বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'ধন্যবাদ', রোমানিয়া-স্লোভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রীদের ফোন মোদীর, বার্তা ইউক্রেন নিয়েও
রোমানিয়া-স্লোভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রীদের ফোন মোদীর (ছবি এএনআই) (HT_PRINT)

'ধন্যবাদ', রোমানিয়া-স্লোভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রীদের ফোন মোদীর, বার্তা ইউক্রেন নিয়েও

  • দুই রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে বার্তালাপের সময়ই মোদী চলমান সংঘর্ষে নিজের উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

যুদ্ধ বিধ্বস্ত ইউক্রেনে আটকে পড়েছেন বহু ভারতীয় পড়ুয়া। ধাপে ধাপে তাঁদেরকে দেশে ফেরানো হচ্ছে। তবে ইউক্রেনে বিমান চলাচল বন্ধ থাকায় সড়কপথে সীমান্ত পার করে পড়শি দেশে যেতে হচ্ছে ভারতীয়দের। সেখান থেকে ভারতীয়দের উদ্ধার করে দেশে ফেরানো হচ্ছে। এই গোটা অভিযানে ভারতকে অনেক সাহায্য করেছে ইউক্রেনের প্রতিবেশী রোমানিয়া ও স্লোভাকিয়া। তবে এখনও সিংহভাগ ভারতীয়কে দেশে ফেরানো বাকি। এই পরিস্থিতিতে স্লোভাকিয়া ও রোমানিয়ার রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে ফোনে কথা বললেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

প্রধানমন্ত্রী মোদী সোমবার ইউক্রেন থেকে ভারতীয় নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা করতে এবং এই অভিযানে সহায়তার জন্য তাদের ধন্যবাদ জানাতে স্লোভাকিয়ান এবং রোমানিয়ান প্রধানমন্ত্রীদের সাথে কথা বলেন বলে জানানো হয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকেই।

স্লোভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রী এডুয়ার্ড হেগারের সঙ্গে ফোনালাপের সময় মোদী ভারতীয় নাগরিকদের উদ্ধারে সহায়তার জন্য এবং ভারত থেকে বিশেষ উদ্ধারকারী ফ্লাইটের অনুমতি দেওয়ার জন্য তাঁকে ধন্যবাদ জানান। আগামীতেও স্লোভাকিয়ার সাহায্যের প্রার্থনা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পাশাপাশি মোদী স্লোভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রীকে আরও জানান, উদ্ধারকাজ তদারকি করার জন্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরেন রিজিজুকে বিশেষ দূত হিসেবে সেদেশে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে রোমানিয়ার প্রধানমন্ত্রী নিকোলা-ইওনেল সিউকাকেও ধন্যবাদ জানান মোদী। উল্লেখ্য, রোমানিয়া ভারতীয় পড়ুয়াদের বিনা ভিসাতেই তাদের দেশে ঢোকার অনুমতি দেয়। সেই কথা উল্লেখ করে মোদী বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ জানান রোমানিয়ার প্রধানমন্ত্রী নিকোলকে। এদিকে সোমবার পর্যন্ত যে ছ’টি উড়ান ভারতে এসে পৌঁছেছে, তার মধ্যে চারটি রোমানিয়ার রাজধানী বুখারেস্ট থেকে ছেড়ে এসেছে। এদিকে রোমানিয়েতে ভারতীয়দের উদ্ধারকাজ তদারকির জন্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়াকে পাঠানো হয়েছে সেদেশে। এই বিষয়টি সম্পর্কে রোমানিয়ার প্রধানমন্ত্রীকে অবগত করেন মোদী। এদিকে দুই রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে বার্তালাপের সময়ই মোদী চলমান সংঘর্ষে নিজের উদ্বেগ প্রকাশ করেন বলে জানা গিয়েছে। পাশাপাশি তিনি একটি স্বাধীন দেশের অখণ্ডতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার উপরও জোর দেন।

বন্ধ করুন