বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কোভিড টিকাকরণ প্রকল্পের জন্য পিছিয়ে দেওয়া হল বার্ষিক পোলিও প্রতিষেধক অভিযান
১৭ জানুয়ারি থেকে শুরু হতে চলা দেশব্যাপী পোলিও প্রতিষেধক অভিযান আপাতত পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার।
১৭ জানুয়ারি থেকে শুরু হতে চলা দেশব্যাপী পোলিও প্রতিষেধক অভিযান আপাতত পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার।

কোভিড টিকাকরণ প্রকল্পের জন্য পিছিয়ে দেওয়া হল বার্ষিক পোলিও প্রতিষেধক অভিযান

  • দেশে কোভিড প্রতিষেধক টিকাকরণের প্রাথমিক প্রয়োজন মিটলেই পোলিও অভিযান শুরু করা হবে।

অপ্রত্যাশিত কারণে আগামী ১৭ জানুয়ারি থেকে শুরু হতে চলা দেশব্যাপী পোলিও প্রতিষেধক অভিযান আপাতত পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক।

প্রতি বছর জানুয়ারি মাসে শুরু হয় প্রথম দফার জাতীয় পোলিও প্রতিষেধক অভিযান। বছরের মাঝামাঝি দ্বিতীয় পর্ব দিয়ে শেষ হয় এই বার্ষিক স্বাস্থ্য প্রক্রিয়া। কিন্তু আগামী শনিবার, ১৬ জানুয়ারি থেকে দেশজুড়ে কোভিড প্রতিষেধক টিকাকরণ অভিযান চালু হওয়ার কারণে দুই প্রক্রিয়ার মধ্যে সংঘাত এড়াতেই আপাতত স্থগিত রাখা হয়েছে পোলিও অভিযান।

রাজ্য সরকারগুলির স্বাস্থ্যমন্ত্রকের প্রধান সচিবের উদ্দেশে লেখা চিঠিতে গত সপ্তাহে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের টিকাকরণ দফতর পোলিও প্রতিষেধক অভিযান আপাতত স্থগিত রাখার আবেদন জানায়। ৯ জানুয়ারি তারিখে লেখা চিঠিতে বলা হয়েছে, পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত পোলিও টিকাকরণ অভিযান স্থগিত রাখতে হবে। 

রাজ্য স্বাস্থ্য মন্ত্রকের আধিকারিকরা অবশ্য জানিয়েছেন, পোলিও অভিযান এখনকার মতো স্থগিত রাখা হলেও পরে চালু করা হবে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মন্ত্রকের এক কর্তা জানান, দেশে কোভিড প্রতিষেধক টিকাকরণের প্রাথমিক প্রয়োজন মিটলেই পোলিও অভিযান শুরু করা হবে।

এই বিষয়ে মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণও সংবাদমাধ্যমকে জানান, কোভিড ছাড়া সরকারের বিভিন্ন পূর্ব নির্ধারিত স্বাস্থ্য সূচির নির্ঘণ্টে পরিবর্তন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘কোভিড সংক্রমণ শুরু হলে অন্যান্য সরকারি স্বাস্থ্য প্রকল্পপ্রবল ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আমরা তার পুনরাবৃত্তি চাই না। কোভিড পরিস্থিতির কারণে অন্যান্য স্বাস্থ্য প্রকল্পে সাময়িক বিলম্ব দেখা দিলেও ভবিষ্যতে কোনও প্রকল্পই কোভিড টিকাকরণ প্রকক্রিয়ার কারণে বন্ধ করা হবে না।’

বন্ধ করুন