বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Padma Bridge: শুটিংয়ের নয়া দিগন্ত, মন কেমন করলে যাবেন বাড়ি - পদ্মা সেতুতে আশা সংস্কৃতি মহলের

Padma Bridge: শুটিংয়ের নয়া দিগন্ত, মন কেমন করলে যাবেন বাড়ি - পদ্মা সেতুতে আশা সংস্কৃতি মহলের

শুটিংয়ের নয়া দিগন্ত, মন কেমন করলে যাবেন বাড়ি - পদ্মা সেতুতে আশা সংস্কৃতি মহলের। (ছবি সৌজন্যে টুইটার)

‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮’ জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী পিরোজপুরে মেয়ে৷ তাঁর কাছে আগে বাড়িতে যাওয়া ছিল বেশ ঝক্কির৷ পদ্মা সেতু নিয়ে তিনি বলেন, ‘ফেরির ভয়ে বছরের পর বছর বাড়ি যাওয়া হয়নি৷ এমনও হয়েছে যে, বিমানে উড়ে যশোর গিয়েছি, সেখান থেকে বাড়ি গিয়েছি৷ এখন আমার জন্য বাড়ি যাওয়া খুব সহজ হয়ে যাবে৷’

পদ্মা সেতুর স্বপ্ন সত্যি হয়েছে৷ আজ (২৫ জুন) এর উদ্বোধন হবে৷ বাংলাদেশের নাটক, চলচ্চিত্র, সংগীত ও খেলাধুলার অঙ্গনের অনেকেই বড় আশা নিয়ে সেতুর উদ্বোধনের অপেক্ষায়৷

বাংলাদেশের নাটক কিংবা চলচ্চিত্রের শুটিং স্পট এক অর্থে পুরোপুরি ঢাকাকেন্দ্রিক৷ সবই হয়ে থাকে ঢাকার আশেপাশে কিংবা ঢাকার ভিতরে উত্তরার বিভিন্ন বাড়িতে৷ ঢাকার আশেপাশে বলতে ঘুরেফিরে মানিকগঞ্জ কিংবা পূবাইল৷ ঢাকার বাইরের স্পটের ক্ষেত্রে সাধারণত বেছে নেওয়া হয় কক্সবাজার৷ পদ্মা সেতু হওয়ায় শুটিং লোকেশনে বড়সড় পরিবর্তন আসতে পারে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা৷

অভিনেতা-নির্মাতা মীর সাব্বিরের বিশ্বাস, ‘পদ্মা সেতুর সুবাদে বাংলাদেশের নাটক-চলচ্চিত্র আর এত বেশি ঢাকাকেন্দ্রিক থাকবে না৷ দুটি শিল্পেরই পরিসর আরেও বড় হবে৷ তাতে আমরা যেমন উপকৃত হব, তেমনই যাঁরা আমাদের কাজ দেখেন, সেই দর্শকদের মধ্যেও এটি চমৎকারভাবে ছড়িয়ে যাবে৷’

নাটক-চলচ্চিত্রে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন মনোরম জায়গা তুলে ধরা হলে পর্যটনেও এর ইতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে মনে করেন মীর সাব্বির৷ তাঁর কথায়, ‘কৈশোরে বড় পর্দায় কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত দেখে মনে হত, যদি সেখানে যেতে পারতাম! আমি মনে করি, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য যদি আমরা নাটক ও চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তুলে ধরতে পারি, তাহলে সাধারণ মানুষ সেসব জায়গায় যেতে উদ্বুদ্ধ হবে৷ আমার রাত জাগা ফুল ছবির সম্পূর্ণ শুটিং বরিশালে করেছি৷ ছবিটিতে এসব সুন্দর লোকেশন দেখে অনেকে বিস্মিত হয়েছেন৷ দক্ষিণবঙ্গে এমন আরেও অনেক দারুণ জায়গা আছে৷ সেসব স্পটে শুটিং করতে পদ্মা সেতু অনুপ্রেরণা জোগাতে পারে৷’

ছোটো পর্দার অভিনেত্রী নাদিয়া আহমেদ স্বীকার করলেন, ‘সত্যি কথা বলতে, লঞ্চে যাতায়াত করতে হবে বলে দক্ষিণাঞ্চলে গিয়ে কাজ করা হত না৷ পদ্মা সেতুর ফলে এখন প্রচুর শুটিং হবে ওইদিকে৷’

