বাড়ি > ঘরে বাইরে > কল্পনা চাওলার স্মৃতিতে নামকরণ হল নাসা-র নতুন মহাকাশযানের, রওনা ২৯ সেপ্টেম্বর
প্রয়াত কল্পনা চাওলার নামে আন্তর্জাতিক মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম বয়ে নিয়ে যাওয়া মহাকাশ যানের নামকরণ করল নাসা।
প্রয়াত কল্পনা চাওলার নামে আন্তর্জাতিক মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম বয়ে নিয়ে যাওয়া মহাকাশ যানের নামকরণ করল নাসা।

কল্পনা চাওলার স্মৃতিতে নামকরণ হল নাসা-র নতুন মহাকাশযানের, রওনা ২৯ সেপ্টেম্বর

  • নাসা-র প্রথম ভারতীয় বংশোদ্ভূত মহিলা মহাকাশচারী কল্পনা চাওলাকে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করতেই এই নামকরণ।

প্রথম ভারতীয় বংশোদ্ভূত মহাকাশচারী প্রয়াত কল্পনা চাওলার নামে আন্তর্জাতিক মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম বয়ে নিয়ে যাওয়া মহাকাশ যানের নামকরণ করল নাসা।

মহাকাশ যানটির নির্মাতা নর্থরপ গ্রাম্ম্যান সংস্থার তরফে টুইটারে ঘোষণা করা হয়েছে, ‘আজ আমরা নাসা-র প্রথম ভারতীয় বংশোদ্ভূত মহিলা মহাকাশচারী কল্পনা চাওলাকে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করলাম। মানুষের মহাকাশ অভিযানে তাঁর অবদান সুদূরপ্রসারী। পরিচয় করিয়ে দিই আমাদের পরবর্তী সিগনাস মহাকাশযান এস এস কল্পনা চাওলার সঙ্গে।’

জানা গিয়েছে, আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর মহাকাশের পথে রওনা দেবে এস এস কল্পনা চাওলা।

নর্থরপ গ্রাম্ম্যান জানিয়েছে, তাদের তৈরি প্রতিটি সিগনাস মহাকাশযান মহাকাশ গবেষণায় উল্লেখযোগ্য অবদানকারী ব্যক্তিদের নামে নামাঙ্কিত হয়। প্রথম ভারতীয় বংশোদ্ভূত নঙোশ্চর হিসেবে তাঁর অবিস্মরণীয় কীর্তির সুবাদেই কল্পনা চাওলার নামে সাম্প্রতিক যানের নামকরণ হয়েছে বলে জানিয়েছে সংস্থা।

কার্নালে জন্ম হলেও পরবর্তীকালে আমেরিকার নাগরিক কল্পনা চাওলা ২০০৩ সালের ১৬ জানুয়ারি স্পেস শাটল কলাম্বিয়ায় মহাকাশ অভিযান শেষ করে পৃথিবীর উদ্দেশে পাড়ি দিয়েছিলেন। ১ ফেব্রুয়ারি বায়ুমণ্ডলে প্রবেশের পরে আমেরিকার দক্ষিণাংশে পৃথিবীর মাটি স্পর্শ করার ১৬ মিনিট আগে ভেঙে পড়ে কলম্বিয়া। সহযাত্রী মহাকাশচারীদের সঙ্গে মৃত্যু হয় কল্পনা চাওলার। 

সেই দুর্ঘটনার তিন বছর পরে মহাকাশে পাড়ি দেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত দ্বিতীয় অভিযাত্রী সুনীতা উইলিয়ামস। ২০০৬ সালের সেই অভিযানে আন্তর্জাতিক মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রে চার বার মহাকাশে হাঁটা-সহ মোট ২৯ ঘণ্টা ১৭ মিনিট কাটিয়ে মহিলা নভোশ্চর হিসেবে রেকর্ড তৈরি করেন উইলিয়ামস, যা আজও অটুট। ২০১২ সালে রাশিয়ার মহাকাশযানে তিনি আবার মহাকাশ অভিযানে যান। সে বার অভিযানের মেয়াদ ছিল ৫ মাস।

বন্ধ করুন