বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Voting Machine Unlock: মোবাইলে আসা ওটিপি দিয়ে কি সত্যিই খোলা যায় ইভিএম? বিরাট জবাব দিল কমিশন

Voting Machine Unlock: মোবাইলে আসা ওটিপি দিয়ে কি সত্যিই খোলা যায় ইভিএম? বিরাট জবাব দিল কমিশন

ইভিএম, প্রতীকী ছবি (HT_PRINT)

নির্বাচন কমিশনের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, মানহানি ও মিথ্যা খবর ছড়ানোর অভিযোগে মিড ডে পত্রিকার বিরুদ্ধে নোটিশ জারি করা হয়েছে।

এক প্রার্থীর সঙ্গীর কাছে ইভিএম আনলক করার ফোন ছিল বলে দাবি করা হয়েছিল। এনিয়ে সংবাদও প্রকাশিত হয়েছিল। তবে তা নিয়ে এবার জবাব দিল নির্বাচন কমিশন। 

মুম্বইয়ে জয়ী শিবসেনা প্রার্থীর এক আত্মীয়ের কাছে ইভিএম 'আনলক' করা একটি ফোন ছিল বলে যে খবর প্রকাশিত হয়েছে, তা খারিজ করে দিলেন এক নির্বাচন আধিকারিক। মুম্বই উত্তর পশ্চিম লোকসভা কেন্দ্রের রিটার্নিং অফিসার বন্দনা সূর্যবংশী বলেন, ‘ইভিএম একটি স্বতন্ত্র ব্যবস্থা যা আনলক করতে ওটিপির প্রয়োজন হয় না।’

গত ৪ জুন ভোট গণনার সময় ইভিএমের সঙ্গে সংযুক্ত মোবাইল ফোন ব্যবহার করে মাত্র ৪৮ ভোটের ব্যবধানে শিবসেনা প্রার্থী রবীন্দ্র ওয়াইকরের এক আত্মীয় এই আসন থেকে জয়ী হয়েছেন বলে মিড-ডে সংবাদপত্রে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়ায় নির্বাচন কর্মকর্তা এ কথা জানিয়েছেন।

সূর্যবংশী বলেন, 'ইভিএম আনলক করার জন্য মোবাইলে কোনও ওটিপি (ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড) নেই কারণ এটি নন-প্রোগ্রামেবল এবং এতে কোনও ওয়্যারলেস যোগাযোগের ক্ষমতা নেই। এটি একটি সংবাদপত্রে সম্পূর্ণ মিথ্যা প্রচার করা হচ্ছে, যা কিছু নেতা মিথ্যা আখ্যান তৈরি করতে ব্যবহার করছেন।

তিনি আরও জানান, মানহানি ও ভুয়ো খবর ছড়ানোর জন্য ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৯৯, ৫০৫ ধারায় মিড ডে পত্রিকাকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

পোলিং অফিসার বলেছিলেন যে ইভিএমগুলি তার সিস্টেমের বাইরের ইউনিটগুলির সাথে কোনও তারযুক্ত বা ওয়্যারলেস সংযোগ ছাড়াই স্বতন্ত্র ডিভাইস।

তিনি বলেন, 'কারচুপির সম্ভাবনা উড়িয়ে দিতে উন্নত প্রযুক্তিগত বৈশিষ্ট্য এবং শক্তিশালী প্রশাসনিক সুরক্ষা ব্যবস্থা রয়েছে। রক্ষাকবচের মধ্যে রয়েছে প্রার্থী বা তাদের এজেন্টদের উপস্থিতিতে সবকিছু পরিচালনা করা।

৪ জুন লোকসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার সময় একটি গণনা কেন্দ্রে মোবাইল ফোন ব্যবহারের অভিযোগে ওয়াইকরের শ্যালক মঙ্গেশ পান্ডিলকরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, মোবাইল ফোনটি ফরেনসিকে পাঠানো হয়েছে, যাতে কল রেকর্ড খতিয়ে দেখা হয় এবং তা অন্য কোনও কাজে ব্যবহার করা হত কিনা তা যাচাই করা যায়।

ভোটকর্মী দীনেশ গুরভের অভিযোগের ভিত্তিতে পণ্ডিলকরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গণনা কেন্দ্রে এই ধরনের ডিভাইস নিষিদ্ধ থাকা সত্ত্বেও এক নির্দল প্রার্থী ওই ব্যক্তিকে মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে দেখে রিটার্নিং অফিসারকে সতর্ক করেন। তিনি বলেন, "রিটার্নিং অফিসার বানরাই পুলিশের দ্বারস্থ হন। পান্ডিলকরের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ ধারা (সরকারি নির্দেশ অমান্য করা) ধারায় মামলা দায়ের

করা হয়েছে।

ইভিএম নিয়ে প্রশ্ন বিরোধীদের

মধ্যাহ্নভোজের রিপোর্ট উল্লেখ করে বিরোধী দলের একাধিক নেতা ভারতের নির্বাচনী প্রক্রিয়ার স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী বলেছেন, ভারতে ইভিএম একটি 'ব্ল্যাক বক্স' যা কারও যাচাই-বাছাই করার অনুমতি নেই।

তিনি এক্স-এ লিখেছেন, 'যখন প্রতিষ্ঠানগুলির জবাবদিহি করতে পারে না তখন গণতন্ত্র একটি প্রতারণা এবং জালিয়াতির ঝুঁকিতে পরিণত হয়।

শিবসেনা (ইউবিটি) সাংসদ প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী এই ঘটনাকে সর্বোচ্চ পর্যায়ে 'জালিয়াতি' বলে অভিহিত করেছেন এবং নির্বাচন কমিশনকে এ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

তিনি বলেন, 'এটা সর্বোচ্চ পর্যায়ের প্রতারণা এবং তারপরও @ECISVEEP ঘুমিয়ে আছে। নির্বাচন কমিশন যদি তাতে হস্তক্ষেপ না করে তবে চণ্ডীগড়ের মেয়র নির্বাচনের পরে সবচেয়ে বড় নির্বাচনী ফলাফল কেলেঙ্কারি হবে এবং এই লড়াইটি আদালতে দেখা যাবে। এই নির্লজ্জতার শাস্তি হওয়া উচিত," শিবসেনা (ইউবিটি) সাংসদ প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী এক্স-এ পোস্ট করেছেন।

শিবসেনা ইউবিটি নেতা আদিত্য ঠাকরে বলেন, 'আশ্চর্যজনকভাবে নির্বাচন কমিশন গণনা কেন্দ্রের সিসিটিভি ফুটেজ শেয়ার করতে অস্বীকার করেছে। আমার মনে হয়, এটা চণ্ডীগড়ের আরেকটি মুহূর্ত এড়ানোর চেষ্টা করছে।

এর উত্তরে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডে বলেন, তিনি ভাবছেন যে ইভিএমের পবিত্রতা নিয়ে সন্দেহ তৈরি হচ্ছে শুধুমাত্র বিজয়ী তাঁর দলের বলেই।

কেন শুধু মুম্বই উত্তর পশ্চিম কেন্দ্রের ফলাফল নিয়ে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে, রাজ্যের অন্য কোনও ফলাফল নয়? আমার প্রার্থী ওয়াইকার জিতেছে আর ওরা হেরেছে, বলেই কি এমনটা হচ্ছে?

এদিকে, আলাদাভাবে ইভিএমের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন টেসলা প্রধান ইলন মাস্ক। তিনি বলেন, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন বাদ দিতে হবে। মানুষ বা এআই দ্বারা হ্যাক হওয়ার ঝুঁকি ছোট হলেও এখনও খুব বেশি,' তিনি এক্স-এ পোস্ট করেছেন।

বিজেপি নেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর অবশ্য মাস্কের টুইটের জবাবে যুক্তি দিয়েছিলেন যে ডিজিটাল হার্ডওয়্যার সুরক্ষিত করা সম্ভব। এমনকি তিনি মাস্ককে কীভাবে সুরক্ষিত ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন ডিজাইন এবং তৈরি করবেন সে সম্পর্কে একটি টিউটোরিয়ালও দিয়েছিলেন।

মাস্ক অবশ্য তার উদ্বেগ দ্বিগুণ করে বলেছেন: ‘যে কোনও কিছুই হ্যাক করা যায়’।

ঘরে বাইরে খবর

Latest News

প্রায় ৬ মাস পরে DA মামলা উঠলেও ১টা 'ভালো খবর' আছে, ব্যাখ্যা নেতার, কী লাভ হবে? রিয়ালের সঙ্গে ২০২৫ পর্যন্ত চুক্তি বাড়িয়ে নিলেন ক্রোয়েশিয়ার তারকা লুকা মদ্রিচ ‘ডিভোর্স সোজা নয়…’, বিচ্ছেদ ভাবনা ঘিরে ধরেছে অভিষেককে, ঐশ্বর্যর সংসারে চিড়! টিমম্যান অশ্বিনের চালে বাজিমাত ড্রাগনসের, TNPL-এ দুরন্ত মাইলস্টোন ইন্দ্রজিৎ-এর ওমানের উপকূলে ডুবে যাচ্ছিল জাহাজ,৮ ভারতীয় সহ ৯ নাবিককে উদ্ধারে ভারতের নৌবাহিনী ৬ ঘণ্টা গুলির লড়াই, গড়চিরোলিতে ১২ মাওবাদীকে নিকেশ করল বাহিনী ‘রাত সাড়ে ১২টায় মুকেশ আম্বানির সাথে দেখা…’, কলকাতার ছেলের ছোঁয়ায় সাজল বিয়ের আসর 'সবকা সাথ' নিয়ে সাফাই শুভেন্দুর, সংখ্যালঘু মোর্চা বন্ধের কথা সুকান্ত বললেন …… ন্যূনতম ১০০০০ টাকা! রাজ্য সরকারি কর্মীদের বেতন কতটা বাড়বে? রইল হিসাব, পেনশন কত? 11 ওভার শেষে Seattle Orcas-র স্কোর 82/2

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.