চলচ্চিত্র অভিনেত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশীর দৃষ্টিতে, ‘পদ্মা সেতুর মাধ্যমে শুটিংয়ের জন্য নতুন লোকেশন পাওয়া যাবে৷ একইসঙ্গে এটি আমাদের চলচ্চিত্র শিল্পকে অনুপ্রেরণাও জোগাবে৷’’

ছোটো পর্দার এই প্রজন্মের অভিনেতা তৌসিফ মাহবুব ডয়েচে ভেলেকে বলেন, ‘শুটিংয়ের জন্য আমাদের অনেক লোকেশনে যাওয়ার প্রয়োজন হয়৷ কিন্তু দক্ষিণাঞ্চলে পুরো ইউনিট নিয়ে যাওয়া অনেক খরচের ব্যাপার৷ এ কারণে কেউ সেই চিন্তাই করত না৷ ২৫ জুন থেকে ৩০ জুন আমার একটি নাটকের শুটিং হওয়ার কথা ভোলায়৷ কিন্তু পরিচালক বারবার ভাবছিলেন, ৬০-৭০ জন মানুষ নিয়ে ভোলা পর্যন্ত যাওয়া অনেক ব্যয়বহুল৷ তবে পদ্মা সেতু হওয়ায় ইউনিটের মাইক্রোবাস ব্যবহার করে ভোলা চলে যেতে পারব৷ এভাবে আমাদের জন্য বিভিন্ন লোকেশনে যাওয়া এখন থেকে সহজ হবে৷’

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত চিত্রগ্রাহক নিয়াজ মাহবুব ডয়েচে ভেলেকে জানালেন, পদ্মার ওপারে কিছু জায়গাকে শুটিং স্পটে রূপ দেওয়ার পরিকল্পনা করেছেন অনেকে৷ তাঁর মতে, ‘এখন অনেক সুন্দরভাবে শুটিং করা যাবে৷ পূবাইল আর মানিকগঞ্জ ছাড়া কিন্তু আমাদের সেভাবে শুটিং স্পট নেই৷ শরিয়তপুর ও বরিশালে আমার অনেক বন্ধুবান্ধব আছে, তাঁরা ইতিমধ্যে শুটিং স্পট বানানোর চিন্তা-ভাবনা করেছেন৷’

সংগীতশিল্পী প্রতীক হাসানের আশা, পদ্মা সেতুর সুবাদে কনসার্টের সংখ্যা বাড়বে৷ তাঁর মতে, ‘যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো এখন৷ দক্ষিণবঙ্গে অনেকে গানের অনুষ্ঠান আয়োজন করছে৷ ২৫ জুন থেকে পদ্মার ওপারে আমার কয়েকটি কনসার্ট শুরু হবে৷ মাদারিপুরের শিবচর থেকে শুরু করব৷ তারপর খুলনায় শো আছে৷ বলা যায়, পদ্মা সেতু সংগীতশিল্পীদের জন্য একটি নতুন ডানা৷’

পদ্মা সেতুকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশে সংগীতাঙ্গনের পালে নতুন হাওয়া লেগেছে৷ বেশ কয়েকটি নতুন গান তৈরি হয়েছে৷ সাংস্কৃতিক অঙ্গনের শিল্পীদের জন্য এ যেন অন্যরকম এক উৎসব৷

শোবিজ ও ক্রিকেট তারকাদের চোখে পদ্মা সেতু সারাদেশের সঙ্গে দক্ষিণবঙ্গের সংযোগ ঘটিয়ে অনেক সময় বাঁচিয়ে দেবে৷ ফলে বিভিন্ন ক্ষেত্রে খরচও কমবে৷

