বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > যোগী সরকারের আবেদন মঞ্জুর, মুজফ্ফরনগর দাঙ্গা থেকে রেহাই BJP নেতাদের
যোগী সরকারের আবেদন মঞ্জুর, মুজফ্ফরনগর দাঙ্গা থেকে রেহাই অভিযুক্ত BJP নেতাদের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
যোগী সরকারের আবেদন মঞ্জুর, মুজফ্ফরনগর দাঙ্গা থেকে রেহাই অভিযুক্ত BJP নেতাদের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

যোগী সরকারের আবেদন মঞ্জুর, মুজফ্ফরনগর দাঙ্গা থেকে রেহাই BJP নেতাদের

এক বছর আগেই এই মামলা তুলে নেওয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছিল যোগী সরকার।

যোগী আদিত্যনাথের সরকারের আবেদনের ভিত্তিতে মুজফ্ফরনগর দাঙ্গা মামলা থেকে রেহাই পেয়ে গেলেন ঘটনায় অভিযুক্ত বিজেপি নেতারা। এক বছর আগেই এই মামলা তুলে নেওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছিল যোগী সরকার। সেই মতোই ওই মামলা তুলে নিল বিধায়ক–মন্ত্রীদের জন্য গঠিত বিশেষ আদালত। এর ফলে এই মামলা থেকে রেহাই পেয়ে গেলেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সাধ্বী প্রাচী, প্রাক্তন মন্ত্রী ভরতেন্দ্র সিং, সুরেশ রানা, সংগীত সোম-সহ অন্তত ৩০ জন বিজেপি নেতা।

মুজফ্ফরনগরের অতিরিক্ত জেলাশাসকের আইনজীবী ললিত ভরদ্বাজ জানান, গত বছরই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের জন্য আদালতের কাছে চিঠি দিয়েছিল উত্তরপ্রদেশ সরকার। শেষপর্যন্ত এই অনুরোধ মেনে নেয় বিশেষ আদালত। এর আগে মুজফ্ফরনগরের তৎকালীন এডিজিসি সুভাষ সাইনিও এই মর্মে বিশেষ আদালতে একটি আবেদন দাখিল করেছিলেন।

এই মামলার রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন মুজফ্ফরনগরের বিজেপি সভাপতি বিজয় শুক্ল। তিনি জানান, সমাজবাদী সরকারের আমলে বিজেপির নেতাদের বিরুদ্ধে ভুয়ো মামলা দায়ের করা হয়েছিল। আদালতের রায়কে স্বাগত জানাচ্ছি। যদিও এই মামলা প্রত্যাহারের পর এ নিয়ে সরব হয়েছে সমাজবাদী পার্টি। সমাজবাদী পার্টি নেতা সুধীর পানওয়ার জানান, এই ধরনের ঘৃণ্য ঘটনায় অভিযুক্তরা ছাড়া পেলে সমাজের কাছে ভুল বার্তা যায়্।

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালে অভিযুক্তদের উস্কানিমূলক ভাষণের জেরে মুজফ্ফরনগরের একাধিক জায়গায় দাঙ্গা লেগে যায়। এই ঘটনায় ৬০ জন মানুষ প্রাণ হারান। এদের মধ্যে বেশিরভাগই সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ছিলেন। এই ঘটনায় ঘরছাড়া হয়েছিলেন ৫০,০০০-এর বেশি মানুষ।

বন্ধ করুন