বাড়ি > ঘরে বাইরে > অটিজম আক্রান্ত মুম্বইয়ের শিশুর জন্য রাজস্থান থেকে উটের দুধ এনে দিল রেল
(ছবিটি প্রতীকী)
(ছবিটি প্রতীকী)

অটিজম আক্রান্ত মুম্বইয়ের শিশুর জন্য রাজস্থান থেকে উটের দুধ এনে দিল রেল

  • বান্দ্রাবাসী রেণু কুমারী তাঁর সাড়ে তিন বছরের অটিজম আক্রান্ত ছেলের জন্য উটের দুধের ব্যবস্থা করতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে টুইট মারফৎ অনুরোধ করেছিলেন।

অটিজম আক্রান্ত শিশুর জন্য লকডাউনের মধ্যে রাজস্থান থেকে মুম্বইতে ২০ লিটার উটের দুধ সরবরাহ করে মানবিকতার নজির গড়ল ভারতীয় রেল।

শনিবার শীর্ষস্থানীয় আইপিএস অফিসার অরুণ বোথরা টুইট করে এই খবর দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, বান্দ্রাবাসী এক মহিলা তাঁর সাড়ে তিন বছরের অটিজম আক্রান্ত ছেলের জন্য উটের দুধের ব্যবস্থা করতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে টুইট মারফৎ অনুরোধ করেছিলেন।

রেণু কুমারী নামে ওই মহিলা প্রধানমন্ত্রীকে জানান, তাঁর ছেলের খাদ্যে অ্যালার্জি থাকার কারণে শুধুমাত্র উটের দুধ ও কয়েক প্রজাতির ডাল খেয়ে জীবনধারণ করে। লকডাউনের ঘেরাটোপে বাজার-জোকান বন্ধ থাকায় তিনি ছেলের জন্য উটের দুধ সংগ্রহ করতে ব্যর্থ হয়েছেন বলে প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য চেয়ে আর্জি জানান।

বান্দ্রাবাসীর টুইট পড়ে অনেকেই তাঁকে নানান পরামর্শ দেন, যাঁদের মধ্যে ছিলেন আইপিএস অফিসার অরুণ বোথরাও। তবে শুধু পরামর্শ না দিয়ে সঙ্গে সঙ্গে তিনি যোগাযোগ করেন রাজস্থানে উটের দুধ সরবরাহকারী অগ্রণী সংস্থা অ্যাডভিক ফুডস-এর সঙ্গে।

এ দিকে, বোথরার টুইট নজরে পড়ে উত্তর-পশ্চিম রেলের যাত্রী পরিবহণ বিভাগের প্রধান ম্যানেজার তরুণ জৈনের। তিনি বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন আজমেরে ডিসিএম মহেশ চন্দ জেওয়ালিয়ার সঙ্গে। ঠিক হয়, লুধিয়ানা ও বান্দ্রার মধ্যে চলাচলকারী মালগাড়ি রাজস্থানের ফলনা স্টেশনে দাঁড় করিয়ে ২০ লিটার উটের দুধ তুলে দেওয়া হবে। সেই দুধ মালগাড়িতে চেপে পৌঁছে যাবে বান্দ্রায় রেণু কুমারীর বাড়িতে।

তরুণ জৈন জানিয়েছেন, ফলনাতে মালগাড়িটি থামার কথা না থাকলেও বিপন্ন শিশুর স্বার্থেই তাকে সেখানে দাঁড় করানোর সিদ্ধান্ত নেন রেলকর্তারা। শুধু তাই নয়, জেওয়ালিয়ার সাহায্যে দুধ উৎপাদনকারী সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করে গোটা বিষয়টি তত্ত্বাবধান করেন উত্তর-পশ্চিম রেলের মুখ্য বাণিজ্যিক ইন্সপেক্টর অখিল তানেজা।

বন্ধ করুন