বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ফুলশয্যার রাতে বরকে ধারালো অস্ত্রের কোপ! ডাকাতি করে পালাল কনে
ফাইল চিত্র (File Photo)
ফাইল চিত্র (File Photo)

ফুলশয্যার রাতে বরকে ধারালো অস্ত্রের কোপ! ডাকাতি করে পালাল কনে

গত ১৫ মার্চ অনুষ্ঠান করে বিয়ে হয় মনীশা ও চন্দ্রশেখরের। ওইদিন রাতেই ফুলশয্যার সময়েই ঘটে এমন ঘটনা।

রাতে ফুলশয্যা হলো তারপর সকাল হল

ঘুম থেকে উঠে দেখি

বউ পালালো জানলা দিয়ে

না টুম্পা গানের মতো জানলা দিয়ে পালাননি কনে। রীতিমতো ছুরির কোপ মারলেন সদ্য বিয়ে করা স্বামীকে। তারপর হাতের কাছে যা গয়নাগাঁটি-টাকাপয়সা ছিল, সব হাতিয়ে নিয়ে কেটে পড়লেন। চলতি সপ্তাহের সোমবার এমনটাই ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বিজনৌর জেলায়।

গত ১৫ মার্চ অনুষ্ঠান করে বিয়ে হয় মনীশা ও চন্দ্রশেখরের। ওইদিন রাতেই ফুলশয্যার সময়েই ঘটে এমন ঘটনা। আহত যুবকের দাবি, রাতে হঠাত্ই একটি ধারাল বস্তু নিয়ে তাঁর উপর চড়াও হয় নববধু। বরের মাথায় সেই ধারাল অস্ত্র দিয়ে আঘাত হানেন মনীশা। তারপরেই চন্দ্রশেখর জ্ঞান হারান। জ্ঞান ফিরতে দেখেন স্ত্রী নেই। নেই ঘরে থাকা টাকাপয়সা-গয়নাগাঁটিও।

ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয় নতুন বরকে। এরপরেই পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন ওই যুবক। অভিযোগে জানান, তাঁকে আহত করে বলপূর্বক নগদ ১৫,০০০ টাকা ও গয়নাগাঁটি চুরি করে পালিয়েছেন তাঁর সদ্যবিবাহিতা স্ত্রী।

এমন অদ্ভুত অভিযোগ পেয়ে প্রথমে বেজায় ঘাবড়ে যান পুলিশকর্মীরা। ডাকাতি করেছেন নববধু? এমন আবার হয় নাকি! সঙ্গে সঙ্গে কনের বাড়ির লোকদের ডেকে পাঠানো হয় থানায়।

থানায় আসেন কনে স্বয়ং। সকলের সামনেই কনের সাফ বক্তব্য যে এই বিয়েতে তাঁর সায় নেই। দুই পরিবার অবশ্য বিষয়টি মিটমাট করে নেওয়ার চেষ্টা করেন। তবে, নিজের সিদ্ধান্ত থেকে এক চুল নড়েননি মনীশা। অবশেষে তাঁরা থানাতেই বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন।

বন্ধ করুন