বাড়ি > ঘরে বাইরে > পাক অধিকৃত কাশ্মীরে পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা খোলায় নিগৃহীত সাংবাদিক
নিজেই দাদিয়াল থেকে পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা খুলে ফেলার চেষ্টা করেন সাংবাদিক তনভির আহমেদ। ছবি: এএনআই।
নিজেই দাদিয়াল থেকে পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা খুলে ফেলার চেষ্টা করেন সাংবাদিক তনভির আহমেদ। ছবি: এএনআই।

পাক অধিকৃত কাশ্মীরে পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা খোলায় নিগৃহীত সাংবাদিক

  • পাক অধিকৃত কাশ্মীরের দাদিয়ালে কিছু দিন আগে জাতীয় পতাকা সরিয়ে নেওয়ার দাবিতে অনশন ধর্মঘটে বসেন তনভির।

পাক অধিকৃত কাশ্মীরের জনপ্রিয় পর্যটনস্থল থেকে পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা নামিয়ে নেওয়ার জন্য পাকিস্তানি সাংবাদিক তনভির আহমেদকে গ্রেফতারের পরে চূড়ান্ত শারীরিক নিগ্রহ করল পুলিশ। 

সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, পাক অধিকৃত কাশ্মীরের দাদিয়ালে কিছু দিন আগে জাতীয় পতাকা সরিয়ে নেওয়ার দাবিতে অনশন ধর্মঘটে বসেন তনভির। 

তবে তাঁর দাবি পূর্ণ করেনি স্থানীয় প্রশাসন। এই কারণে তিনি নিজেই দাদিয়াল থেকে পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা খুলে ফেলার চেষ্টা করেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা এক ভিডিয়োতে তিনি একটি পতাকা সরিয়েছেন বলে দাবিও করেন। 

সেই সঙ্গে জানান, তাঁকে গোয়েন্দারা অনুসরণ করছেন। এর পর পাঁচিলে উঠে দাদিয়াল স্কোয়্যারে আর একটি পাকিস্তানি পতাকাও তিনি খুলে ফেলেন। 

এএনআই সূত্র জানিয়েছে, এর পরেই তাঁকে শনিবার গ্রেফতার করে পাক পুলিশ। তাঁকে গোয়েন্দারা শাসান বলে জানা গিয়েছে। পাশাপাশি শোনা গিয়েছে, গ্রেফতারের পরে সাংবাদিককে অকথ্য শারীরিক অত্যাচার করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ঝিলম ও নীলম নদীর উপরে চিন বাঁধ তৈরি করলে তার প্রতিবাদে সোচ্চার হন পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বাসিন্দারা। অভিযোগ, ওই বাঁধ নির্মাণের জেরে এলাকায় তীব্র পানীয় জলের অভাব দেখা দিয়েছে। 

পাক অধিকৃত কাশ্মীরে এই জলকষ্ট দেখা দেওয়ায় স্থানীয়দের সমস্যাকে আমল দিচ্ছে না ইমরান খান সরকার, এমনই অভিযোগ। এর ফলে সমগ্র অঞ্চলে প্রবল প্রতিবাদ শুরু হয়েছে।

বন্ধ করুন