বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Independence Day: প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি পালন করলেন না, ইন্ডিয়া গেটে বসল না নেতাজির মূর্তি

Independence Day: প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি পালন করলেন না, ইন্ডিয়া গেটে বসল না নেতাজির মূর্তি

নেতাজির গ্রানাইটের মূর্তি।

এখানে ৮০ হাজার কিলো ওজনের এই মূর্তির উচ্চতা ২৩ ফুট। আর যে মঞ্চের উপর সেটি বসানো হবে, সেটির উচ্চতা ৫ ফুট। সব মিলিয়ে ২৮ ফুট। ইন্ডিয়া গেটের ৩০০ মিটার পিছনে থাকা ছাউনি বা ক্যানোপিতে বসানোর কথা এই মূর্তিকে। কবে বসবে মূর্তি?

প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল স্বাধীনতার ৭৫তম বছরে ইন্ডিয়া গেটে বসবে নেতাজির গ্রানাইটের মূর্তি। এই প্রতিশ্রুতি স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দিয়েছিলেন দেশবাসীকে। কালো গ্রানাইটে প্রস্তুত করা হয়েছিল ২৩ ফুটের মূর্তি। কিন্তু কথা রাখলেন না প্রধানমন্ত্রী। হঠাৎই বাতিল হয়ে গেল উদ্বোধন কর্মসূচি। আজ স্বাধীনতা দিবসে বসছে না আজাদ হিন্দ বাহিনীর সেনানায়কের পোশাকে নেতাজির পূর্ণাবয়ব মূর্তি। তবে সকালে তিনি লালকেল্লায় ভাষণ দিয়েছেন। শেষ মুহূর্তে কেন বাতিল হল?‌ উঠছে প্রশ্ন।

কী বলছেন নেতাজির পরিবার?‌ এই ঘটনায় এখন হতবাক আপামর বাঙালি তথা দেশবাসী। তাই সুভাষচন্দ্র বসুর ভাইপো প্রয়াত শিশিরকুমার বসুর পুত্র ইতিহাসবিদ সুগত বসু বলেন, ‘ন্যাশনাল গ্যালারি অব মডার্ন আর্ট (এনজিএমএ) আমাদের থেকে নেতাজির আসল ছবি চেয়েছিল। দিয়েওছিলাম। আশা ছিল ১৫ অগস্টেই তা উন্মোচন হবে। কিন্তু হল না।’ দেশনায়কের মূর্তি এই দিনটিতে বসলেই নেতাজিকে যোগ্য সম্মান দেওয়া হতো বলেই পরিবারের অভিমত।

ঠিক কী দেখা গিয়েছিল?‌ গত ১২ জুন শুরু হয়েছিল এই মূর্তি নির্মাণের কাজ। ৪০০ টন গ্রানাইট আনা হয় তেলঙ্গানা থেকে। ৪০ জন কারিগর মিলে সেই কাজ সময়েই শেষ করেছিল। এনজিএমএর ওয়ার্কশপে দেখা যাচ্ছে, মূর্তি তৈরি হয়ে গেলেও আপাদমস্তক কালো প্লাস্টিকে মোড়া রয়েছে। মনে করা হচ্ছে, যাতে কেউ ছবি পর্যন্ত তুলতে না পারে তাই এই ব্যবস্থা করা হয়েছে। যদিও এই বিষয়ে কেউ মুখ খুলছেন না। অথচ লালকেল্লা থেকে ভাষণ দেওয়ার সময় তিনি নেতাজি এবং সাভারকর–কে একাসনে বসিয়ে দিলেন। তিনি বলেন, ‘‌আজ দেশবাসী মহাত্মা গান্ধী, নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু, বীর সাভারকরের প্রতি কৃতজ্ঞ। তাঁরা স্বাধীনতার জন্য নিজেদের প্রাণ বিসর্জন দিয়েছিলেন।’‌

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ এখানে ৮০ হাজার কিলো ওজনের এই মূর্তির উচ্চতা ২৩ ফুট। আর যে মঞ্চের উপর সেটি বসানো হবে, সেটির উচ্চতা ৫ ফুট। সব মিলিয়ে ২৮ ফুট। ইন্ডিয়া গেটের ৩০০ মিটার পিছনে থাকা ছাউনি বা ক্যানোপিতে বসানোর কথা এই মূর্তিকে। কবে বসবে মূর্তি?‌ এই বিষয়ে এনজিএমএর ডিজি আদিত্য গণনায়ক বলেন, ‘আমি কিছু বলতে পারব না। কারণ, বলা মানা।’ তবে আগামী ২৩ জানুয়ারি, এই মূর্তি বসতে পারে বলে সূত্রের খবর। স্বাধীনতার ৭৫ বছর উপলক্ষ্যে সংসদের ঐতিহাসিক সেন্ট্রাল হলেও হচ্ছে না কোনও বিশেষ অনুষ্ঠান। শুধু প্রচার চলছে ‘স্বাধীনতার অমৃত মহোৎসব’, ‘হর ঘর তেরঙ্গা’র মতো কর্মসূচির।

বন্ধ করুন