বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'শান্তির পক্ষে কট্টরপন্থা বড় চ্যালেঞ্জ', আফগান উদাহরণ টেনে SCO বৈঠকে বললেন মোদী
SCO বৈঠকে নরেন্দ্র মোদী (ছবি সৌজন্যে এএনআই) (ANI)
SCO বৈঠকে নরেন্দ্র মোদী (ছবি সৌজন্যে এএনআই) (ANI)

'শান্তির পক্ষে কট্টরপন্থা বড় চ্যালেঞ্জ', আফগান উদাহরণ টেনে SCO বৈঠকে বললেন মোদী

  • পাকিস্তান, চিনের নাম করেই মোদীর বার্তা, 'সকল দেশের উচিত অন্য দেশের সার্বভৌমত্বকে সম্মান করা।'

সাংহাই কোঅপরেন অর্গনাইজেশনের ২১তম বৈঠকে চিন, পাকিস্তানের সামনেই কট্টরপন্থা নিয়ে তোপ দাগলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পাশাপাশি নিজের ভাষণে এদিন আফগানিস্তান পরিস্থিতিও তুলে ধরেন মোদী। তাজিকিস্তানে এই সম্মেলনে যোগ দিতে গিয়েছেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। তাছাড়া প্রধানমন্ত্রী মোদীও ভআর্চুয়ালি এই সম্মেলনের প্লেনারি সেশনে বক্তব্য রাখেন।

এদিনের এসসিও বৈঠকে আফগানিস্তানের বর্তমান রাজনৈতিক-নিরাপত্তা পরিস্থিতি প্রাধান্য পায়। পাশাপাশি সংগঠনের সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধি, বহুস্তরীয় অর্থনৈতিক সহযোগিতা, মানুষের মধ্যে আদানপ্রদান এবং অন্য আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা হয়।

এদিন এসসিও-র বৈঠকে অংশ নেন চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিংপিং এবং পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও। তাঁদের উপস্থিতিতে এদিন প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, 'এই মুহূর্তে বিশ্বের সামনে সবথেকে বড় চ্যালেঞ্জ শান্তি বজায় রাখা। শান্তির পক্ষে কট্টরপন্থা বড় চ্যালেঞ্জ। আফগানিস্তানে ফের শান্তি ফিরিয়ে আনতে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। দ্বিপাক্ষিক আলোচনা, সহযোগিতা, স্বচ্ছতাকে সামনে রেখেই সংযোগ স্থাপন সম্ভব।' মোদী এদিন আরও বলেন, 'মধ্য এশিয়ার দেশগুলির সঙ্গে সংযোগ বাড়াতে বদ্ধপরিকর ভারত।'

এদিন এসসিও-র নয়া সদস্য ইরানকে স্বাগত জানান মোদী। পাশাপাশি 'ডায়লগ পার্টনার' হিসেবে মিটে যোগ দেওয়া সৌদি আরব, মিশর এবং কাতারকেও স্বাগত জানান তিনি। মোদী বলেন, '২০তম বার্ষীকিতে এসসিও-র ভবিষ্যত নিয়ে ভাবতে হবে আমাদের।' পাকিস্তান, চিনের নাম করেই মোদীর বার্তা, 'সকল দেশের উচিত অন্য দেশের সার্বভৌমত্বকে সম্মান করা।'

 

বন্ধ করুন