নিয়াজ মাহবুব নিজের পরিচালিত নাটকের শুটিং বরাবরই দক্ষিণাঞ্চলে করে থাকেন৷ এর মধ্যে অন্যতম বরিশাল ও শরিয়তপুর৷ বর্তমানে বিটিভিতে প্রচার হতে থাকা ১০ পর্বের ধারাবাহিক নাটক ‘দশ দিগন্ত'র শুটিং শরীয়তপুরে করেছেন তিনি৷ তখন বিভিন্ন ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছিল তাকে৷ তিনি বলেন, ‘এতদিন কখনও লঞ্চ, কখনো ফেরি, আবার কখনও গাড়ি বা মোটরবাইকে করে যাতায়াত করতে হয়েছে৷ পদ্মা সেতু হওয়ায় এখন ঢাকা থেকে একটি গাড়ি নিয়ে সরাসরি লোকেশনে পৌঁছে যেতে পারবো৷ দক্ষিণবঙ্গে খুব ভালো কিছু লোকেশন আছে৷ এগুলো ভালোভাবে ব্যবহার করা যাবে৷ পদ্মা সেতুর ফলে দক্ষিণাঞ্চলে শুটিংয়ের জন্য অনেক সুবিধা হয়েছে৷’

‘রাত জাগা ফুল’ ছবির শুটিংয়ের সময়কার ভোগান্তি ডয়েচে ভেলের কাছে তুলে ধরলেন মীর সাব্বির, ‘অনেক মানুষ নিয়ে বরিশালে যাওয়া অনেক কষ্টের ছিল৷ দলবল নিয়ে আরিচা দিয়ে যাওয়া-আসায় ১৪-১৫ ঘণ্টা লেগেছে শুধু বাসে৷ তারপর ধরুন খরচ৷ এছাড়া লঞ্চে ইউনিটের একাংশ গিয়েছে৷ এসব বিষয় এখন একমুখী আর ছোটো পরিসরে হয়ে যাবে৷ খুব কম খরচে আমরা বরিশাল যেতে পারবো৷ আগের তুলনায় যাতায়াত ব্যবস্থার খরচ ধরলে সেটি ৫০ শতাংশ কমে আসবে৷’

নিয়াজ মাহবুব ডয়েচে ভেলেকে উল্লেখ করলেন, ‘আগে ফেরিতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থাকতে হতো৷ এখন চাইলে শিল্পী-কুশলীরা দিনে গিয়ে শুটিং করে দিনেই ফিরে আসতে পারবেন৷’

পিরোজপুরের মেয়ে নাদিয়া আহমেদ ডয়েচে ভেলেকে বলেন, ‘এখন আমরা এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় অনেক দ্রুত যেতে পারব৷ দক্ষিণাঞ্চলের মানুষদের আর ফেরি পার হওয়ার দরকার নেই৷যদিও লঞ্চযাত্রা বেশ আনন্দময়৷ কিন্তু এখন খুব কম সময়ে পিরোজপুর ও খুলনাবাসী যাতায়াত করতে পারবে, যা আগে চিন্তাই করা যে না৷’

তৌসিফ মাহবুবের গ্রামের বাড়ি ভোলায়৷ তিনি কখনও কল্পনা করেননি ভোলায় গাড়িতে চড়ে যেতে পারবেন! পদ্মা সেতু হওয়ার আগে বরিশাল পর্যন্ত গিয়ে সেখান থেকে ফেরিতে করে ভোলা যেতে হত তাঁকে৷ এখন আর সেই বাড়তি ঝক্কি নেই৷ বরিশাল পর্যন্ত যেতে আগে ২৫০ থেকে ২৮০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিতে হত৷ এখন সরাসরি গেলে ১০০ থেকে বড়জোর ১৪০ কিলোমিটার রাস্তা পেরোলেই চলবে৷

তৌসিফের ভাবনায়, ‘তিন-চার ঘণ্টার মধ্যে ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়িতে চলে যেতে পারব৷ এখন শুধু বরিশাল থেকে ভোলা পর্যন্ত ফেরি পার হওয়া লাগবে৷ এতে খরচ অনেক কমবে৷ অনেক সময়ও বাঁচবে৷ মোট কথা, আগে ভোলায় যেতে ভাবতে হতো- অর্ধেক দিন লাগবে৷ এখন আর সেই দুশ্চিন্তা নেই৷ এখন খুব সকালে রওনা দিলে হয়তো গ্রামে গিয়ে খাওয়া সম্ভব৷’

