়ে কয়েকজন এসব ঘটিয়েছে। এটা ইগোর ব্যাপার। তবে রাহুলের দাবি, তাকে হুমকি দেওয়া হয়েছিল। সেকারণেই তিনি প্রতিবাদ করেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

 

 

 

বন্ধ করুন