বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > চলল মারধর, বাবাকে বাঁচাতে কান্না মেয়ের, এক মুসলিমকে নিগ্রহের ঘটনায় FIR কানপুরে
ছবিটি প্রতীকী 

চলল মারধর, বাবাকে বাঁচাতে কান্না মেয়ের, এক মুসলিমকে নিগ্রহের ঘটনায় FIR কানপুরে

  • ফের উত্তরপ্রদেশে নিগ্রহের স্বীকার এক সংখ্যালঘু ব্যক্তি।

ফের উত্তরপ্রদেশে নিগ্রহের স্বীকার এক মুসলিম ব্যক্তি। সম্প্রতি একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানেই দেখা যায় ব্যক্তিকে রাস্তা দিয়ে জোর করে টানতে টানতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাঁকে মারধর করে বারবার 'জয় শ্রীরাম' ধ্বনি দিতে বাধ্য করা হচ্ছে। পাশে নিগৃহীত বেযক্তির ছোট্ট মেয়ে আকুলে কাঁদছে বাবাকে বাঁচাতে। পরবর্তীতে নিগৃহীতকেই পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। যদিও পরে নিগ্রহের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে এফআইআর দায়ের হয়। বুধবারের এই ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে তিন জনকে।

২৫ সেকেন্ডের সেই ভাইরাল ভিডিয়োতে সেই ব্যক্তিকে 'জয় শ্রী রাম' বলতে বাধ্য করার অভিযোগ উঠলেও পুলিশের তরফে জানা গিয়েছে এই ঘটনা আদলে সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের জেরে ঘটেছে। নিগৃহীত ব্যক্তি এক রিক্সাচালক বলে জানা গিয়েছে। এদিকে তিন ব্যক্তিকে এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনায় যুক্ত মোট ১৫ জনের নামে অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

ঘটনার প্রেক্ষিতে কানপুরের ডেপুটি কমিশনার (দক্ষিণ) রবীনা ত্যাগী নিশ্চিত করে জানিয়েছেন যে ঘটনার প্রেক্ষিতে পুলিশ অভিযোগ দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে। তিনি জানান কচ্চি বস্তির এলাকার গোপাল মোড়ের ৫০০ মিটার দূরে ঘটনাটি ঘটেছে।

অভিযোগকারী ব্যক্তির বক্তব্য, বুধবার দুপুর তিনটে নাগাদ তাঁর উপর চড়াও হয় কয়েকজন দুষ্কৃতী। তাঁকে শারীরিক ভাবে নিগ্রহ করতে শুরু করে এই দুষ্কৃতীরা। তারা অভিযোগকারীকে প্রাণে মারার হুমকি পর্যন্ত দেয়। পরে তিনি জানান যে তাঁকে পুলিশ বাঁচিয়েছে। মুসলিম সেই ব্যক্তির নাকি প্রতিবেশী এক হিন্দু পরিবারের সঙ্গে বিবাদ রয়েছে। এর আগে জুলাই মাসে নাকি এই দুই পরিবার একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিল।

 

বন্ধ করুন