বাড়ি > ঘরে বাইরে > একটি পরিবারের ক্ষমতা আঁকড়ে থাকার লোভের কারণে জরুরি অবস্থা ঘোষিত হয়েছিল-অমিত শাহ
 অমিত শাহ
 অমিত শাহ

একটি পরিবারের ক্ষমতা আঁকড়ে থাকার লোভের কারণে জরুরি অবস্থা ঘোষিত হয়েছিল-অমিত শাহ

এমার্জেন্সির বর্ষপূর্তিতে গান্ধী পরিবারকে ঠুকলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। 

এমার্জেন্সির ৪৫ বছর পূর্তিতে গান্ধী পরিবারকে একহাত নিলেন অমিত শাহ। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন যে একটি পরিবারের ক্ষমতায় থাকার লোভের কারণে জরুরি অবস্থা ঘোষিত হয়েছিল দেশে। 

অমিত শাহ বলেন যে এই দিনে রাতারাতি দেশটা জেলে পরিণত হয়। প্রেস, আদালত, বাকস্বাধীনতা, সব কিছু লঙ্ঘন করা হয়েছিল বলে তিনি অভিযোগ করেন। গরীব ও পিছিয়ে পড়া মানুষদের ওপর অত্যাচার করা হয় বলে তিনি অভিযোগ করেন।    

লাখ লাখ লোকের প্রচেষ্টার ফলে অবশেষ এমার্জেন্সি উঠে যায় বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। কিন্তু তাঁর অভিযোগ, ভারতে গণতন্ত্র ফিরলেও কংগ্রেসে ফেরেনি। একটি পরিবারের স্বার্থ দলীয় ও জাতীয় স্বার্থের ঊর্ধ্বে বলে গণ্য করা হয়েছে বলে তাঁর মতামত। সেই কারণেই আজ কংগ্রেসের এই হাল, কটাক্ষ করেন তিনি।                                                                    

হালে কংগ্রেস নেতৃত্বের সমালোচনা করায় সঞ্জয় ঝাকে দলীয় মুখপাত্রের পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছে হাইকম্যান্ড। এরও সমালোচনা করেন অমিত শাহ। তিনি বলেন যে কংগ্রেসে নেতাদের দমবন্ধ হয়ে আসছে। নেতারা অধৈর্য হয়ে পড়ছেন। এভাবে জনগণের থেকে কংগ্রেস আরও দূরে চলে যাবে বলে তিনি মনে করেন। হালে কংগ্রেস ওয়ার্কং কমিটির বৈঠকে কিছু সদস্য তাদের সমস্যার কথা তোলায় তাদের চুপ করিয়ে দেওয়া হয়, বলে অভিযোগ করেন অমিত শাহ। 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অভিযোগ করেন যে কংগ্রেসে এখনও এমার্জেন্স চলছে যেখানে একটি পরিবার ছাড়া অন্যদের কথা শোনা হচ্ছে না। 

১৯৭৫ সালের আজকের দিনে এমার্জেন্সি ঘোষণা করেছিলেন তত্কালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী। ২১ মাসের মেয়াদকালে ভারতীয় গণতন্ত্রের সবচেয়ে কালো অধ্যায় বলে গণ্য করা হয়। 

বন্ধ করুন