বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > শুধু ব্রিটেন নয়, তিরিশের বেশি দেশে এখন স্বীকৃত ভারতের ভ্যাকসিন সার্টিফিকেট
সম্প্রতি ব্রিটেন সরকার টিকাপ্রাপ্ত ভারতীয় যাত্রীদের জন্য বাধ্যতামূলক স্ক্রিনিংয়ের নিয়ম তুলে দিয়েছে। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
সম্প্রতি ব্রিটেন সরকার টিকাপ্রাপ্ত ভারতীয় যাত্রীদের জন্য বাধ্যতামূলক স্ক্রিনিংয়ের নিয়ম তুলে দিয়েছে। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)

শুধু ব্রিটেন নয়, তিরিশের বেশি দেশে এখন স্বীকৃত ভারতের ভ্যাকসিন সার্টিফিকেট

  • ভারতের এই টিকাকরণে সার্টিফিকেট সেই দেশগুলিতে ভ্যালিড। অন্যদিকে সেই দেশ থেকেও টিকাপ্রাপ্ত কেউ ভারতে সেদেশের টিকাকরণের সার্টিফিকেট দেখাতে পারবেন।

ভারতের কোভিড-১৯ টিকার সার্টিফিকেটকে গ্রহণ করল ৩০ টিরও বেশি দেশ। ভারতের সঙ্গে এই পারস্পরিক স্বীকৃতিতে যে দেশগুলি সম্মত হয়েছে তার মধ্যে রয়েছে ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, নেপাল, বেলারুশ, লেবানন, আর্মেনিয়া, ইউক্রেন, বেলজিয়াম, হাঙ্গেরি এবং সার্বিয়া। অর্থাত্ ভারতের এই টিকাকরণে সার্টিফিকেট সেই দেশগুলিতে ভ্যালিড। অন্যদিকে সেই দেশ থেকেও টিকাপ্রাপ্ত কেউ ভারতে সেদেশের টিকাকরণের সার্টিফিকেট দেখাতে পারবেন।

তবে দক্ষিণ আফ্রিকা, ব্রাজিল, বাংলাদেশ, বতসোয়ানা, চিন এবং ইউরোপের আরও কিছু দেশ থেকে পর্যটকদের ভারতে আসার সময়ে বাধ্যতামূলক কোভিড-১৯ প্রোটোকল ছাড়াও অতিরিক্ত নিয়ম মানতে হবে। তার মধ্যে আবশ্যিক কোভিড টেস্ট ও স্ক্রিনিংয়ের নিয়ম রয়েছে।

গত সপ্তাহে বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচী জানান, হাঙ্গেরি এবং সার্বিয়া ভারতের কোভিড ভ্যাকসিনেশন সার্টিফিকেটকে পারস্পরিক স্বীকৃতি দিতে সম্মত হয়েছে। এই জাতীয় দেশের তালিকায় এই দুটিই সর্বশেষ সংযোজন। অরিন্দম বাগচী জানান যে, টিকাকরণের সার্টিফিকেটগুলির স্বীকৃতি মহামারী-পরবর্তী বিশ্বে শিক্ষা, ব্যবসা, পর্যটন এবং অন্যান্য ক্ষেত্রের জন্য মানুষকে বিভিন্ন দেশে যেতে সহায়তা করবে।

সম্প্রতি ব্রিটেন সরকার টিকাপ্রাপ্ত ভারতীয় যাত্রীদের জন্য বাধ্যতামূলক স্ক্রিনিংয়ের নিয়ম তুলে দিয়েছে। সেখানে গিয়ে ভারতের টিকাকরণের সার্টিফিকেট দেখালেই হবে। ভারত তথা গোটা বিশ্বের সমালোচনার চাপে এমন সিদ্ধান্ত নেয় ব্রিটেন।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার ভারতে টিকাকরণ কিছুটা হ্রাস পেয়েছে। এদিন টিকা নিয়েছেন ৩০.২৬ লক্ষেরও বেশি মানুষ। এখনও পর্যন্ত দেশে ৯৭.১৪ কোটি ডোজেরও বেশি করোনা টিকা দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দেশে নতুন করে মোট ১৬,৮৬২ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। প্রাণ হারিয়েছেন ৩৭৯ জন।

বন্ধ করুন