প্রাণভিক্ষার সঙ্গে নিজের ডায়েরি পাঠাতে চায় নির্ভয়াকাণ্ডে অন্যতম দোষী (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
প্রাণভিক্ষার সঙ্গে নিজের ডায়েরি পাঠাতে চায় নির্ভয়াকাণ্ডে অন্যতম দোষী (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

রাষ্ট্রপতিকে নিজের ডায়েরি পাঠাতে চেয়ে আদালতে নির্ভয়াকাণ্ডে দোষী

আরও দুই দোষী পবন গুপ্ত ও অক্ষয় ঠাকুর সিংয়ের হয়ে আদালতে গিয়েছেন আইনজীবী এপি সিং।

নিজের ডায়েরি-সহ রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের প্রাণভিক্ষার আর্জি জানাতে চায় নির্ভয়াকাণ্ডের অন্যতম দোষী বিনয় শর্মা। তা তিহাড় জেল কর্তৃপক্ষ দ্রুত যাতে তার হাতে তুলে দেয় সেজন্য দিল্লির একটি আদালতে আবেদন জানাল ফাঁসির সাজাপ্রাপ্ত বিনয়।

আরও পড়ুন : নির্ভয়া কাণ্ডের সাত বছর- ফাঁসুড়ে হতে চেয়ে বিদেশ থেকে চিঠি তিহাড়ে

তার আইনজীবী এপি সিং জনান, প্রাণভিক্ষার আর্জি জানাতে তৈরি বিনয়। তিনি বলেন, '১৭০ পাতার ডায়েরি-সহ প্রাণভিক্ষার আর্জি জানানোর ইচ্ছাপ্রকাশ করেছে বিনয়।' এনিয়ে আবেদন করা হলেও জেল কর্তৃপক্ষ তা এখনও মানেনি বলে দাবি বিনয়ের আইনজীবীর।

আরও পড়ুন : নির্ভয়া-দোষীদের ফাঁসির ড্রেস রিহার্সাল হল তিহাড়ে

ইতিমধ্যে বিনয়ের মেডিক্যাল রিপোর্ট, জেলে তথ্য, কাজ করে জেলে কত টাকা আয় করেছেন, তিহাড় অলিম্পিক ও আঁকার মতো কার্যকলাপে তার রেকর্ড পাঠিয়েছে জেল কর্তৃপক্ষ।

আর পড়ুন : 'মেয়ের মৃত্যু নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে', কাঁদতে কাঁদতে বললেন নির্ভয়ার মা

এদিকে, আরও দুই দোষী পবন গুপ্ত ও অক্ষয় ঠাকুর সিংয়ের হয়ে আদালতে গিয়েছেন আইনজীবী। তাঁর দাবি, কিউরেটিভ পিটিশন দাখিলের জন্য এখনও প্রয়োজনীয় নথি দেয়নি তিহাড় জেল।

আরও পড়ুন : 'ইন্দিরা জয়সিংয়ের মতো লোকের জন্য ধর্ষণ হয়', কড়া জবাব নির্ভয়ার মা

ইতিমধ্যে অপর দুই অভিযুক্ত বিনয় শর্মা ও মুকেশ সিংয়ের আর্জি খারিজ করে দিয়েছে আদালত। অন্য দুই অভিযুক্তের আর্জি যে জানানোও হবে তা আজকের আবেদন থেকে পরিষ্কার হয়ে গেল সংশ্লিষ্ট মহলের মত। আগামী শনিবার মামলাটি আদালতে উঠতে পারে সূত্রের খবর।

আরও পড়ুন : কঙ্গনার তোপের মুখে আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিং, বললেন 'এঁরাই ধর্ষকদের জন্ম দেয়'

পাশাপাশি, আজকের আবেদনের ফলে ১ ফেব্রুয়ারি চার দোষীর ফাঁসি নিয়েও সংশয় তৈরি হল। ২০১২ সালে ১৬ ডিসেম্বর রাতে একসঙ্গে নৃশংস কাজের জন্য চার দোষীর একসঙ্গে ফাঁসি হবে। সেই নিয়মকে হাতিয়ার করে আদালতে একের পর এক আবেদন জানাচ্ছেন। ফলে বারবার ফাঁসির দিন পিছোচ্ছে।

বন্ধ করুন