বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ১৪ জনের হত্যার তদন্তে নেমে সেনা কর্মীদের সঙ্গে কথা বলল নাগাল্যান্ড সরকারের SIT
নাগাল্যান্ডের মন জেলায় সেনার গুলিতে মৃত্যু হয় ১৪ জনের (ফাইল ছবি, সৌজন্যে এএনআই) (HT_PRINT)

১৪ জনের হত্যার তদন্তে নেমে সেনা কর্মীদের সঙ্গে কথা বলল নাগাল্যান্ড সরকারের SIT

  • গতকাল মোট ৭ থেকে ৮ জন সেনাকর্মীর বয়ান রেকর্ড করে সিট।

নাগাল্যান্ডে সেনার গুলিতে সাধারণ নাগরিকের হত্যাকাণ্ডের তদন্তে গঠিত রাজ্য সরকারের বিশেষ তদন্তকারী দল সেনা আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করে তাদের বয়ান নিল। বৃহস্পতিবাহ অসমের ডোরহাটে অবস্থিত রেনফরেস্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউটে ছয় সদস্যের বিশেষ তদন্তকারী দল সেনা আধিকারিকদের বয়ান রেকর্ড করে। ঘটনার প্রেক্ষিতে নাগাল্যান্ড পুলিশ বা সেনা কোনও পক্ষই মুখ না খুললেও সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, গতকাল মোট ৭ থেকে ৮ জন সেনাকর্মীর বয়ান রেকর্ড করে সিট। তবে এটা এখনও নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি যে সেনাকর্মীদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় নাকি শুধুই বয়ান রেকর্ড করা হয়।

অপারেশন ওটিং-এর সঙ্গে যুক্ত ২১ প্যারা স্পেশাল ফোর্স গত ৪ ডিসেম্বরের হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিল বলে অভিযোগ। এর প্রেক্ষিতে সেনা আদালতেও বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে দুই প্রত্যক্ষদর্শীর। সেনার ‘কোর্ট অফ ইনকোয়েরি’টির নেতৃত্বে রয়েছেন একজন মেজর জেনারেল পদাধিকারী। সেনার তদন্তকারীরা নাগাল্যান্ডের সেই ঘটনাস্থলে গিয়েছেন যেখানে নাগরিকদের হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। সেখানে গিয়েই টিজিটে দুই প্রত্যক্ষদর্শীর বয়ান রেকর্ড করেন সেনার তদন্তকারীরা।

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক গ্রামবাসী হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিনিধিকে জানান, ওটিংয়ের গ্রামবাসীদের অধিকাংশই সেনা আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করতে অস্বীকার করে। টিজিট পুলিশ স্টেশনে প্রায় দুই ঘণ্টা ছিল তদন্তকারী সেনা আধিকারিকরা। এই সময়কালে মাত্র দুই জন স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী সেনা আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করতে পুলিশ স্টেশনে যান। উল্লেখ্য, গত ৪ ডিসেম্বর নাগাল্যান্ডের মন জেলায় সুরক্ষাবাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয় ৬ জনের৷ তার জেরে অশান্তি এবং গ্রামবাসীর সেনার উপর আক্রমণের ঘটনায় মৃত্যু হয় আরও ৮ জন গ্রামবাসীর৷

 

বন্ধ করুন