বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > যুবতী টিকটকারের শ্লীলতাহানি! কয়েকশো পুরুষ কাপড় ছিঁড়ে, ফোন কেড়ে নিল
ছবি: টুইটার  (Twitter)
ছবি: টুইটার  (Twitter)

যুবতী টিকটকারের শ্লীলতাহানি! কয়েকশো পুরুষ কাপড় ছিঁড়ে, ফোন কেড়ে নিল

  • তাঁকে ও তাঁর সঙ্গীদের হাওয়ায় লোফালুফি করা হয় বলে জানিয়েছেন তিনি। পুরো ঘটনার ভিডিয়োও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

পাকিস্তানের লাহোরে মহিলা টিকটকারের শ্লীলতাহানি। অভিযোগকারিণী জানিয়েছেন, শনিবার ভিডিয়ো শ্যুট করার সময়ে হঠাত্ই তাঁকে ঘিরে ধরে কয়েকশো পথচারী। সবাই মিলে তাঁর জামাকাপড় ছিঁড়ে প্রবল ধাক্কাধাক্কি শুরু করে। তিনি জানিয়েছেন, তাঁর স্মার্টফোন, নগদ ১৫ হাজার টাকা(পাকিস্তানি), কানের দুল, আংটি কেড়ে নেওয়া হয়। তাঁকে ও তাঁর সঙ্গীদের হাওয়ায় লোফালুফি করা হয় বলে জানিয়েছেন তিনি। পুরো ঘটনার ভিডিয়োও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসের দিন লাহোরের মিনার-ই-পাকিস্তানের সামনে ভিডিয়ো করছিলেন ওই যুবতী ও তাঁর ৬ বন্ধুরা। সেই সময়েই হঠাত্ তাঁদের ঘিরে ধরে প্রায় ৩০০ থেকে ৪০০ জন। যুবতী জানিয়েছেন, বিনা কারণেই তাঁদের মারধর করা শুরু হয়। ধাক্কাধাক্কিতে ছিঁড়ে যায় তাঁর পোষাক। অসহায় অবস্থায় তাঁদের নিয়ে হাওয়ায় ছুঁড়তে শুরু করা হয়।

টিকটকার যুবতী জানিয়েছেন, কেউ কেউ তাঁদের বের করে আনার চেষ্টাও করছিলেন। কিন্তু এত জন মিলে আক্রমণ করেছিল যে বেরিয়ে আসা অসম্ভব ছিল। কেড়ে নেওয়া হয় তাঁদের স্মার্টফোন, ব্যাগ, কানের দুল, আংটি।

পাকিস্তানে টিকটকারদের বিরুদ্ধে আক্রমণ নতুন নয়। 'অশালীনতা' ছড়ানোর অভিযোগে এর আগেও আক্রমণ করা হয়েছে টিকটকারদের উপর। শ্লীলতাহানির মাধ্যমে দেওয়া হয়েছে 'শিক্ষা'। অথচ সেই পাকিস্তানেই প্রায় ৪ কোটি ডাউনলোড টিকটক অ্যাপের। রয়েছে কোটি-কোটি ভিউজ-ও। একাধিকবার টিকটক ব্যান করেও ফের চালু করে দেওয়া হয়েছে।

এক্ষেত্রেও অনেক পাকিস্তানবাসী তাঁর উপর হামলার যুক্তি দিচ্ছে। তাদের মতে মিনার-ই-পাকিস্তানের সামনে ভিডিয়ো করে অশালীনতা ছড়াচ্ছিলেন টিকটকাররা। তাই উচিত্ শিক্ষা দেওয়া হয়েছে।

বন্ধ করুন