মুকেশ সিং
মুকেশ সিং

সুপ্রিম কোর্টে খারিজ মুকেশের আর্জি, শেষ সব আইনি পথ

তবে মুকেশ সিংয়ের কাছে আর আইনি পথ না থাকলেও আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ফাঁসি হবে কিনা, তা নিশ্চিত নয়।

যে প্রক্রিয়ায় প্রাণভিক্ষার আর্জি খারিজ করেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, তার বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিল নির্ভয়া কাণ্ডের অন্যতম দণ্ডিত মুকেশ সিং। সেই আর্জি খারিজ করে দিল শীর্ষ আদালত।

আরও পড়ুন : নির্ভয়া কাণ্ডের সাত বছর- ফাঁসুড়ে হতে চেয়ে বিদেশ থেকে চিঠি তিহাড়ে

বিচারপতি আর ভানমুতীর নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চ রায় দেয়, 'সরকার রাষ্ট্রপতিকে প্রাসঙ্গিক সব নথি দেয়নি বলে যে দাবি করেছিল মুকেশ, তার কোনও ভিত্তি নেই।'

আরও পড়ুন : হিংস্র শ্বাপদের মতো মরবে নির্ভয়ার অত্যাচারীরা, ঘোষণা ফাঁসুড়ের

মঙ্গলবার মুকেশের আইনজীবী দাবি করেছিলেন, জেলে হেনস্থার শিকার হয়েছে নির্ভয়াকাণ্ডের অন্যতম দণ্ডিত। অপদস্থ হয়েছে। সেই সওয়ালকেও ভ্রূক্ষেপ করেনি তিন সদস্যের বেঞ্চ। বরং সাফ বলা হয়, 'রাষ্ট্রপতির প্রাণভিক্ষার আর্জি চ্যালেঞ্জের ক্ষেত্রে জেলের কষ্ট কোনও ভিত্তি হতে পারে না।'

আরও পড়ুন : নির্ভয়া-দোষীদের ফাঁসির ড্রেস রিহার্সাল হল তিহাড়ে

প্রাণভিক্ষার আর্জির ক্ষেত্রে দ্রুততার বিরুদ্ধে মুকেশের তৃতীয় সওয়ালও খারিজ করে দেয় শীর্ষ আদালত।

আরও পড়ুন : 'তিহাড় সব কাগজ দিয়েছে', নির্ভয়ার দোষীদের আইনজীবীর আর্জি খারিজ

এটাই কি শেষ আইনি পথ ছিল মুকেশের?

এই আর্জি খারিজের পর আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ফাঁসি আটকানোর জন্য মুকেশের হাতে আর কোনও আইনি পথ খোলা নেই। রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার আর্জি জানানোর কাছে সুপ্রিম কোর্টে কিউরেটিভ পিটিশন দাখিল করেছিল মুকেশ। তা খারিজ করে দেয় শীর্ষ আদালত।

আরও পড়ুন : 'ইন্দিরা জয়সিংয়ের মতো লোকের জন্য ধর্ষণ হয়', কড়া জবাব নির্ভয়ার মা

তবে আইনি পথ না থাকলেও আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ফাঁসি হবে কিনা, তা নিশ্চিত নয়। কারণ একটি রায়েই চারজনকে দণ্ডিত করা হয়েছিল। সেজন্য দিল্লির আদালতও একটি মৃত্যু পরোয়ানা জারি করেছিল। অর্থাৎ চারজনের একইসঙ্গে ফাঁসি কার্যকর হবে।

আরও পড়ুন : কঙ্গনার তোপের মুখে আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিং, বললেন 'এঁরাই ধর্ষকদের জন্ম দেয়'

আর সেজন্য আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ফাঁসি কার্যকর হবে কিনা, তা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে। কারণ ইতিমধ্যে ফের সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছে নির্ভয়াকাণ্ডের অন্যতম দণ্ডিত অক্ষয় কুমার। শীর্ষ আদালতে কিউরেটিভ পিটিশন দায়ের করা হয়েছে।

আর পড়ুন : 'মেয়ের মৃত্যু নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে', কাঁদতে কাঁদতে বললেন নির্ভয়ার মা

অক্ষয়ের আইনজীবী এ পি সিং জানিয়েছেন, বুধবার কিউরেটিভ পিটিশন দাখিল করেছেন। শীর্ষ আদালতের রেজিস্ট্রি পিটিশনের সঙ্গে আরও কিছ নথি চেয়েছে।

আর পড়ুন : জেলে যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছি, সুপ্রিম কোর্টে অভিযোগ নির্ভয়াকাণ্ডের দণ্ডিতের

সংবাদসংস্থা পিটিআইকে তিনি বলেন, 'কিউরেটিভ পিটিশন নিয়ে আমি সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রির দ্বারস্থ হয়েছি। বাড়তি কিছু নথি জমা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। তা পূরণ করার প্রক্রিয়ায় রয়েছি আমি।'

সেই পিটিশন নিয়ে সিদ্ধান্তের পর বাকি তিনজনের কাছে রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার আর্জি জানানোর পথ খোলা রয়েছে।

বন্ধ করুন