বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পাক সেনায় অসন্তোষ তৈরির চেষ্টা করছেন ‘‌শিয়াল’‌ নওয়াজ শরিফ, কটাক্ষ ইমরান খানের
নওয়াজ শরিফ ও ইমরান খান। পাকিস্তানের প্রাক্তন ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী। ফাইল ছবি
নওয়াজ শরিফ ও ইমরান খান। পাকিস্তানের প্রাক্তন ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী। ফাইল ছবি

পাক সেনায় অসন্তোষ তৈরির চেষ্টা করছেন ‘‌শিয়াল’‌ নওয়াজ শরিফ, কটাক্ষ ইমরান খানের

  • ইমরানের দাবি, সেনার বিরুদ্ধে রাজনীতিতে যোগের অভিযোগ তুলে সরব হয়েছেন নওয়াজ। অভিযোগ, আইএসআই নেতৃত্বের পাশাপাশি সামরিক বাহিনীতেও পরিবর্তনের আহ্বান জানিয়েছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী।

প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে ‘শিয়াল’ বলে কটাক্ষ করলেন পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পরপর তিনবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়া নওয়াজ শরিফের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীতে বিদ্রোহ তৈরির চেষ্টার অভিযোগ তুলেছেন তিনি। ইমরানের দাবি, সেনার বিরুদ্ধে রাজনীতিতে যোগের অভিযোগ তুলে সরব হয়েছেন নওয়াজ। অভিযোগ, আইএসআই নেতৃত্বের পাশাপাশি সামরিক বাহিনীতেও পরিবর্তনের আহ্বান জানিয়েছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী।

ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে ২০১৭ সালে শীর্ষ আদালতের নির্দেশে ক্ষমতাচ্যুত হন পাকিস্তান মুসলিম লিগ–নওয়াজ দলের সুপ্রিমো ৭০ বছর বয়সী নওয়াজ শরিফ। চলতি বছরের অক্টোবর মাসে তিনি সরাসরি সেনা প্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া এবং আইএসআই প্রধান লেফট্যানেন্ট জেনারেল ফৈয়জ হামিদের নাম নিয়ে অভিযোগ করেছেন যে ইমরান খানের জয় নিশ্চিত করতে ২০১৮ সালের সাধারণ নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করেছেন তাঁরা।

ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান তেহরিক–এ–ইনসান (‌পিটিআই)‌ সরকারকে সরাতে বিরোধী দলগুলি একত্রিত হয়ে পাকিস্তান ডেমোক্র‌্যাটিক মুভমেন্ট (‌পিডিএম) বলে একটি সংগঠন তৈরি করেছে। ‌১৬ অক্টোবর ওই সংগঠনেরই একটি ভার্চুয়াল সভায় এই বিতর্কিত মন্তব্যগুলি করেন নওয়াজ শরিফ।

এ ব্যাপারে খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের মিঙ্গোরায় এক জনসভায় নওয়াজ শরিফকে আক্রমণ করে ইমরান খান বলেন, ‘‌লন্ডনে শেয়ালের মতো বসে সেনাবাহিনীকে আক্রমণ করতে চাইছেন নওয়াজ। তিনি সেনার বিরুদ্ধে জাতীয় রাজনীতিকে প্রভাবিত করার অভিযোগ তুলে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর মধ্যে অসন্তোষ তৈরির চেষ্টা করছেন। সেনা এবং আইএসআই প্রধানদের পরিবর্তন করার ছক কষছেন তিনি।’‌

যদিও দেশের রাজনীতিতে যুক্ত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন পাক সেনাবাহিনী। নির্বাচনে জিততে তাঁকে সেনা সহায়তা করেছে বলে যে অভিযোগ তোলা হয়েছে তা উড়িয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও। ‘‌ডন’‌ সংবাদপত্রের একটি প্রতিবেদনে নওয়াজ শরিফকে ‘‌অর্থের পুজারি’‌ বলে কটাক্ষ করে ইমরান খান বলেছেন, ‘‌অসুস্থতার অজুহাতে দেশ থেকে পালিয়ে গিয়েছেন নওয়াজ শরিফ। দেশকে লুঠ করে নিজের সম্পদ গড়ে তুলেছেন তিনি।’‌

জামিনে মুক্ত পিএমএল–এন প্রধান নওয়াজ শরিফের বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। ইসলামাবাদ হাইকোর্ট তাঁকে গত বছরের নভেম্বরে চিকিৎসার খাতিরে ৮ সপ্তাহের জন্য লন্ডনে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছিল। কিন্তু তিনি ফিরে আসেননি। তাঁর আইনজীবীরা আদালতে জানিয়েছিলেন যে তিনি এখনও চিকিৎসাধীন।

সেনাবাহিনী রাজনীতিতে হস্তক্ষেপ করছে বলে অভিযোগ করায় নওয়াজ শরিফের কন্যা মরিয়ম নওয়াজকেও তুলোধনা করেছেন ইমরান খান। তাঁর কথায়, ‘‌তিনি নারী হওয়ার সুযোগ নিচ্ছেন কারণ পাকিস্তানে নারীদের সম্মান দেওয়া হয়। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর ওপর আক্রমণ করার কোনও সাহস নওয়াজ শরিফ বা তাঁর সন্তানদের নেই। এ কারণেই তাঁরা বিদেশে পালিয়েছেন।’‌

বন্ধ করুন