ক্রিকেটার কামরুল ইসলাম রাব্বি যখন প্র্যাকটিসের জন্য ঢাকার বিভিন্ন অ্যাকাডেমিতে যাওয়া-আসা করতেন, তখনকার দিনগুলো যেন তাঁর কাছে বিভীষিকা! তিনি ডয়েচে ভেলেকে বলেন, ‘বরিশালে তখন বিমানবন্দর ছিল না৷ আমাদের সঙ্গে থাকা বড় বড় ব্যাগ নিয়ে লঞ্চে ওঠা খুব কষ্টের ছিল৷ ফেরির দুশ্চিন্তায় গত কয়েকটা কোরবানি ইদে বাড়িতে যাওয়া হয়নি৷ কীভাবে যাব? একটাই চিন্তা ছিল– লঞ্চঘাটের প্রচণ্ড ভোগান্তি৷ গাড়ি দিয়ে গেলেও ফেরির জন্য বিশাল লাইন থাকত৷ আমাদের নাইনটিন অ্যাকাডেমি ইদের দুই-তিন দিন আগে ছুটি হতো৷ এরপর ফের শুরু হতো ঈদের দুই-তিন দিন পর৷ ওই সময়টা আমাদের জন্য খুবই কঠিন ছিল৷ বড় বড় ট্রলি নিয়ে লঞ্চে ওঠানামা ছিল সীমাহীন দুর্ভোগের৷ কারণ, তখন লঞ্চের দরজার সামনেও যাত্রীরা বসে থাকত৷ এসব ঝক্কি থেকে এখন রেহাই পাব৷ কিছু সড়ক হয়ে গেলে সকালে খেয়েদেয়ে রওনা দিলে দুপুরে গিয়ে বরিশাল পৌঁছে যাব৷ এখন ইদের দিন যদি গ্রামে যেতে চাই তাহলে নমাজ পড়ে রওনা দিলেও দুপুরে বরিশাল গিয়ে ভাত খাওয়া যাবে৷ আগে কিন্তু এটা কল্পনাও করা যেত না৷’

সংগীতশিল্পী প্রতীক হাসানের আশা, ‘এখন আমার নিজের গ্রামের বাড়ি যেতে সর্বোচ্চ সাড়ে তিন ঘণ্টা লাগবে৷ অথচ আগে লাগত ৯ ঘণ্টা৷ আমি এখন ইচ্ছে হলেই গ্রামে চলে যেতে পারব৷ আগে ইচ্ছে থাকলেও শরীর চাইত না৷ শরীর চাইলেও সময় হত না৷ বিশেষ করে ফেরির ঝক্কি মেনে নেওয়া কষ্টকর ছিল৷’

মীর সাব্বির স্মৃতি হাতড়ে ডয়েচে ভেলেকে জানালেন, বরগুনার গ্রামের বাড়ি থেকে লঞ্চে চড়ে প্রথমবার ঢাকায় আসতে তাঁর দেড় দিন লেগেছিল৷ তিনি এখন ভাবছেন, ‘পদ্মা সেতু হয়ে যাওয়ায় ঢাকা থেকে বরগুনা চলে যেতে পারবো পাঁচ-ছয় ঘণ্টার মধ্যে৷ এটি আমার কাছে খুব অবিশ্বাস্য লাগে৷ পদ্মা সেতু আমাদের বরিশাল, বরগুনা, পিরোজপুর, ঝালকাঠির জন্য একটি বিস্ময়৷’

জাতীয় দলের প্রাক্তন বাঁহাতি ওপেনার শাহরিয়ার নাফিস মনে করেন, ‘অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড’ ও ‘অফিসিয়াল কার্যক্রম’ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে পদ্মা সেতু ব্যাপক ভূমিকা রাখবে৷ তাঁর বিশ্বাস, ‘লঞ্চ বা নৌ-পথে যাত্রার আবেদন কমবে না৷ কিন্তু দিনে দিনে দরকারি কাজ সম্পন্ন করতে বরিশাল, পিরোজপুর, খুলনাসহ দক্ষিণবঙ্গের যে কোনও জেলায় যাতায়াত সহজ হবে৷ দক্ষিণবঙ্গ কৃষিপ্রধান৷ আগে মাছ ও ফসল ঢাকায় আসতে যতক্ষণ লাগতো, সেই সময় অর্ধেক করে দেবে পদ্মা সেতু৷ দক্ষিণবঙ্গের অর্থনৈতিক অবস্থা অনেক শক্তিশালী ও চাঙ্গা হবে৷’

