বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বাড়ছে করোনা, এখনই সম্ভবত স্বাভাবিক নয় দূরপাল্লার ট্রেনের পরিষেবা
বাড়ছে করোনা, এখনই সম্ভবত স্বাভাবিক নয় দূরপাল্লার ট্রেনের পরিষেবা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
বাড়ছে করোনা, এখনই সম্ভবত স্বাভাবিক নয় দূরপাল্লার ট্রেনের পরিষেবা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

বাড়ছে করোনা, এখনই সম্ভবত স্বাভাবিক নয় দূরপাল্লার ট্রেনের পরিষেবা

  • আপাতত বিশেষ ট্রেন চালানো হবে বলে রেল সূত্রে খবর।

রেলের তরফে সরকারিভাবে ঘোষণা করা হয়নি। তবে আগামী ১ এপ্রিল থেকে দেশজুড়ে দূরপাল্লার ট্রেনের পরিষেবা স্বাভাবিক হতে পারে বলে আশা করেছিলেন অনেকে। কিন্তু কয়েকটি রাজ্যে (মহারাষ্ট্র, কেরালা, মধ্যপ্রদেশের মতো) উর্ধ্বমুখী করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে সেই ন্যূনতম আশাও কার্যত শেষ হয়ে গিয়েছে বলে মত সংশ্লিষ্ট মহলের।

এমনিতে গত বছর ১২ মে থেকে আবারও রেল পরিষেবার শুরুর পর থেকে স্বাভাবিক ছন্দে ট্রেন চলছে না। বিশেষ ট্রেন (স্পেশাল ট্রেন) চালাচ্ছে রেল। আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত সেই বিশেষ ট্রেন পরিষেবার মেয়াদ ঠিক হয়েছিল। ইতিমধ্যে কয়েকটি বিশেষ ট্রেনের মেয়াদ আরও তিন মাস বাড়ানো হয়েছে। রেল সূত্রে খবর, আপাতত কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ রুটে চাহিদা বেশি থাকলেও অধিকাংশ বিশেষ ট্রেনের ক্ষেত্রে তেমন প্রবণতা নেই। বরং প্রাক-করোনা পরিস্থিতির থেকে চাহিদা বেশ কম রয়েছে। অনেকেই ট্রেনের সফর এড়িয়ে চলছেন। সেই অবস্থায় এখনই পুরো মাত্রায় দূরপাল্লার ট্রেনের পরিষেবা স্বাভাবিক করার পথে হাঁটছে না রেল। বরং রেলের আধিকারিকদের বক্তব্য, যে রুটগুলিতে চাহিদা বেশি, সেখানে যাত্রী চাপ সামাল দিতে বাড়তি ট্রেন চালানো হবে। মূল ট্রেনের আগে ‘ক্লোন’ ট্রেন চালানো হতে পারে। 

যদিও যাত্রীদের একাংশের অভিযোগ, বিশেষ ট্রেনের ক্ষেত্রে সাধারণের থেকে বেশি ভাড়া গুনতে হচ্ছে। সেভাবেই ঘুরপথে ক্ষতির বহর কমাচ্ছে রেল। যদিও রেলের তরফে সে বিষয়ে কোনও মন্তব্য করা হয়নি। তবে এখনই যে দেশে স্বাভাবিক ছন্দে দূরপাল্লার ট্রেন ছুটবে না, তা কার্যত স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে।

বন্ধ করুন