বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ডাহা ফেল ফাইজারের ট্যাবলেট, কোভিড রুখতে ব্যর্থ WHO অনুমোদিত ‘বেস্ট সেলার’ ওষুধ
মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা ফাইজারের তৈরি ট্যাবলেট কোভিড সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে অক্ষম। (REUTERS)
মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা ফাইজারের তৈরি ট্যাবলেট কোভিড সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে অক্ষম। (REUTERS)

ডাহা ফেল ফাইজারের ট্যাবলেট, কোভিড রুখতে ব্যর্থ WHO অনুমোদিত ‘বেস্ট সেলার’ ওষুধ

  • Paxlovid: প্যাক্সলোভিড ইতিমধ্যেই ফার্মাসিউটিক্যাল শিল্পের সর্বকালের দ্রুততম বিক্রি হওয়া ওষুধের মধ্যে একটি। তবে মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা ফাইজারের তৈরি ট্যাবলেট কোভিড সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে অক্ষম বলে জানা গিয়েছে। এর আগে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই ওষুধ প্রয়োগের সুপারিশ করেছিল। 

মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা ফাইজারের তৈরি ট্যাবলেট কোভিড সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে অক্ষম। গবেষণার শেষ পর্যায়ের এসে পরীক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে এই ওষুধ। এর জেরে মার্কিন শেয়ার বাজারে ফাইজারের সূচক নিম্নমুখী ছিল। এর আগে ফাইজারের তৈরি অ্যান্টিভাইরাল ওষুধ প্যাক্সলোভিড বাজারে আনার ঘোষণা করেছিল ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালস। ওষুধের বাজারজাতকরণ শুরু হলেও এখন ওষুধটি পরীক্ষায় ফেল করেছে। (আরও পড়ুন: করোনা টিকার দ্বিতীয় ও তৃতীয় ডোজের মধ্যে ব্যবধান কি কমছে? যা ভাবছে কেন্দ্র)

ফাইজার শুক্রবার এক বিবৃতিতে বলেছে, প্যাক্সলোভিড নামের ওষুধটি ভাইরাসের সংস্পর্শে আসা প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে কোভিড-১৯ সংক্রমণের ঝুঁকি উল্লেখযোগ্যভাবে কমানোর প্রাথমিক লক্ষ্য পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছে। ওষুধটি একটি প্লাসিবোর তুলনায় প্রায় এক তৃতীয়াংশ ঝুঁকি হ্রাস করেছে, যা পরিসংখ্যানগত তাত্পর্যের। তবে এটি মূল লক্ষ্য থেকে অনেকটাই পিছিয়ে।

এদিকে ফাইজারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আলবার্ট বোরলা বলেছেন যে তিনি গবেষণার ফলাফল দেখে ‘হতাশ’। এদিকে অ্যানালিটিক্স গ্রুপ এয়ারফিনিটি লিমিটেডের পূর্বাভাস অনুসারে, প্যাক্সলোভিড ইতিমধ্যেই ফার্মাসিউটিক্যাল শিল্পের সর্বকালের দ্রুততম বিক্রি হওয়া ওষুধের মধ্যে একটি। ২০২২ সালে প্রায় ২৪ বিলিয়ন ডলারের মূল্যের ওষুধ বিক্রির অনুমান করা হয়েছিল সংস্থার তরফে।

এদিকে ফাইজারের তৈরি এই ওষুধ প্রয়োগের সুপারিশ পর্যন্ত করে দিয়েছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। হাসপাতালে ভর্তির সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে থাকা মৃদু ও মাঝারি কোভিড রোগীদের জন্য প্যাক্সলোভিডের সুপারিশ করেছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এর আগে ফাইজারের তরফে গত ডিসেম্বর দাবি করা হয়েছিল, করোনা আক্রান্তদের মধ্যে ৯০ শতাংশ ক্ষেত্রে কার্যকরী তাদের ওষুধ। তবে ওষুধ নিয়ে পরীক্ষা পর্ব চলতে থাকে। এরই মাঝে দেখা যায় যে কোভিড রুখতে সেই ভাবে কার্যকরী নয় মার্কিন সংস্থার তৈরি এই ওষুধ।

বন্ধ করুন