পদ্মা সেতু হওয়ার আগে দক্ষিণবঙ্গে যাতায়াত ছিল অনেক সময়সাপেক্ষ ও কষ্টের৷ ফেরির বিড়ম্বনার কারণে ওই অঞ্চলে এখনও কোনও কনসার্ট করেননি সংগীত শিল্পী খালিদ হাসান মিলুর ছেলে প্রতীক৷ তাঁর মন্তব্য, ‘সবচেয়ে বড় কষ্ট ছিল ঘণ্টার পর ঘণ্টা ফেরিঘাটে বসে থাকা৷ আমার দাদি যেদিন মারা গিয়েছিলেন সেদিন তাঁকে শেষবার দেখতে ৯ ঘণ্টা পর যেতে হয়েছিল৷ এটি আমার কাছে সবচেয়ে বড় কষ্টের ঘটনা৷’

পটুয়াখালির ছেলে কামরুল ইসলাম রাব্বি টেনে আনলেন ডানহাতি স্পিনার সোহাগ গাজির বাবার মৃত্যুর প্রসঙ্গ, ‘আঙ্কেলের হার্টের সমস্যা দেখা দেওয়ায় বরিশালে আনা হয়৷ কিন্তু সোহাগ গাজি ঢাকা নিয়ে আসতে চেয়েছিল৷ কিন্তু পারেনি৷ কারণ, সে জানত ঢাকায় আনার জন্য পুরো একটা দিন লাগবে৷ আর লঞ্চে তো চিকিৎসার ব্যবস্থা নেই৷ দক্ষিণাঞ্চলের প্রচুর মানুষ কিন্তু ফেরিতেই মারা গিয়েছে৷ আমারও এক আত্মীয়ের মৃত্যু হয়েছে ফেরিতে৷ দেখা গেল– অসুস্থ রোগী নিয়ে রওনা দিয়ে ফেরিতে ওঠার জন্য অপেক্ষা, এরপর আবার ফেরিতে উঠে পার হওয়ার অপেক্ষা- সবকিছু মিলিয়ে যত সময় ব্যয় হতো তাতে কিন্তু অনেকে লঞ্চেই প্রাণ হারিয়েছেন৷ ওই অঞ্চলের বেশিরভাগ মানুষকেই এমন দুর্বিষহ অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে৷’

মীর সাব্বিরের আত্মীয়-স্বজনদের মধ্যেও এমন ঘটনা আছে, ‘আমার আত্মীয়-স্বজনরা বরিশাল ও বরগুনায় থাকে৷ তাঁদের ঢাকায় আসতে হলে লঞ্চ, নয়তো আরিচা বা মাওয়া দিয়ে আসতে হত৷ আগে আমাদের ফেরিতে লাগত দুই ঘণ্টার ওপরে৷ আমাদের আত্মীয়-স্বজন যাঁরা অসুস্থ হতেন, তাঁদের অনেক সমস্যা হতো৷ ফেরিতে বিলম্বের কারণে আপনজনের মারা যাওয়ার ঘটনাও আমাদের মধ্যে আছে৷’

‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮’ জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী পিরোজপুরে মেয়ে৷ তাঁর কাছে আগে বাড়িতে যাওয়া ছিল বেশ ঝক্কির৷ লঞ্চ, যাতায়াত আনন্দের হলেও পরে বাস পাল্টাতে হতো৷ সাম্প্রতিক সময়ে এমনও হয়েছে যে, ফেরির জন্য ১২-১৩ ঘণ্টা অপেক্ষায় ছিলেন৷

‘ফেরির ভয়ে বছরের পর বছর বাড়ি যাওয়া হয়নি৷ এমনও হয়েছে যে, বিমানে উড়ে যশোর গিয়েছি, সেখান থেকে বাড়ি গিয়েছি৷ এখন আমার জন্য বাড়ি যাওয়া খুব সহজ হয়ে যাবে৷ এজন্য দারুণ ভালো লাগছে৷ আমি একদিন ছুটি পেলেও এখন গ্রামের বাড়িতে বাবা-মায়ের কাছে চলে যাব’- ঐশীর অভিব্যক্তি এমনই৷

