বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভারতে করোনার জেরে দারিদ্র্যের শিকার ৩.২ কোটি মধ্যবিত্ত, বলছে সমীক্ষা

ভারতে করোনার জেরে দারিদ্র্যের শিকার ৩.২ কোটি মধ্যবিত্ত, বলছে সমীক্ষা

গত এক বছরে গরীবি  শিকার হয়েছেন প্রায় ৩.২ কোটি মধ্যবিত্ত। বৃহস্পতিবার মার্কিন গবেষণা সংস্থা পিউ রিসার্চ সেন্টারের রিপোর্ট-এ উঠে এসেছে এমনই মারাত্মক তথ্য।

করোনাভাইরাস ও তার জেরে লকডাউন। থমকে অর্থনীতির চাকা। আর তারই ফলে গত এক বছরে দারিদ্র্যের শিকার হয়েছেন প্রায় ৩.২ কোটি মধ্যবিত্ত। বৃহস্পতিবার মার্কিন গবেষণা সংস্থা পিউ রিসার্চ সেন্টারের রিপোর্ট-এ উঠে এসেছে এমনই মারাত্মক তথ্য। ছবি : রয়টার্স (Reuters)
1/5করোনাভাইরাস ও তার জেরে লকডাউন। থমকে অর্থনীতির চাকা। আর তারই ফলে গত এক বছরে দারিদ্র্যের শিকার হয়েছেন প্রায় ৩.২ কোটি মধ্যবিত্ত। বৃহস্পতিবার মার্কিন গবেষণা সংস্থা পিউ রিসার্চ সেন্টারের রিপোর্ট-এ উঠে এসেছে এমনই মারাত্মক তথ্য। ছবি : রয়টার্স (Reuters)
রিপোর্টে বলা হয়েছে দিনে প্রায় ৭০০ টাকা থেকে ১৪০০ টাকা আয় করা ভারতীয়দের সংখ্যা অনেকটাই কম। এই সময়ে যা হওয়ার কথা তার থেকে প্রায় ৩.২ কোটি কম। ছবি: পিটিআই (PTI)
2/5রিপোর্টে বলা হয়েছে দিনে প্রায় ৭০০ টাকা থেকে ১৪০০ টাকা আয় করা ভারতীয়দের সংখ্যা অনেকটাই কম। এই সময়ে যা হওয়ার কথা তার থেকে প্রায় ৩.২ কোটি কম। ছবি: পিটিআই (PTI)
করোনা-লকডাউনের আগে মনে করা হয়েছিল একই হারে বাড়বে অর্থনীতি। আর তা হলে ২০২০ সালের শেষে দেশে মোট মধ্যবিত্তের সংখ্যা ৯.৯ কোটি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনার জেরে অর্থনৈতিক ধাক্কায় তা কমেছে এক তৃতীয়াংশ। মধ্যবিত্তের সংখ্যা নেমে দাঁড়িয়েছে ৬.৬ কোটি। ছবি : পিটিআই (PTI)
3/5করোনা-লকডাউনের আগে মনে করা হয়েছিল একই হারে বাড়বে অর্থনীতি। আর তা হলে ২০২০ সালের শেষে দেশে মোট মধ্যবিত্তের সংখ্যা ৯.৯ কোটি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনার জেরে অর্থনৈতিক ধাক্কায় তা কমেছে এক তৃতীয়াংশ। মধ্যবিত্তের সংখ্যা নেমে দাঁড়িয়েছে ৬.৬ কোটি। ছবি : পিটিআই (PTI)
করোনার জেরে চিনের থেকেও আর্থিকভাবে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ ভারত। গত ২০২০ সালে বিশ্ব ব্যাঙ্কের রিপোর্টে বলা হয়েছিল ভারত ও চিনের অর্থনৈতিক বৃদ্ধির হার যথাক্রমে ৫.৮% ও ৫.৯% হবে। ছবি : পিটিআই (PTI)
4/5করোনার জেরে চিনের থেকেও আর্থিকভাবে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ ভারত। গত ২০২০ সালে বিশ্ব ব্যাঙ্কের রিপোর্টে বলা হয়েছিল ভারত ও চিনের অর্থনৈতিক বৃদ্ধির হার যথাক্রমে ৫.৮% ও ৫.৯% হবে। ছবি : পিটিআই (PTI)
তবে ২০২১ সালে জানুয়ারিতে বিশ্ব ব্যাঙ্কের অনুমান, ভারতের অর্থনীতি ৯.৬% হ্রাস হতে পারে। উল্টো দিকে ২% বৃদ্ধি হতে পারে চিনের। করোনার দ্বিতীয় ওয়েভের সূচনায় দাঁড়িয়ে ও লকডাউনের আলোচনার মধ্যে এই সংখ্যাগুলি বেশ উদ্বেগজনক। ছবি : ব্লুমবার্গ (Bloomberg)
5/5তবে ২০২১ সালে জানুয়ারিতে বিশ্ব ব্যাঙ্কের অনুমান, ভারতের অর্থনীতি ৯.৬% হ্রাস হতে পারে। উল্টো দিকে ২% বৃদ্ধি হতে পারে চিনের। করোনার দ্বিতীয় ওয়েভের সূচনায় দাঁড়িয়ে ও লকডাউনের আলোচনার মধ্যে এই সংখ্যাগুলি বেশ উদ্বেগজনক। ছবি : ব্লুমবার্গ (Bloomberg)
অন্য গ্যালারিগুলি