বাড়ি > ঘরে বাইরে > কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে মৃত্যু করোনা আক্রান্ত ওড়িশার শ্রমিকের, অভিযোগ গাফিলতির
ওডিশার কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলিতে করোনা সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৯।
ওডিশার কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলিতে করোনা সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৯।

কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে মৃত্যু করোনা আক্রান্ত ওড়িশার শ্রমিকের, অভিযোগ গাফিলতির

  • স্থানীয়দের দাবি, সেন্টারের পাঁচিল টপকে পালানোর চেষ্টা করার সময় তাঁর মৃত্যু হয়।

সরকারি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে মারা গেলেন ওডিশার এক পরিযায়ী শ্রমিক। তাঁকে নিয়ে গত ৫২ দিনে রাজ্যের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলিতে করোনা সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৯।

সোমবার এই মৃত্যুসংবাদ পাওয়ার সময় ওডিশায় খোঁজ পাওয়া গিয়েছে নতুন ১৫৬ জন করোনা পজিটিভ রোগীর, যা এ পর্যন্ত পাওয়া হিসেবে একদিনে সর্বোচ্চ বৃদ্ধি। রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২,১০৪ জন। 

ওডিশা সরকারের তরফে বিডিও প্রশান্ত তারাই জানিয়েছেন, এ দিন কটক জেলার কৃষ্ণপুর গ্রামপঞ্চায়েতের বদম্বা থানার অধীনস্থ নরসিংহপুরের সরকারি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের পাঁচিলের কাছে উদ্ধার হয়েছে বছর চল্লিশের ব্রজবন্ধু রানার দেহ। কোয়ারেন্টাইন মেয়াদ শেষ হতে তাঁর আর ৭ দিন বাকি ছিল।

গত ২৬ মে মুম্বই থেকে ফেরার পর থেকেই ব্রজবন্ধুর শরীর ভালো যাচ্ছিল না। সেই অবস্থায় তাঁকে সরকারি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে আনা হয়। স্থানীয়দের দাবি, সেন্টারের পাঁচিল টপকে পালানোর চেষ্টা করার সময় তাঁর মৃত্যু হয়। নিহত শ্রমিকের দেহ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। 

এ দিনের ঘটনার জেরে ওডিশা সরকারের তরফে উন্নত মানের প্রচার করা সত্ত্বেও প্রশাসন পরিচালিত ১৬,৬৫১টি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের পরিষেবা নিয়ে প্রশ্ন উঠে গেল।

গত দেড় মাস ধরে সরকার পরিচালিত কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে খাবারের মান, জীবাণুমুক্তিকরণ প্রক্রিয়া এবং কর্মীদের আচরণ সম্পর্কে অবিযোগ জানাচ্ছেন সেখানে আশ্রয় পাওয়া পরিযায়ী শ্রমিকরা। গত মে মাসে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা ভিডিয়োতে জগৎসিংহপুর জেলার সরপঞ্চকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের এক অধিবাসীকে মারধর করতেও দেখা গিয়েছে।  

বন্ধ করুন