বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > শহিদ স্মরণে মমতার বক্তব্য শোনাতে আমন্ত্রণ মোদী–বিরোধীদের, নয়া সমীকরণের জল্পনা
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য সমীর জানা/হিন্দুস্তান টাইমস)
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য সমীর জানা/হিন্দুস্তান টাইমস)

শহিদ স্মরণে মমতার বক্তব্য শোনাতে আমন্ত্রণ মোদী–বিরোধীদের, নয়া সমীকরণের জল্পনা

  • নয়াদিল্লির কনস্টিটিউশনাল ক্লাবে জায়ান্ট স্ক্রিন লাগিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তৃতা শোনানোর আয়োজন করেছেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদরা।

রাত পোহালেই তৃণমূল কংগ্রেসের শহিদ স্মরণ। ইতিমধ্যেই দলকে ৫০ লক্ষ জমায়েতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে সেটা ভার্চুয়ালি। এবার বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর ভার্চুয়াল বক্তৃতা শোনার জন্য নয়াদিল্লিতে মোদী–বিরোধী নেতাদেরকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব। এই শহিদ স্মরণে তৃণমূল সুপ্রিমোর বক্তৃতা কলকাতা ছাড়া দেশের অন্যান্য রাজ্যেও শোনানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। নয়াদিল্লির কনস্টিটিউশনাল ক্লাবে জায়ান্ট স্ক্রিন লাগিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তৃতা শোনানোর আয়োজন করেছেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদরা। সেখানেই মোদী–বিরোধী নেতাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

এখন প্রশ্ন উঠছে, তাহলে কী মোদী–বিরোধী নেতাদের জন্য কোনও বার্তা দেওয়া হবে? কেন তাহলে এমন আমন্ত্রণ?‌‌ সংসদের বাদল অধিবেশনের কারণে সব রাজ্যের সব দলের সাংসদরা এখন রয়েছেন নয়াদিল্লিতেই। তাই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির সাংসদকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিকে এক মঞ্চে নিয়ে আসার কাজ শুরু করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। সংসদের ভেতরে–বাইরে সেই প্রক্রিয়া চলছে। যার বাড়তি সংযোজন এই শহিদ স্মরণসভায় সবাইকে আমন্ত্রণ। আর যাতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তৃতা সবাই বুঝতে পারেন তার জন্য মাল্টি সাব টাইটেলের মাধ্যমে সম্প্রচারের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

এই নয়া সংযোজনের কারণ হিসাবে তৃণমূল কংগ্রেসের এক সাংসদ বলেন, ‘‌কেন্দ্রীয় সরকার বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির কণ্ঠরোধ করতে চাইছে। তাই পাল্টা ব্যবস্থা করা হয়েছে। বাংলায় যোগ্য জবাব দেওয়া হয়েছে নির্বাচনের মাধ্যমে। এবার জাতীয় রাজনীতিতেও জবাব দিতেই ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তাই বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।’‌ সূত্রের খবর, এই বক্তৃতা শোনানোর পর তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদদের সঙ্গে একপ্রস্থ আলোচনা হবে বিরোধী সাংসদদের।

সূত্রের খবর, তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে কংগ্রেস, এনসিপি, আপ, শিবসেনা, শিরোমণি অকালি দল, সমাজবাদী পার্টি, বহুজন সমাজ পার্টি, এআইএডিএমকে, আরজেডি–সহ বিভিন্ন বিরোধী দলকে। উল্লেখ্য, কলকাতা–নয়াদিল্লি ছাড়াও উত্তরপ্রদেশ, গুজরাত, অসম, ত্রিপুরাতেও জায়ান্ট ক্রিন লাগিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভার্চুয়াল বক্তৃতা সম্প্রচার করা হবে।

বন্ধ করুন