বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > IMF-এর ঋণ পেতে মরিয়া পাকিস্তান, কিন্তু মুরোদ নেই টাকা পাওয়ার
ফাইল ছবি: এএফপি (AFP)

IMF-এর ঋণ পেতে মরিয়া পাকিস্তান, কিন্তু মুরোদ নেই টাকা পাওয়ার

সম্ভাব্য ঋণ খেলাপি এড়ানোর জন্য পাকিস্তান IMF থেকে অবিলম্বে ৯০০ মিলিয়ন ডলার চাইছে। খাদ্য ও জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধি, এশিয়ার দ্বিতীয়-দ্রুততম মুদ্রাস্ফীতি এবং ঋণের বোঝার কারণে পাকিস্তানের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ তলানিতে। 

খরচ কমিয়ে ডেফিসিট কমানোর চেষ্টা করে লাভ নেই। এসব করেও আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল(IMF) থেকে ঋণ পাবে না পাকিস্তান এমনটাই বললেন সিটিগ্রুপ ইনকর্পোরেটেডের অর্থনীতিবিদ।

গত ১ জুলাই থেকে শুরু হওয়া অর্থবর্ষে কর-জিডিপি অনুপাত ৯.২% থাকবে বলে পূর্বাভাস করা হচ্ছে। পাকিস্তানের বাজার, আন্তর্জাতিক অর্থনৈতিক পরিস্থিতি সাপেক্ষে যা অত্যন্ত কম। সোমবার এমনটাই জানান অর্থনীতিবিদ জোহানা চুয়া এবং গৌরব গর্গ। সুদের অর্থপ্রদানেই মোট রাজস্বের ৪৪% বেরিয়ে যাবে পাকিস্তানের।

'আমরা তহবিলের বিষয়ে প্রতিক্রিয়ার অপেক্ষা করছি,' লিখেছেন জোহানা চুয়া এবং গৌরব গর্গ। এ বিষয়ে শীঘ্রই চলতি মাসে আইএমএফ এবং পাকিস্তানি আধিকারিকদের বৈঠক হওয়ার কথা।

সম্ভাব্য ঋণ খেলাপি এড়ানোর জন্য পাকিস্তান IMF থেকে অবিলম্বে ৯০০ মিলিয়ন ডলার চাইছে। খাদ্য ও জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধি, এশিয়ার দ্বিতীয়-দ্রুততম মুদ্রাস্ফীতি এবং ঋণের বোঝার কারণে পাকিস্তানের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ তলানিতে। ৩ জুন পর্যন্ত তা ১০ বিলিয়ন ডলারেরও নিচে নেমে গিয়েছে। এতে পাকিস্তানের দুই মাসের আমদানিও চালানো যাবে না।

অর্থমন্ত্রী মিফতাহ ইসমাইলের মতে, আগামী ১২ মাসে পাকিস্তানের কমপক্ষে ৪১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রয়োজন। আইজিআই সিকিউরিটিজ লিমিটেডের সাদ খান-সহ বিশ্লেষকদের মতে, দাবির কিছুটা হয় তো পূরণ করা হবে। তবে তা প্রয়োজনের তুলনায় অনেকটাই কম হবে।

বন্ধ করুন