বাড়ি > ঘরে বাইরে > NEP 2020: শিশুদের ব্যাগ ও বোর্ড পরীক্ষার বোঝা হ্রাস করবে নয়া শিক্ষানীতি, জোর চিন্তাভাবনায় : মোদী
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (ছবি সৌজন্য টুইটার @ANI)
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (ছবি সৌজন্য টুইটার @ANI)

NEP 2020: শিশুদের ব্যাগ ও বোর্ড পরীক্ষার বোঝা হ্রাস করবে নয়া শিক্ষানীতি, জোর চিন্তাভাবনায় : মোদী

  • মোদীর মতে, শিক্ষানীতিতে এত বৃহদাকারে পরিবর্তন হওয়ায় সংশয় থাকা স্বাভাবিক।

দীর্ঘদিন ধরেই পড়ুয়াদের কাঁধে ব্যাগ ও বোর্ড পরীক্ষার বোঝা চাপছে। আর শৈশব-কৈশোরের সেই অসহ্য চাপ থেকে মুক্তি দেবে নয়া জাতীয় শিক্ষানীতি। সোমবার ‘শিক্ষা সংক্রান্ত রাজ্যপালদের কনফারেন্স’-এ একথাই বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

তিনি বলেন, 'দীর্ঘদিন ধরেই আমাদের বাচ্চারা ব্যাগ ও বোর্ড পরীক্ষার বোঝায় চাপা পড়ে যাচ্ছে, পরিবার ও সমাজের চাপে রয়েছে তারা। নয়া শিক্ষানীতিতে কার্যকর উপায়ে সেই বিষয়টির সমাধান করা হয়েছে।'

মোদীর দাবি, নয়া শিক্ষানীতিতে চিরাচরিত শিক্ষাব্যবস্থার ধারণা দূরে সরিয়ে রেখে পড়ুয়াদের চিন্তাভাবনার উপর বাড়তি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। তাঁর কথায়, ‘নয়া শিক্ষানীতিতে পড়াশোনার পরিবর্তে শেখার উপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে এবং পাঠ্যক্রম থেকে এগিয়ে গঠনমূলক চিন্তাভাবনার উপর জোর দেওয়া হয়েছে। এই নীতিতে প্রক্রিয়ার থেকে আবেগ, বাস্তবতা এবং কর্মদক্ষতার উপর বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।’

নয়া জাতীয় শিক্ষানীতি সংক্রান্ত যাবতীয় খবর দেখুন

দীর্ঘ ৩৪ বছর পর শিক্ষানীতি পরিবর্তনের ক্ষেত্রে অসংখ্য মানুষের মত নেওয়া হয়েছে বলেও দাবি করেন মোদী। দেশজুড়ে বিস্তারিতভাবে আলোচনার পরই নয়া শিক্ষানীতির ঘোষণা করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষানীতিতে সরকারের হস্তক্ষেপ একেবারে ন্যূনতম রাখা উচিত। সেই প্রক্রিয়ায় যত বেশি শিক্ষক, অভিভাবক এবং পড়ুয়া যুক্ত হবেন, তা তত বেশি প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠবে।’

তবে নয়া শিক্ষানীতি নিয়ে পশ্চিমবঙ্গ-সহ  বিভিন্ন রাজ্যের তরফে যে প্রশ্ন তোলা হয়েছে, সে বিষয়েও আশ্বস্ত করার চেষ্টা করেন মোদী। তাঁর মতে, শিক্ষানীতিতে এত বৃহদাকারে পরিবর্তন হওয়ায় সংশয় থাকা স্বাভাবিক। যাবতীয় সংশয় কাটানোর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে কেন্দ্র। একইসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এটা শুধুমাত্র সরকারের নীতি নয়। এটা দেশের নীতি। বিদেশ নীতি ও প্রতিরক্ষা নীতি যেমন দেশের হয়, তেমনই শিক্ষানীতি হল দেশের। কে সরকারে আছে, তা গুরুত্বপূর্ণ নয়।’

বন্ধ করুন