বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > লাগাতার বাড়ছে করোনা, ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত নাইট কার্ফুর ঘোষণা দিল্লির
লাগাতার বাড়ছে করোনা, ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত নাইট কার্ফুর ঘোষণা দিল্লির। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
লাগাতার বাড়ছে করোনা, ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত নাইট কার্ফুর ঘোষণা দিল্লির। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

লাগাতার বাড়ছে করোনা, ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত নাইট কার্ফুর ঘোষণা দিল্লির

  • মুম্বইয়ের পর করোনাভাইরাস সংক্রমণ রুখতে কড়া রাস্তায় হাঁটল আরও এক মহানগরী।

চার মাস সংক্রমণের হার (পজিটিভিটি রেট) পাঁচ শতাংশের গণ্ডি ছাড়িয়েছে। তারপরই করোনাভাইরাস সংক্রমণ রুখতে কড়া রাস্তায় হাঁটল দিল্লি। আজ (মঙ্গলবার) থেকেই দিল্লিতে রাত্রিকালীন কার্ফু (নাইট কার্ফু) লাগু করা হবে। আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত রাত ১০ টা থেকে ভোর পাঁচ ঘণ্টা পর্যন্ত সেই বিধিনিষেধ কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে দিল্লি সরকার।

সোমবার দিল্লিতে ৩,৫৪৮ জন নয়া আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল ৬৪,০০৩ টি। তার ফলে একলাফে সংক্রমণের হার বেড়ে দাঁড়ায় ৫.৫৪ শতাংশ। যা রবিবারও ছিল ৪.৬৪ শতাংশ। শুধু তাই নয়, গত বছর ২ ডিসেম্বরের পর থেকে সোমবারই প্রথমবার সংক্রমণের হার পাঁচের গণ্ডি পার করে যায়। অর্থাৎ ৮২ দিন সেই মানদণ্ডের নীচে ছিল করোনার সংক্রমণের হার। অথচ একটা সময় রাজধানীতে সংক্রমণের হার এক শতাংশের নীচে নেমে গিয়েছিল।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই দিল্লিতে লাগাতার বাড়ছে সংক্রমণের হার। দোলের পরদিন (২৯ মার্চ) রাজধানীতে সংক্রমণের হার ছিল ২.৭ শতাংশ। আটদিনের মাথায় সেটাই দ্বিগুণ হয়ে গিয়েছে। অথচ দোলের পরদিন করোনার যে সংক্রমণের হার ছিল, তা এক সপ্তাহ আগেও অর্ধেক ছিল। অর্থাৎ গত দু'সপ্তাহে দিল্লিতে করোনার সংক্রমণ রীতিমতো খাড়াভাবে বেড়েছে। সার্বিকভাবে দিল্লিতে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬৭৯,৯৬২। আর মৃতের সংখ্যা ১১,০৯৬। 

গত সপ্তাহে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছিলেন, রাজধানীতে করোনার চতুর্থ ওয়েভ (স্রোত) আছড়ে পড়েছে। কিন্তু লকডাউন হবে না। তিনি বলেছিলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে আমরা লকডাউনের বিষযে ভাবনাচিন্তা করছি না। আমি পরিস্থিতির উপর নজর রাখছি। সার্বিকভাবে মানুষের সঙ্গে আলোচনার পর সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

বন্ধ করুন