বাড়ি > ঘরে বাইরে > অরুণাচলে পাঁচ যুবককে 'অপহরণ' চিনের, দাবি কংগ্রেস বিধায়কের, নিশ্চিত করেনি সেনা
অরুণাচলে পাঁচ যুবককে অপহরণের অভিযোগ চিনের বিরুদ্ধে, নিশ্চিত করেনি সেনা (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
অরুণাচলে পাঁচ যুবককে অপহরণের অভিযোগ চিনের বিরুদ্ধে, নিশ্চিত করেনি সেনা (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

অরুণাচলে পাঁচ যুবককে 'অপহরণ' চিনের, দাবি কংগ্রেস বিধায়কের, নিশ্চিত করেনি সেনা

  • তাঁদের পরিজনরা জানিয়েছেন যে শুক্রবার রাতে নাচো এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। দু'জন পালিয়ে আসতে পেরেছেন।

অরুণাচল প্রদেশের ভারত-চিন সীমান্তে লাল ফৌজের বিরুদ্ধে পাঁচ যুবককে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। যদিও সে বিষয়'টি এখনও নিশ্চিত করেনি ভারতীয় সেনা। সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে অরুণাচল পুলিশ।

শনিবার ভোরে টুইটারে অরুণাচলের পাসিঘাট পশ্চিমের বিধায়ক নিনোং এরিং লেখেন, 'বেদনাদায়ক খবর : আমাদের রাজ্য অরুণাচল প্রদেশের উচ্চ সুবানগিরি জেলার পাঁচজনকে চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএল) অপহরণ করেছে বলে খবর। কয়েক মাস আগেই একইরকম ঘটনা ঘটেছিল। চিনা সেনা ও চিনকে যোগ্য জবাব দিতে হবে।' সঙ্গে এক প্রকাশ রিংলিঙের ফেসবুক পোস্টের স্ক্রিনশট আছে। যেখানে ওই ব্যক্তি দাবি করেছেন, তাঁর ভাই-সহ পাঁজনকে ‘অপহরণ’ করেছে চিনা সেনা। টুইটে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকরকেও ট্যাগ করেন নিনোং।

সংবাদসংস্থা পিটিআইয়ের খবর অনুযায়ী, তাঁদের পরিজনরা জানিয়েছেন যে শুক্রবার রাতে নাচো এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। দু'জন পালিয়ে আসতে পেরেছেন। তাঁরাই পুলিশকে ঘটনাটি জানিয়েছেন।

পুলিশ সুপার তারু গুসার বলেন, ‘সেই তথ্য (অপরহণের অভিযোগ) যাচাইয়ের নাচো থানার অফিসার-ইন-চার্জকে ওই এলাকায় পাঠিয়েছি এবং তাঁকে দ্রুত রিপোর্ট পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছি। তবে রবিবার সকালে সেই রিপোর্ট পাওয়া যাবে।’

তবে ভারতীয় সেনার তরফে জানানো হয়েছে, অপহরণের বিষয়ে নিশ্চিত খরব মেলেনি। বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে সেনা।

বন্ধ করুন