বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > PFI under NIA lens: ফুলওয়ারি শরিফে গ্রেফতারির পর এনআইএর ফোকাসে পিএফআই! উঠছে বহু চাঞ্চল্যকর তথ্য
ফুলওয়ারি শরিফে গ্রেফতারির পর এনআইএর ফোকাসে পিএফআই

PFI under NIA lens: ফুলওয়ারি শরিফে গ্রেফতারির পর এনআইএর ফোকাসে পিএফআই! উঠছে বহু চাঞ্চল্যকর তথ্য

জুলাই মাসের ১১ তারিখ ফুলওয়ারি শরিফ থেকে গ্রেফতার হয় পরভেজ ও জালালউদ্দিন। জুলাই মাসের ২২ তারিখ কেস এনআইএর হাতে যায়। প্রাথমিকভাবে ময়দানে নেমেই ২৬ জনের সঙ্গে পিএফআই যোগ রয়েছে সন্দেহে এফআইআর করা হয়। এরই মাঝে উঠে আসে আহলে-হাদিথ নামের এক সংগঠনের উল্লেখ।

শিশির গুপ্ত

বিহারের ফুলওয়ারি শরিফ থেকে কিছুদিন আগেই আথার পরভেজ ও মহম্মদ জালালুদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়।  ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে বেশ কিছু সন্দেহজনক নথি। যেখান থেকে উদ্ধার হয় পিএফআইয়ের নানান গোপন পরিকল্পনার কথা। এরপর থেকেই আলাদা করে পিএফআইয়ের ওপর নজর রাখতে শুরু করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী দল এনআইএ।

জুলাই মাসের ১১ তারিখ ফুলওয়ারি শরিফ থেকে গ্রেফতার হয় পরভেজ ও জালালউদ্দিন। জুলাই মাসের ২২ তারিখ কেস এনআইএর হাতে যায়। প্রাথমিকভাবে ময়দানে নেমেই ২৬ জনের সঙ্গে পিএফআই যোগ রয়েছে সন্দেহে এফআইআর করা হয়। এরই মাঝে উঠে আসে আহলে-হাদিথ নামের এক সংগঠনের উল্লেখ। যারা সামাজিক ন্যায় প্রতিষ্ঠা নিয়ে সরব হয় বলে দাবি করা হয়। এদিকে ফুলওয়ারি শরিফে গ্রেফতারির ঘটনায় সন্দেহ বহু দিক থেকে রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী মোদীর সফরের ১৫ দিন আগে এই ধৃত দুই বিশেষভাবে প্রশিক্ষিত হয়ে আসে বলে খবর। তাদের লক্ষ্য প্রধানমন্ত্রী মোদী বলে জানা যায়। বিশেষ এক গোয়েন্দা সূত্র মারফৎ খবর পেয়ে তল্লাশি চালিয়ে বিহার পুলিশ এই তথ্য জানতে পেরে গ্রেফতার করে আথার পরভেজ ও মহম্মদ জালালুদ্দিনকে। রবিবার বাতিল ২০০ এর বেশি ট্রেন! সম্পূর্ণ তালিকা দেখে নিন

২৫ টি পিএফআফ প্যামফ্লেট ছাড়াও ২০৪৭ সালের মধ্যে ভারতকে ইসলাম দেশ করে তোলার গোপন প্ল্যানের ছক উদ্ধার হয়েছে ধৃতদের কাছ থেকে। উল্লেখ্য নিষিদ্ধ ইসলামি সংগঠন সিমির সঙ্গে এই সংগঠনের মূল জড়িয়ে রয়েছে। জানা যাচ্ছে, দেশের প্রায় ২৪ এলাকায় ১ লাখ ক্যাডার রয়েছে এই সংগঠনের। সংগঠনের একটা বড় অংশ রয়েছে কেরল,কর্ণাটক, তামিলনাড়ু জুড়ে। সেখানেই সংগঠনের নেতৃত্ব থাকে বলে জানা যাচ্ছে। উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে যখন মিশরে মুসলিম ব্রাদারহুড নেতা ও প্রাক্তন মিশরীয় প্রেসিডেন্ট মহম্মদ মোরসিকে হত্যা করা হয় তখন দিল্লিতে মিশরের দূতাবাসের সামনে প্রতিবাদে ফুঁসে ওঠে পিএফআই। 

আন্তর্জাতিকস্তরে কাতার কুয়েত সহ বিভিন্ন ইসলামিক দেশে ছড়িয়ে রয়েছে পিএফআইয়ের সদস্যরা। জানা যাচ্ছে, কাতার ইন্ডিয়ান সোশ্যাল ফোরাম ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে তৈরিই হয়েছিল শুধুমাত্র ক্যাডারদের অর্থ যোগান দেওয়ার জন্য। এছাড়াও রিহাব ইন্ডিয়া ফাউন্ডেশন ভারতে বহু মুসলিম অধ্যুষিত গ্রামে ফান্ডিং করছে বলেও খবর। কীভাবে এই ফান্ডিং হচ্ছে বা পিএফআই তার সঙ্গে কতটা জড়িত তা নিয়ে রয়েছে এনআইএর নজর। 

 

 

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন