বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > প্রিয়াঙ্কার কুর্তা ধরে টান পুরুষ পুলিশকর্মীর, ক্ষমা চেয়ে তদন্ত শুরু পুলিশের
শনিবার প্রিয়াঙ্কাকে হেনস্থার ছবি (সৌজন্য পিটিআই)
শনিবার প্রিয়াঙ্কাকে হেনস্থার ছবি (সৌজন্য পিটিআই)

প্রিয়াঙ্কার কুর্তা ধরে টান পুরুষ পুলিশকর্মীর, ক্ষমা চেয়ে তদন্ত শুরু পুলিশের

  • স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে তদন্ত শুরুর নির্দেশ দেয় নয়ডা পুলিশ।

এক পুরুষ পুলিশকর্মীকে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরার কুর্তা ধরে টানতে দেখা গিয়েছিল। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় সেই ছবি। পুলিশের ভূমিকা নিয়ে তুমুল সমালোচনা শুরু হয়েছিল। সেই ঘটনার পর ক্ষমা চাইল নয়ডা পুলিশ। একইসঙ্গে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হল।

গত শনিবার হাথরাসে তরুণীর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছিলেন প্রিয়াঙ্কা, রাহুল গান্ধীরা। সীমান্তে পৌঁছাতেই দিল্লি-নয়ডা ডিরেক্ট (ডিএনডি) ফ্লাইওয়েতে পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে জড়ান কংগ্রেস সমর্থকরা। 

তারইমধ্যে একটি ছবি ক্যামেরায় ধরা পড়ে। তাতে কাঁধের কাছে প্রিয়াঙ্কার পোশাক ধরে টানতে দেখা যায় এক পুরুষ পুলিশকর্মীকে। সেজন্য উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের ইস্তফার দাবিতে সরব হয় কংগ্রেস। 

সেই সমালোচনার মধ্যে রবিবার স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে তদন্ত শুরুর নির্দেশ দেয় নয়ডা পুলিশ। একটি টুইটবার্তায় নয়ডা পুলিশের তরফে বলা হয়, 'ডিএনডি ফ্লাইওয়েতে বেয়াদপ জনতাকে সামলানোর সময় যে ঘটনা হয়েছে, তার জন্য গভীরভাবে অনুশোচনা প্রকাশ করছে নয়ডা পুলিশ। সেই ঘটনায় নয়ডার ডিসিপি (সদর দফতর) স্বতঃপ্রণোদিত উদ্যোগ নিয়েছেন এবং একজন সিনিয়র মহিলা পুলিশ আধিকারিককে সেই ঘটনার তদন্ত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। মহিলাদের সুরক্ষা ও মর্যাদা রক্ষার বিষয়ে নয়ডা পুলিশ প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।'

বিষয়টি নিয়ে নয়ডার ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (সদর দফতর) নীতিশ তিওয়ারির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি আর কোনও তথ্য দিতে চাননি। শুধু জানান, সেই তদন্ত করবেন ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (মহিলা সুরক্ষা) বৃন্দা শুক্লা। তবে তিনি ফোন ধরেননি বা মেসেজের উত্তর দেননি।

বন্ধ করুন