বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মুম্বই হানায় যুক্ত দশ জঙ্গির জন্য বিশেষ প্রার্থনাসভা করছে হাফিজ সইদের সংগঠন

মুম্বই হানায় যুক্ত দশ জঙ্গির জন্য বিশেষ প্রার্থনাসভা করছে হাফিজ সইদের সংগঠন

হাফিজ সইদ

পাকিস্তানের পঞ্জাবের সাহিওয়ালে এই বিশেষ প্রার্থনা সভাগুলি হবে

১২ বছর আগে মুম্বইয়ে এই দিনে আক্রমণ করেছিল হাফিজ সইদের লস্কর-ই-তইবা। সেই আঘাতের ক্ষত এখনও তরতাজা। এবার যে সব জঙ্গিরা সেই আক্রমণ করেছিল তাদের জন্য বিশেষ উপাসনার ব্যবস্থা করেছে লস্করের শাখা সংগঠন জামাত-উদ-দাওয়া। 

পাকিস্তানের পঞ্জাবের সাহিওয়ালে এই বিশেষ প্রার্থনা সভাগুলি হবে। সমস্ত লস্কর নিয়ন্ত্রিত মসজিদে সংগঠিত হবে মৃত জঙ্গিদের জন্য প্রার্থনা বলে গোয়েন্দা সূত্রে জানা গিয়েছে। দশজন জঙ্গি ২০০৮ সালে মুম্বইয়ে সমুদ্রপথে এসেছিল। তার মধ্যে নয়জনের সেই অপারেশন চলাকালীন মৃত্যু হয়। জীবন্ত পাকড়াও হয় আজমল কাসভ যাকে ২০১২ সালে ফাঁসি দেওয়া হয়। 

এছাড়াও কাশ্মীরে বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলনকে হাওয়া দেওয়ার জন্য জম্মু কাশ্মীর ইউনাইটেড ইউথ মুভমেন্ট খুলছে জামাত উদ দাওয়া। হালেই লস্করের মূল কম্যান্ডার জাকিউর রেহমান লাখভির সঙ্গে বৈঠক হয় হাফিজ সইদের। সেখানে কিভাবে জিহাদের জন্য টাকা তোলা যাবে সেই নিয়ে কথা হয়েছে। 

অন্যদিকে জামাতের নেতাদের সঙ্গে গুজরানওয়ালাতে ৭০জন ব্যবসায়ীর বৈঠক হয়েছে ১৩ নভেম্বর। সেখানেও কাশ্মীরে ঝামেলা পাকানোর জন্য টাকা চাওয়া হয়েছে। পাকিস্তানের পঞ্জাবেও একই রকম বৈঠক হওয়ার কথা। 

বর্তমানে খাতায় কলমে সইদ সহ অন্যান্যরা জেলে থাকলেও বাস্তবে তারা পাক সরকারের ছত্রছায়াতেই আছে। নিজেদের বাড়ি থেকেই সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ করে চলেছে। এফএটিএফ যাতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে আর কোনও ব্যবস্থা না নেয়, সেই জন্যই এই সব লোকদেখানি পদক্ষেপ। বাস্তবে সইদ ঘনিষ্ঠ মহলে জানিয়েও দিয়েছে যে যেমন চলছে কাশ্মীরে কাজ চালিয়ে যাও, মামলা মোকদ্দমাগুলি সাময়িক ইস্যু। 

ভারত মুম্বই হানা নিয়ে প্রমাণের পর প্রমাণ দিলেও সেগুলি যথেষ্ট নয় বলেই মামলায় কোনও ভাবে অগ্রসর হয়নি পাকিস্তান। বর্তমানে মুম্বই হানার মূল ষড়যন্ত্রীরা কোথায় আছে এক নজরে- হাফিজ সইদ(লাহোর), লাখভি(ইসলামাবাদ), ইউসুফ মুজাম্মিল(ইসলামাবাদ), হেডলি( আমেরিকার জেলে), তাহাউর রানা (আমেরিকার জেলে), সাজিদ মাজিদ (লাহোর), আবদুর রেহমান সইদ (লাহোর), মেজর ইকবাল(লাহোর), মেজর সমীর আলি(লাহোর), ইলিয়াস কাশ্মীরি (মৃত), আবু কাহাফা  ও মাঝার ইকবাল ( পাকিস্তানে এই হানার অভিযোগে চার্জশিট পেয়েছ)। 

 

বন্ধ করুন