ডানহাতি পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি বললেন, ‘পদ্মা সেতু শুধু আমাদের প্রজন্মের নয়, আমাদের বাবা-দাদারও স্বপ্ন ছিল৷ দক্ষিণাঞ্চলে বড় বড় বেশ কয়েকটি নদী আছে৷ মোটামুটি সব নদীতেই সেতু হয়েছে৷ বাকি ছিল পদ্মা সেতু৷ সেটিও হয়ে গেল৷ এটি আমাদের জন্য বিশাল একটি পাওয়া৷’

জাতীয় দলের প্রাক্তন ক্রিকেটার, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)-র ক্রিকেট অপারেশনস ম্যানেজার শাহরিয়ার নাফিস ডয়েচে ভেলেকে বলেন, ‘যে কোনও রাষ্ট্রের মূল চালিকাশক্তি হচ্ছে অর্থনীতি৷ আর অর্থনৈতিক ব্যবস্থার অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে যোগাযোগ ব্যবস্থা৷ পুরোপুরি মানুষের হৃদয়ের মতো৷ মানুষের হৃৎপিণ্ড ঠিক থাকলে যেমন সব ঠিক থাকে, তেমনি একটি দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা ঠিক থাকলে অর্থনৈতিক ব্যবস্থাও দ্রুত বর্ধিত হয়৷ পদ্মা সেতুর ফলে দক্ষিণবঙ্গের সঙ্গে সারাদেশে যোগাযোগের জন্য ফেরি বা নৌ-পথের কারণে যে সময় লাগত, সেটি কমে আসবে৷’

শাহরিয়ার নাফিস যোগ করেন, ‘বাংলাদেশ এখন অনেক দেশের জন্য রোল মডেল৷ পদ্মা সেতু বাংলাদেশকে বিশ্বের মানচিত্রে শক্তিশালী একটা অবস্থানে নিয়ে গেছে৷ ৩০ হাজার কোটি টাকার একটি প্রকল্প বাংলাদেশ সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে করেছে৷ এটি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক শক্তির একটা বড় প্রাপ্তির জায়গা৷ পদ্মা সেতু তৈরির মাধ্যমে বাংলাদেশ বুঝিয়ে দিয়েছে, আমাদের যদি সদিচ্ছা থাকে তাহলে যে কোনও কিছু করা সম্ভব৷’

(বিশেষ দ্রষ্টব্য : প্রতিবেদনটি ডয়চে ভেলে থেকে নেওয়া হয়েছে। সেই প্রতিবেদনই তুলে ধরা হয়েছে। হিন্দুস্তান টাইমস বাংলার কোনও প্রতিনিধি এই প্রতিবেদন লেখেননি।)

ঘরে বাইরে খবর
বন্ধ করুন

Latest News

বিতকর্কে থোড়াই কেয়ার, ঘরোয়া ক্রিকেট ছেড়ে IPL-র জন্য প্রস্তুতি শুরু ইশানের 'যে সব জায়গায় জনবিন্যাস বদলে গিয়েছে সেখানে নিয়মিত ধর্ষণ করা হয় হিন্দু মেয়েদের' বিপাকে রবীন্দ্রন, বাইজুস থেকে বাইজুকে ছেঁটে ফেলতে NCLT-তে আবেদন ৪ বিনিয়োগকারীর প্রথা ভাঙল উচ্চমাধ্যমিকের দর্শনে, কোন প্রশ্নটা কঠিন? বাকিটা কেমন? জানালেন শিক্ষক 'আমি লজ্জিত', শ্রীদেবীর মেয়ে হয়েও তেলুগু ভাষা জানেন না! অনুশোচনা জাহ্নবীর ব্রহ্মোস, মিগের ইঞ্জিন কেনা হবে, ৩৫০০০ কোটির ৪টি চুক্তিকে সবুজ সংকেত কেন্দ্রের গাজওয়া-ই-হিন্দ ফতোয়া! দারুল উলুম দেওবন্দের বিরুদ্ধে এইআইআর করার নির্দেশ সূর্যাস্তের সময় সাতপাক থেকে হলদি: রকুলপ্রীত-জ্যাকির বিয়ের কোন ৭ মুহূর্ত নজর কাড়ল? মেসিদের জন্য দরজা বন্ধ করল চিন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে খেলবে আর্জেন্তিনা সন্দেশখালিতে জনরোষের মুখে শাহজাহান ঘনিষ্ঠ TMC নেতা, ভাঙচুর হল বাড়ি

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.