বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মাসুদ আজহারকে ১৮ জানুয়ারির মধ্যে গ্রেফতারের আদেশ পাকিস্তানের আদালতের
১৮ জানুয়ারির মধ্যে মাসুদ আজহারকে আদালতে হাজির করতে পুলিশকে নির্দেশ বিচারকের।
১৮ জানুয়ারির মধ্যে মাসুদ আজহারকে আদালতে হাজির করতে পুলিশকে নির্দেশ বিচারকের।

মাসুদ আজহারকে ১৮ জানুয়ারির মধ্যে গ্রেফতারের আদেশ পাকিস্তানের আদালতের

  • রাষ্ট্রপুঞ্জের আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী তালিকার অন্তর্ভুক্ত মাসুদ আজহারকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশকে ১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত সময় দিল পাক আদালত।

সন্ত্রাসবাদী সংগঠন জইশ-ই-মহম্নদ প্রধান তথা রাষ্ট্রপুঞ্জের আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী তালিকার অন্তর্ভুক্ত মাসুদ আজহারকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশকে ১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত সময় দিল পাক আদালত। 

গত বৃহস্পতিবার পাক আশ্রিত মাসুদ আজহারের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে অর্থ সাহায্যের অভিযোগে গ্রেফতারি পরওয়ানা জারি করে গুজরানওয়ালার সন্ত্রাস দমন আদালত। বিচারক নাতাশা নাসিম সুপ্রা শুক্রবারের মধ্যে তাঁকে আদালতে হাজির করার নির্দেশ দেন। 

আদালতের এই নির্দেশই আজহারের পাকিস্তানে বসবাসের অকাট্য প্রমাণ, যদিও এর আগে বহু বার পাকিস্তান সরকারের তরফে জইশ প্রধানের হদিশ পাওয়া যাচ্ছে না বলে প্রচার করা হয়। 

শুক্রবার মামলার শুনানিতে বিচারক পুলিশকে নির্দেশ দেন, আগামী ১৮ জানুয়ারির মধ্যে মাসুদ আজহারকে আদালতে হাজির করতে হবে। অন্যথায় তাঁকে ফেরার ঘোষণাকরা হবে বলেও জানান বিচারক সুপ্রা। 

অন্য দিকে, ভারতীয় কূটনীতিকদের দাবি, চলতি মাসের শেষে এবং ফেব্রুয়ারির গোড়ায় সন্ত্রাসে অর্থ সাহায্য এবং আর্থিক তছরূপের অভিযোগে ইসলামাবাদের ভূমিকা খতিয়ে দেখার প্রেক্ষিতে ফাইন্যানশিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স-এর (FATF) সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকের আগে চিড়ে ভেজানোর চেষ্টাতেই জঙ্গি নেতার বিরুদ্ধে পদক্ষেপে বাধ্য হয়েছে পাক আদালত।

গত দুই বছর ধরে সন্ত্রাসে অর্থ সাহায্যের ক্ষেত্রে বিশেষ করে জইশ-এর উল্লেখ করে চলেছে FATF। ২০১৯ সালে পুলওয়ামা সন্ত্রাস হামলায় ৪০ জন সিআরপিএফ জওয়ানের মৃত্যুতে জইশ-ই-মহম্মদ এবং মাসুদ আজহারের সক্রিয় ভূমিকা সম্পর্কে গোড়া থেকেই সরব হয়েছে দিল্লিও।

বন্ধ করুন