বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভারতে কী আদৌ ফের চালু হবে টিকটক, পাবজি? নিষিদ্ধ চিনা অ্যাপ নিয়ে মুখ খুলল কেন্দ্র
ভারতে পাবজি, টিকটক নিষিদ্ধ হয়েছিল গতবছরই (ফাইল ছবি রয়টার্স)

ভারতে কী আদৌ ফের চালু হবে টিকটক, পাবজি? নিষিদ্ধ চিনা অ্যাপ নিয়ে মুখ খুলল কেন্দ্র

  • সব মিলিয়ে ২২৪টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ হয় ভারতে। তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৬৯এ ধারায় এই অ্যাপগুলি নিষিদ্ধ করা হয়েছিল।

লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্ররেখা বরাবর ভারত-চিন সংঘাতের আবহেই শতাধিক চিনা মোবাইল অ্যাপ নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল সুরক্ষার কার্ণ দেখিয়ে। সেই অ্যাপগুলির উপর থেকে নিষেধা  ইলেকট্রনিক্স ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় বুধবার সংসদের নিম্নকক্ষে নিশ্চিত করে জানিয়ে দিয়েছে যে, ব্লক করা চিনা মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনগুলির উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের কোনও ভাবনাচিন্তা আপাতত নেই সরকারের। 

বহুজন সমাজ পার্টির সাংসদ মালুক নগরের এক প্রশ্নের প্রেক্ষিতে আইটি মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব বলেন, ‘নিষেধাজ্ঞার আদেশ প্রত্যাহার করার জন্য মন্ত্রকের কাছে কোনও প্রস্তাব এই মুহূর্তে নেই।’ উল্লেখ্য, গতবছরের সেপ্টেম্বর ভারত PUBG সহ ১১৮টি চিনা মোবাইল অ্যাপ নিষিদ্ধ করে। এর দুই মাস আগেই, ২৯ জুন, প্রথম ধাপে জনপ্রিয় অ্যাপ ইউসি ব্রাউজার, শেয়ারইট, উইচ্যাট, ভিগো লাইভ সহ ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছিল কেন্দ্র। আক এর একমাস আগেই আরও ৪৭টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। 

ইলেকট্রনিক্স ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় বলেছিল যে অ্যাপগুলি ‘ভারতের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা, প্রতিরক্ষা, নিরাপত্তা এবং জনস্বার্থের পরিপন্থী।’ এই অ্যাপগুলি ব্যবহারকারীদের তথ্য চুরি করার এবং গোপনে তা প্রেরণ করার চেষ্টা করছিল বলে অভিযোগ করে ভারত সরকার। সব মিলিয়ে ২২৪টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ হয় ভারতে। তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৬৯এ ধারায় এই অ্যাপগুলি নিষিদ্ধ করা হয়। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের সাইবার ক্রাইম শাখা থেকেও এই অ্যাপগুলি ব্লক করার সুপারিশ করা হয়েছিল বলে জানিয়েছিল কেন্দ্র।

 

 

 

বন্ধ করুন