'ধূসর তালিকা' থেকে বেরোনোর জন্য পাকিস্তানের মাত্র ১২টি ভোট প্রয়োজন (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)
'ধূসর তালিকা' থেকে বেরোনোর জন্য পাকিস্তানের মাত্র ১২টি ভোট প্রয়োজন (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)

FATF-এর 'ধূসর তালিকা' থেকে বেরোতে পারে পাকিস্তান, চিন্তা বাড়বে ভারতের

  • শেষপর্যন্ত যদি তাই হয়, তাহলে আন্তর্জাতিক মঞ্চে ভারত বড়সড় ধাক্কা খাবে বলে মত কূটনৈতিক মহলের।

আন্তর্জাতিক মঞ্চে ফের 'বন্ধু' পাকিস্তানের পাশে দাঁড়িয়েছে চিন। কয়েকটি পশ্চিমী দেশেরও কূটনৈতিক সমর্থন পেয়েছে ইসলামাবাদ। তার ফলে ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্সের (এফএটিএফ) 'ধূসর তালিকা' থেকে বাইরে যেতে পারে পাকিস্তান। শেষপর্যন্ত যদি তাই হয়, তাহলে আন্তর্জাতিক মঞ্চে ভারত বড়সড় ধাক্কা খাবে বলে মত কূটনৈতিক মহলের।

বেজিংয়ে আন্তর্জাতিক সংগঠনটির বৈঠকে একটি রিপোর্ট জমা দেয় পাকিস্তান। ইসলামাবাদকে যথারীতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে বর্তমানে এফটিএফের সভাপতিত্ব দায়িত্বে থাকা চিন। বিষয়টি নিয়ে এক ভারতীয় আধিকারিক বলেন, 'আগামী মাসে প্যারিসে এফএটিএফের প্লেনারি বৈঠক হবে। 'ধূসর তালিকা' থেকে 'সাদা তালিকাভুক্ত' হওয়ার জন্য ৩৯টির মধ্যে পাকিস্তানের মাত্র ১২টি ভোট প্রয়োজন। 'ধূসর তালিকা' থেকে বেরোনোর ক্ষেত্রে ইসলামাবাদ পর্যাপ্ত সমর্থন পাওয়ার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে।'

এফটিএফের আগের কয়েকটি বৈঠকে চিন, মালয়েশিয়া ও তুরস্কের সমর্থন পেয়েছিল। পশ্চিমী শক্তিধর দেশগুলি অবশ্য ইসলামাবাদের পাশে দাঁড়ায়নি। কিন্তু এবার পরিস্থিতি বদলে গিয়েছে। ওই ভারতীয় আধিকারিক জানান, যদি কয়েকটি পশ্চিমী দেশকে ইসলামাবাদ আশ্বস্ত করতে পারে, তাহলে 'ধূসর তালিকা'-র বাইরে বেরিয়ে যাবে পাকিস্তান। ফলে আন্তর্জাতিক মঞ্চে বড়সড় ধাক্কা খাবে নয়াদিল্লি।

ওই আধিকারিক জানান, 'ধূসর তালিকা'-র ফাঁস থেকে মুক্ত হলে আইএমএফ, বিশ্ব ব্যাঙ্ক, এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাঙ্ক ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন থেকে অর্থ সাহায্য পাবে পাকিস্তান। ফলে বর্তমানে আর্থিক ভারে হাঁসফাঁস করা পাকিস্তানের অবস্থা ভালো হবে। পাশাপাশি, আন্তর্জাতিক মঞ্চে যেভাবে পাকিস্তানের উপর চাপ তৈরি হয়েছিল, তা অনেকটাই কমবে বলে মত কূটনৈতিক মহলের। যা ভারতের পক্ষে যথেষ্ট দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়াবে।

বন্ধ করুন