বাড়ি > ঘরে বাইরে > Paytm KYC স্ক্যাম- অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত রাখতে মেনে চলুন এই সহজ কিছু নিয়ম
ফাইল ছবি (MINT_PRINT)
ফাইল ছবি (MINT_PRINT)

Paytm KYC স্ক্যাম- অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত রাখতে মেনে চলুন এই সহজ কিছু নিয়ম

  • গত কয়েক মাসে এসএমএসের মাধ্যমে প্রতারণা বৃদ্ধি পেয়েছে 

গত কয়েক বছরে দ্রুত বৃদ্ধি হয়েছে ডিজিট্যাল পেমেন্ট। এই বদলের পুরোভাগে আছে পেটিএম। আট থেকে আশি, সবাই ব্যবহার করছেন এই জনপ্রিয় অ্যাপটি। কিন্তু অনেকেই এদের মধ্যে টেক সচেতন নয়। তার সুযোগ নিয়ে প্রতারণা চক্র চালাচ্ছেন অনেক অসাধু ব্যক্তি। মূলত কেওয়াইসি করিয়ে দেওয়ার নাম করেই টাকা লুটে নিচ্ছে এই প্রতারকরা। 

কয়েকদিন আগে ভোপালে একজনের ৪৫ হাজার টাকা এভাবে খোয়া গেল। তার আগে মুম্বইয়ে ১.৭ কোটি খুইয়েছেন একজন। তবে যত দিন যাচ্ছে এইরকম প্রতারণা বৃদ্ধি পাচ্ছে। Paytmইউজাররা এসএমএস পান যে তাদের KYC এক্সপায়ার করে যাবে ও অ্যাকাউন্ট ব্লক হয়ে যাবে সমস্ত ব্যালেন্স সহ। এই সমস্যা নিরসন করার জন্য একটি ফোন নম্বরও দেওয়া থাকে এসএমএসে। 

এবার ফোন করলে, ওপারের প্রতারক গ্রাহকদের AnyDesk, TeamViewer বা  QuickSupport অ্যাপ ডাউনলোড করতে বলে। এরপর একটি নয় সংখ্যার কোড আসে, যেটি প্রতারকের সঙ্গে শেয়ার করলেই ডিভাইসের নিয়ন্ত্রণ চলে যায় তার কাছে। 

Paytm বারবার বলেছে যে সতর্ক থাকুন এমন সব প্রতারকের বিরুদ্ধে। এরকম কোনও মেসেজ যে তারা পাঠায় না বা অন্য কোনও অ্যাপ ডাউনলোড করতে বলা হয় না, সেটা বারবার সংস্থা জানিয়েছে। তারপরেও অনেকে ভুল করেছন। 

সেই পরিপ্রেক্ষিতে এই কটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় খেয়াল রাখা উচিত- 

১. Paytm-এর KYC করানোর জন্য নির্দিষ্ট KYC পয়েন্টে যেতে হবে, যেখানে এজেন্টরা এই কাজ করে দেবেন। 

২. এই সংক্রান্ত Paytm যে এসএমএস দেয় সেটা শুধু তাদের এজেন্টদের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য বা নিকটবর্তী কেওয়াসি পয়েন্টে যাওয়ার জন্য। 

৩. কোনও অ্যাপ ইনস্টল করার জন্য পেটিএম থেকে ফোন করা হবে না। 

৪. পেটিএম কর্মীরা পিন, ওটিপি, পাসওয়ার্ড, প্যান ডিটেলস, সিভিভি নম্বর ইত্যাদি চাইবে না। 

৫. Paytm.com ছাড়া অন্য কোনও ওয়েবসাইটে সিভিভি, ওটিপি ইত্যাদি তথ্য দিতে বলা হবে না সংস্থার তরফ থেকে। 

বন্ধ করুন