বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভারতের রাফাল দেখেই চিন থেকে তড়িঘড়ি জে-১০সি যুদ্ধবিমান ঘরে আনল পাকিস্তান
 যুদ্ধবিমান। (ছবিটি প্রতীকী) (PTI)

ভারতের রাফাল দেখেই চিন থেকে তড়িঘড়ি জে-১০সি যুদ্ধবিমান ঘরে আনল পাকিস্তান

  • ভারতের যুদ্ধবিমান রাফালকে টক্কর দিতে চিনে নির্মিত জে ১০-সি যুদ্ধবিমানে আস্থা রাখছে ইমরান সরকার।

লক্ষ্য ভারতের রাফাল যুদ্ধবিমানের সঙ্গে সমানে সমানে টক্কর দেওয়া। আর লক্ষ্যে এবার চিনের থেকে ২৫ টি মাল্টিরোল জে-১০ সি যুদ্ধবিমান কিনে ফেলল পাকিস্তান। ২৫টি যুদ্ধবিমানের সম্পূর্ণ স্কোয়াড্রন ঘরে আসার ঘোষণা পাকিস্তানের ইমরান মন্ত্রিসভার মন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, যুদ্ধবিমানের এই গোটা স্কোয়াড্রনের সম্ভার আগামী ২৩ মার্চ পাকিস্তান ডে উদযাপনের দিন প্রকাশ্যে আনা হবে বলে শেখ রশিদ আহমেদ জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ভারতীয় প্রতিরক্ষায় এই মুহূর্তে পোস্টার বয় রাফাল যুদ্ধবিমান। ফরাসী এই যুদ্ধবিমান ভারতের অস্ত্রশক্তি সম্ভারে একটি বড়সড় অধ্যায় তুলে ধরেছে। তখনই পাকিস্তানের 'বিশেষ বন্ধু' চিন পাশে দাঁড়িয়েছে ইসলামাবাদের। ভারতের যুদ্ধবিমান রাফালকে টক্কর দিতে চিনে নির্মিত জে ১০-সি যুদ্ধবিমানে আস্থা রাখছে ইমরান সরকার। চিন থেকে এই যুদ্ধবিমানগুলি ইতিমধ্যেই উড়ে গিয়েছে পাকিস্তানের উদ্দেশে।

এদিকে, এই বিমান সম্পর্কে বক্তব্য রাখতে গিয়ে পাকিস্তানের মন্ত্রী শেখ আহমেদ রশিদ নতুন এক ট্রোলের শিকার হয়েছেন। উল্লেখ্য, মাঝে মাঝেই নিজেকে 'গ্র্যাজুয়েট অফ উর্দু মিডিয়াম ইনস্টিটিউশন' বলে ব্যাখ্যা করা শেখ আহমেদ রশিদ চিন থেকে আসা জে -১০ সি বিমানের নাম উচ্চারণের সময় মুখ ফসকে ভুল উচ্চারণ করে ফেলেন! 'জে ১০-সি' যুদ্ধবিমানকে তিনি 'জে এস ১০' বলে উচ্চারণ করেন। ফলে শেখ আহমেদ রশিদকে ঘিরে পাকিস্তানের সোশ্যাল মিডিয়ায় চর্চার অন্ত থাকেনি!

উল্লেখ্য, পাকিস্তান ও চিনের যৌথ সেনা মহড়ার সময় জে ১০-সি যুদ্ধ বিমান ছিল তার অংশ। গত বছরে দুই দেশের এই যৌথ মহড়া দক্ষিণ এশিয়ার রাজনীতিতে বেশ খানিকটা কূটনৈতিক গুরুত্বের জায়গা তৈরি করেছে। উল্লেখ্য, সেই মহড়ার সময়ই পাকিস্তানের অস্ত্র বিশেষজ্ঞরা চিনের এই যুদ্ধবিমানকে কাছ থেকে নিরীক্ষণ করার সুযোগ পান। গত বছরের ৭ ডিসেম্বর থেকে শুরু হওয়া এই মহড়া ২০ দিন ধরে চলেছিল। সেই মহড়ায় চিনের ঝুলিতে ছিল জে ১০-সি, জে ১১-বি,কেজি-৫০০ যুদ্ধবিমান। সেখানে পাকিস্তান ময়দানে নামে জে এফ ১৭ ও মিরাজ থ্রি নিয়ে। উল্লেখ্য, পাকিস্তানের সামরিক শক্তিকে একটা গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় বহু আগেই যোগ হয়েছে মার্কিনি এফ -১৬ যুদ্ধবিমানের হাত ধরে। পাকিস্তানের কাছে থাকা এই যুদ্ধবিমান ভারতের রাফালের মূল প্রতিযোগী বলে অনেকেই মনে করেন। তবে , ভারত রাফালকে ঘরে নিয়ে আসতেই ঘুম উড়ে যায় পাকিস্তানের। আর সেই কারণেই তারা জে ১০ সি কিনেছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

বন্ধ করুন