বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Nirmala Vs Derek: ‘GST-র আগে পশ্চিমবঙ্গে...’, সংসদের গণ্ডি ছাড়িয়ে এবার টুইটারে নির্মলা বনাম ডেরেক
টুইটারে নির্মলা বনাম ডেরেক 

Nirmala Vs Derek: ‘GST-র আগে পশ্চিমবঙ্গে...’, সংসদের গণ্ডি ছাড়িয়ে এবার টুইটারে নির্মলা বনাম ডেরেক

  • গতকাল অর্থমন্ত্রী নির্মলা সংসদে দাঁড়িয়ে দাবি করেন, ভারতে আর্থিক মন্দার কোনও আশঙ্কা নেই। সীতারামন দাবি করেন, করোনাভাইরাস, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যেও বিশ্বের অন্যতম দ্রুত আর্থিক বৃদ্ধি হওয়া দেশগুলির তালিকায় আছে ভারত। বিশ্বের তাবড়-তাবড় দেশের তুলনায় ভারতের অবস্থা অনেক ভালো বলে দাবি করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।

সংসদের আলোচনা শেষে টুইটারে ‘বাদানুবাদে’ জড়ালেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন এবং তৃণমূলের রাজ্যসভা সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। এর আগে মঙ্গলবার নির্মলা সীতারামন মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে সংসদে বলতে শুরু করলে তৃণমূল সাংসদরা রাজ্যসভা থেকে ওয়াকআউট করেন। সেই নিয়ে খোঁচা দিয়ে ডেরেককে ট্যাগ করে টুইট করেন নির্মলা। পরে এর জবাব দিয়ে পালটা কটাক্ষ ছুঁড়ে দেন ডেরেক।

মঙ্গলবার টুইট বার্তায় নির্মলা লেখেন, ‘ডেরেক ও’ব্রায়েন আপনি তো সেই মুহূর্তে বাইরে বেরিয়ে গেলেন যখন আমি বলছিলাম যে জিএসটি লাগু করার আগে পশ্চিমবঙ্গে পনিরে ভ্যাট ধার্য করা ছিল। কিন্তু আপনি রাজ্যসভা ছেড়ে চলে গেলেও আমি আপনার উত্থাপিত সকল ইস্যু, সেস, এলপিজি, জিএসটি এবং ভারতীয় মুদ্রা নিয়ে কথা বলেছি। দয়া করে সময় বের করে নয়ে সংসদ টিভিতে তা দেখে নেবেন।’ এদিকে এর আগে নির্মলাকে ট্যাগ করে তোপ দেগেছিলেন ডেরেক। সেই টুইটের জবাবেই নির্মলা এই টুইট করেছিলেন।

আরও পড়ুন: ঝাড়খণ্ড MLA মামলায় CID বনাম দিল্লি পুলিশ! রাজধানী যাচ্ছেন বাংলার আধিকারিকরা

ডেরেক নির্মলাকে ট্যাগ করে টুইটারে লিখেছিলেন, ‘আমরা ৬টি সুনির্দিষ্ট বিষয় তুলে ধরেছিলাম। সে সব এড়িয়ে গেলেন নির্মলা সীতারামন। সংসদে সাড়া নেই। হয়তো আমি টুইটারে ভাগ্যবান হব (জবাব পাব)।’ এর জবাবে নির্মলা ডেরেককে সংসদ টিভি দেখার পরামর্শ দেন। আর এর জবাবে ডেরেক ফের টুইট করেন। তৃণমূল সাংসদ লেখেন, ‘নরেন্দ্র মোদীর সরকারের থেকে এটাই প্রত্যাশিত। যে মুহূর্তে আমি আমার ১৪ মিনিটের বক্তৃতা দিতে উঠলাম, সেই মুহূর্তে সরকারের অর্থমন্ত্রী রাজ্যসভা ছেড়ে চলে গেলেন। তৃণমূল কংগ্রেস এখনও জবাব খুঁজছে আর তারা এখন টুইটারে বিবাদ খুঁজছে। সংসদে আমরা মূল্যবৃদ্ধি, জিএসটি সহ যে ৬টি ইস্যু উত্থাপন করেছিলাম, তার কোনওটিরই তিনি (নির্মলা সীতারামন) বিশ্বাসযোগ্যভাবে সাড়া দেননি। হ্যাপি টুইটিং।’

এদিকে গতকাল অর্থমন্ত্রী নির্মলা সংসদে দাঁড়িয়ে দাবি করেন, ভারতে আর্থিক মন্দার কোনও আশঙ্কা নেই। সীতারামন দাবি করেন, করোনাভাইরাস, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যেও বিশ্বের অন্যতম দ্রুত আর্থিক বৃদ্ধি হওয়া দেশগুলির তালিকায় আছে ভারত। বিশ্বের তাবড়-তাবড় দেশের তুলনায় ভারতের অবস্থা অনেক ভালো বলে দাবি করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। যদিও সীতারামনের সেই আশ্বাসে সন্তুষ্ট হয়নি বিরোধী দলগুলি। ওয়াকআউট করেন বিরোধী সাংসদরা।

বন্ধ করুন