বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দুটো ভ্যাকসিন নেওয়া আছে? ভ্রমণের ক্ষেত্রে নয়া নির্দেশিকা কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের
দেশের মধ্যে ভ্রমণের ক্ষেত্রে নয়া নির্দেশিকা জারি করল কেন্দ্রীয় মন্ত্রক ফাইল ছবি : পিটিআই
দেশের মধ্যে ভ্রমণের ক্ষেত্রে নয়া নির্দেশিকা জারি করল কেন্দ্রীয় মন্ত্রক ফাইল ছবি : পিটিআই

দুটো ভ্যাকসিন নেওয়া আছে? ভ্রমণের ক্ষেত্রে নয়া নির্দেশিকা কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের

  • যদি ভ্রমণ করার সময় কারোর জ্বর আসে তবে তিনি টিকিট পরীক্ষক, বাস কন্ডাক্টরকে বিষয়টি জানাতে পারেন।

দেশের মধ্যেই(Domestic Travel)  বিমানে, ট্রেনে, জাহাজে কিংবা বাসে ভ্রমণের ক্ষেত্রে বিশেষ গাইডলাইন জারি করল ভারত সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক। নতুন নির্দেশিকায় উল্লেখ করা হয়েছে, যাত্রীদের পুরোপুরি করোনা প্রতিরোধক অ্যাপ্রন পরার দরকার নেই। তবে আরোগ্য সেতু অ্যাপটি ডাউনলোড করে রাখার ব্যাপারে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। থার্মাল স্ক্যানারের ব্যবহার যথাযথ করার ব্যাপারেও বলা হয়েছে। তবে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল কেন্দ্র রাজ্যগুলিকে জানিয়েছে কোনও যাত্রী যদি পুরোপুরি ভ্যাকসিন নিয়ে থাকেন ও সেকেন্ড ডোজের পর ১৫ দিন পেরিয়ে গিয়ে থাকে তবে তাঁকে আরটিপিসিআর নেগেটিভ রিপোর্টের জন্য চাপ দেওয়ার দরকার নেই। 

 

যাত্রীদের জন্য সাধারণ নির্দেশিকায় উল্লেখ করা হয়েছে, কোভিডের কোনও উপসর্গ না থাকলেও যাত্রীরা নিজেদের প্রতি নজর রাখবেন। কোভিড বিধিগুলি যেমন মাস্ক পরা, স্যানিটাইজার ব্যবহার করা এগুলি মেনে চলবেন। যদি ভ্রমণ করার সময় কারোর জ্বর আসে তবে তিনি অবশ্যই টিকিট পরীক্ষক, বাস কন্ডাক্টরকে বিষয়টি জানাবেন। গন্তব্যে পৌঁছনর পর তাঁর উপসর্গ দেখা দিলে তিনি ১০৭৫ নম্বরে ফোন করে সংশ্লিষ্ট জায়গায় জানাবেন। 

এয়ারপোর্ট, স্টেশন, বাস টার্মিনাস, বন্দরে কোভিড সতর্কতা নিয়ে ঘোষণা করতে হবে। সমস্ত গণপরিবহণকে স্যানিটাইজড করতে হবে নিয়মিত। সকলের জন্য থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা রাখতে হবে। তবে কেবলমাত্র উপসর্গহীনদেরই নির্দিষ্ট গণপরিবহণে চাপার অনুমতি দেওয়া হবে। রেল, সড়ক, আকাশ ও জলপথে আন্তঃরাজ্য যাতায়াতের ক্ষেত্রে কোনও বিধিনিষেধ নেই। যদি কোনও রাজ্যে প্রবেশের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট টেস্টের প্রয়োজন থাকে তবে সেটা যতটা সম্ভব সকলকে জানাতে হবে। গন্তব্যে পৌঁছনর পর কারোর উপসর্গ দেখা দিলে Rapid Antigen Test এর ব্যবস্থা করতে হবে। 

 

বন্ধ করুন