বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'তথ্য আধিপত্য' বিস্তার করতে মিডিয়া হাউজ গঠনের পরিকল্পনা চিন-পাকিস্তানের
মিডিয়া হাউজ গঠনের পরিকল্পনা চিন-পাকিস্তানের (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স) (REUTERS)
মিডিয়া হাউজ গঠনের পরিকল্পনা চিন-পাকিস্তানের (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স) (REUTERS)

'তথ্য আধিপত্য' বিস্তার করতে মিডিয়া হাউজ গঠনের পরিকল্পনা চিন-পাকিস্তানের

  • পাকিস্তান ও চিন মিলে একটি নিউজ চ্যানেল খোলার পরিকল্পনা করছে যা পশ্চিমা দেশগুলিকে টক্কর দিতে পারবে।

পাকিস্তান ও চিন মিলে একটি নিউজ চ্যানেল খোলার পরিকল্পনা করছে যা পশ্চিমা দেশগুলিকে হারিয়ে 'তথ্য আধিপত্য' বিস্তার করতে সাহায্য করবে তাদের। পশ্চিমের চিন বিরোধী তথ্য এবং খবরের বিকল্প হিসেবে এই টিভই চ্যানেল গঠন করতে চাইছে পাকিস্তান এবং চিন।

কাতারের আল-জাজিরা বা রাশিয়ার আরটি নেটওয়ার্কের ধাঁচে একটি সংগঠন গড়ে তুলে পশ্চিমা নিউজ চ্যানেলগুলিকে টক্কর দেওয়ার ছক কষছে পাকিস্তান ও চিন। এই চ্যানেলের পুরো ফান্ডিং বেজিং করছে বলে সূত্রের খবর। বেজিংয়ের মত, তাদের দেশে সেই অর্থে মিডিয়ার স্বাধীনতা না থাকলেও তাদের কাছে 'ক্যাশ পাওয়ার' রয়েছে। যার সাহায্যে অন্য দেশে 'ফ্রি মিডিয়া' গঠন করা যেতে পারে। তাই এই চ্যানেলটি চিনা টাকায় গঠিত হতে পারে পাকিস্তানে।

উল্লেখ্য, গত দুই বছর ধরে মালয়শিয়া এবং তুরস্কের সঙ্গে মিলে একটি ইংরেজি নিউজ চ্যানেল খোলার ব্যর্থ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পাকিস্তান। ইসলামোফোবিয়া সরিয়ে গোটা বিশঅবে ইসলাম ধর্মের ইতিবাচক চেহারা তুলে ধরার লক্ষ্যে এই চ্যানেলটি গঠন করার পরিকল্পনা করেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ২০১৯ সালে প্রথমবার এই চ্যানেল নিয়ে বৈঠক হয়েছিল নিউইয়র্কে। তবে তারপর খুব একটা কথা এগোয়নি।

এই আবহে চিন পাকিস্তানের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে। এই প্রোজেক্টের মাধ্যমে চিন যেমন পাকিস্তানের সঙ্গে নিজেদের বন্ধুত্ব আরও দৃঢ় করতে পারবে। পাশাপাশি পাকিস্তানের মাধ্যমে বিশ্বে নিজেদের ভাবমূর্তি ভালো করতে পারবে চিন। অনেকই বলছেন চিনের অভ্যন্তরীণ গণতান্ত্রিক কাঠামো বর্তমানে এমন পর্যায়ে রয়েছে সেখানে মিডিয়া হাউজগুলির হাতে অর্থ থাকলেও বাক স্বাধীনতা নেই। পাকিস্তানে পরিস্থিতি তুলনামূলকভাবে অনুকূল হলেও তাদের হাতে অর্থ নেই। তাই পাকিস্তানকে সাহায্য করতে আগ্রহী চিন।

বন্ধ করুন