বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দাঁত দিয়ে ফিতে কেটে 'বীরত্ব' পাক মন্ত্রীর, নেট দুনিয়ায় হাসির রোল
দাঁত দিয়ে ফিতে কাটছেন পাকিস্তানের মন্ত্রী, টুইটার  (টুইটার )
দাঁত দিয়ে ফিতে কাটছেন পাকিস্তানের মন্ত্রী, টুইটার  (টুইটার )

দাঁত দিয়ে ফিতে কেটে 'বীরত্ব' পাক মন্ত্রীর, নেট দুনিয়ায় হাসির রোল

  • দুবার কাঁচিটা দিয়ে ফিতে কাটার চেষ্টাও করেন মন্ত্রী।

ইলেকট্রনিক্সের দোকান উদ্বোধন করতে গিয়েছিলেন পাকিস্তানের কারা দফতরের মন্ত্রী ফাইয়াজ-উল-হাসান। নিজের নির্বাচনী এলাকা রাওয়ালপিন্ডিতেই তিনি এই দোকানের উদ্বোধনের জন্য গিয়েছিলেন। তাঁর সঙ্গে অন্যান্য সঙ্গীরাও ছিলেন। যথারীতি নতুন দোকানে ঢোকার মুখেই লাল রঙের ফিতে বাঁধা ছিল। ফিতে কাটার জন্য প্লেটে কাঁচি নিয়ে অপেক্ষাও করছিলেন একজন। ফিতে কাটবেন মন্ত্রী। কাঁচি এগিয়ে দেন পাশে দাঁড়িয়ে থাকা যুবক। দুবার কাঁচিটা দিয়ে ফিতে কাটার চেষ্টাও করেন মন্ত্রী।

 কিন্তু ওই কাঁচি দিয়ে ফিতেটি কাটা যায়নি। অগত্যা দাঁত দিয়েই ফিতে চেপে ধরেন তিনি। এরপর তিনি দুবার চেষ্টা করে দাঁত দিয়েই ফিতেটি কেটে ফেলেন। আর এরপর একেবারে হাসিমুখে প্রবেশ করলেন তিনি। চারপাশেও তখন প্রশস্তিসূচক হাসির রোল। আর সেই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্য়াল মিডিয়ায়। কাঁচি দিয়ে যে ফিতে কাটা গেল না সেই ফিতে পাক মন্ত্রী কেটে ফেললেন দাঁত দিয়ে? অনেকের মতে, বড্ড অশোভন দেখাচ্ছে মন্ত্রীর এই আচরণ। তবে মন্ত্রীর দাবি, কাঁচি ভোঁতা ও খারাপ। এমনকী তিনি বিশ্বরেকর্ড করেছেন বলেও দাবি করেছেন পাক মন্ত্রী।

তবে মন্ত্রী যে দাবিই করুন না কেন এই ভিডিওকে ট্রোল করতে ছাড়ছেন না নেট নাগরিকরা। একজন টুইটার ইউজার লিখেছেন, ওনার জিভ আর দাঁতের মধ্যে বিশেষ তফাৎ নেই। অপরজন লিখেছেন, প্রয়োজনীয়তাই আবিষ্কারের মূল। অপর এক ইউজার লিখেছেন, 'এটা লাল দাঁত মাজনের জাদু।' আসলে যেভাবে দাঁতে ফিতে কেটে বীরত্ব দেখাতে চেয়েছিলেন পাক মন্ত্রী, তাঁকেই এখন ট্রোল করছেন নেট নাগরিকরা। 

 

বন্ধ করুন