বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘সরি ইমরান’, ৩ মাস বেতন না পেয়ে ‘বিদ্রোহ’ সার্বিয়ায় নিযুক্ত পাক দূতাবাস কর্মীদের
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (REUTERS/File Photo) (Reuters)
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (REUTERS/File Photo) (Reuters)

‘সরি ইমরান’, ৩ মাস বেতন না পেয়ে ‘বিদ্রোহ’ সার্বিয়ায় নিযুক্ত পাক দূতাবাস কর্মীদের

  • এক ভিডিয়ো পোস্ট করে ইসলামাবাদকে বার্তাও পাঠিয়েছেন সার্বিয়ায় নিযুক্ত পাকিস্তানি দূতাবাসের কর্মচারীরা।

তিন মাস ধরে বেতন পাননি সার্বিয়ায় নিযুক্ত পাকিস্তানি দূতাবাসের কর্মচারীরা। এই আবহে পাক সরকারের কর্মীরা ‘বিদ্রোহ’ ঘোষণা করলেন ইমরান খানের বিরুদ্ধে। এক ভিডিয়ো পোস্ট করে ইসলামাবাদকে বার্তাও পাঠিয়েছেন সরকারি কর্মীরা। পাকিস্তান দূতাবাস সার্বিয়ার অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল শুক্রবার একটি বার্তা পোস্ট করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে প্রশ্ন করে, গত তিন মাস ধরে বেতন মেলেনি; আর কতদিন সরকারী কর্মকর্তারা চুপ থাকবে বলে মনে করছে সরকার? 

তিন মাস ধরে বেতন পাননি সার্বিয়ায় নিযুক্ত পাকিস্তানি দূতাবাসের কর্মচারীরা।
তিন মাস ধরে বেতন পাননি সার্বিয়ায় নিযুক্ত পাকিস্তানি দূতাবাসের কর্মচারীরা।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের কাছে সরকারি কর্মীদের এই ‘বিদ্রোহ’ বিব্রতকর। ইমরান খানের ‘নতুন পাকিস্তান’ স্লোগান নিয়ে প্রশ্ন তুলে সরকারি কর্মীদের প্রশ্ন, ‘যখন তিন মাস ধরে আমরা বেতন পাইনি, তখন আর কতদিন চুপ থাকব বলে সরকার মনে করেছিল?’ পাকিস্তান দূতাবাসের শেয়ার করা ভিডিোয়োটি দেখায যায় যে কীভাবে সেই দেশের মানুষ তীব্র দারিদ্রের মধ্যে কাজ করছে, বাস করছে।

ইমরান খানের শাসনামলে সরকারী কর্মচারীদের করুণ অবস্থার চিত্রও তুলে ধরেছে ভিডিয়োটি। তারা বলেছে যে তারা গত তিন মাস ধরে বিনা বেতনে কাজ করছে এবং তাদের সন্তানদের স্কুলের ফি দিতে না পারার কারণে তাদের স্কুল ছাড়তে বাধ্য করা হচ্ছে। ভিডিয়ো বার্তার গানের কথা, ‘যদি সাবানের দাম বাড়ে, তাহলে স্নান করো না, যদি গমের দাম বেড়ে যায় তো খেয়ো না।’ উল্লেখ্য, গত সপ্তাহেই জানা যায় যে পাকিস্তানের মুদ্রাস্ফীতি ৯.২ শতাংশ থেকে বেড়ে ১১.৫ শতাংশ হয়েছে।

 

 

 

বন্ধ করুন