বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > টাকা লেনদেনে NEFT, RTGS ও UPI-এর মধ্যে কোনটি বেছে নেবেন?
ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)

টাকা লেনদেনে NEFT, RTGS ও UPI-এর মধ্যে কোনটি বেছে নেবেন?

অনেকেই এই পদ্ধতিগুলি ব্যবহারের সময়ে একটু কনফিউজানে ভোগেন। এর কারণ প্রতিটি পদ্ধতির বিষয়ে বিশদে জানা থাকে না।

টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে রয়েছে বিভিন্ন পন্থা। NEFT, RTGS ও UPI-এর মাধ্যমে টাকা লেনদেন বেশ কমন।

কিন্তু অনেকেই এই পদ্ধতিগুলি ব্যবহারের সময়ে একটু ধন্দে থাকেন। এর কারণ প্রতিটি পদ্ধতির বিষয়ে বিশদে জানা থাকে না। তবে চিন্তা নেই। সেই কনফিউজান দূর করতেই এই প্রতিবেদন।

জেনে নিন NEFT, RTGS ও UPI-এর মূল বৈশিষ্ট্য :

NEFT :

NEFT সর্বক্ষণ কার্যকর (24x7)। কিন্তু টাকা ট্রান্সফার হওয়ার ক্ষেত্রে রয়েছে বিশেষ নিয়ম। প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর ব্যাচ হিসেবে টাকা লেনদেন হয়।

NEFT-এর মাধ্যমে লেনদেনের ক্ষেত্রে টাকার সর্বোচ্চ সীমা সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্ক নির্ধারণ করে। তাই বড় অঙ্কের টাকা লেনদেনের আগে ব্যাঙ্কের থেকে তা জেনে নিতে হবে।

এই পদ্ধতিতে টাকা ট্রান্সফারের ক্ষেত্রে IFSC কোড জানা প্রয়োজন। বেনিফিশিয়ারির নাম, যাঁকে পাঠানো হচ্ছে তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নম্বর-ও লাগে।

RTGS : 

এক্ষেত্রে টাকা পাঠানোর কোনও সর্বোচ্চ সীমা নেই। তবে, ন্যূনতম ২ লাখ টাকা ট্রান্সফার করতে হবে। এই ধরনের ট্রান্সফার কন্টিনিউয়াস। অর্থাত্ আপনার প্রেরণের সঙ্গে সঙ্গেই গোটা প্রক্রিয়াটি শুরু হয়ে যাবে।

UPI : 

ন্যাশানাল পেমেন্ট কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়ার নিয়ম অনুযায়ী UPI মারফত সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকার লেনদেন করা যাবে। একদিনে এর বেশি টাকার লেনদেন করা যাবে না। তবে, কিছু ব্যাঙ্কের ক্ষেত্রে এই পরিমাণ আরও কমও হয়।

Bankbazaar.com-এর সিইও আদিল শেট্টির কথায়, 'UPI, NEFT ও RTGS-এর মধ্যে মূলত ২টি পার্থক্য। প্রথমটি হল কত পরিমাণ টাকা একবারে পাঠাতে পারবেন। বেশিরভাগ ব্যাঙ্কে ২-১০ লাখ টাকার NEFT ও RTGS ট্রান্সফার করা যায়।' কিছু ব্যাঙ্কে RTGS-এ উর্ধ্বসীমাও থাকে না বলে জানালেন তিনি। তবে কিছু ব্যাঙ্কে আবার থার্ড পার্টি ট্রান্সফার লিমিট ২৫ লাখ থেকে ২ কোটি টাকার মধ্যে হয়।

'আর দ্বিতীয় পার্থক্য হল সময়। UPI-তে সঙ্গে সঙ্গে সেকেন্ডের মধ্যে টাকা ট্রান্সফার হয়। RTGS-এ সময় একটু বেশি লাগে। আধ ঘণ্টা পর্যন্ত লাগতে পারে। NEFT আবার ব্যাচ হিসাবে হয়। ফলে আপনার টাকার পরিমাণ, সময় ইত্যাদি বিচার করে বেছে নিন,' জানালেন আদিল শেট্টি।

বন্ধ করুন