বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র সুধাংশু ত্রিবেদী (ফাইল ছবি, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র সুধাংশু ত্রিবেদী (ফাইল ছবি, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

যাঁরা 'যৌনদাসী' রাখেন,তাঁরা নারীর সম্মান নিয়ে জ্ঞান দেন, মন্তব্য বিজেপি সাংসদের

  • কল্যাণ দুর্গ জয়ের কাহিনি তুলে ধরে এই মন্তব্য করেন রাজ্যসভার সাংসদ তথা বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র সুধাংশু ত্রিবেদী।

এখন যাঁরা 'যৌনদাসী' রাখেন, তাঁরাই নারীর সম্মান নিয়ে জ্ঞান দেন। এমনই মন্তব্য করলেন রাজ্যসভার সাংসদ তথা বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র সুধাংশু ত্রিবেদী।

শনিবার ছত্তিশগড়ের রায়পুরে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের একটি অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন সুধাংশু। সেখানে তিনি বলেন, 'কল্যাণ দুর্গ জয়ের রাণী গউহর বানোকে শিবাজির কাছে আনা হয়েছিল। সম্মানের সঙ্গে তাঁকে ছেড়ে দেন শিবাজি। এখন যাঁরা 'যৌনদাসী' রাখেন, তাঁরাই নারীর সম্মান নিয়ে আমাদের জ্ঞান দেন।

বিজেপি সাংসদের মন্তব্য নিয়ে শুরু হয় বিতর্ক। যদিও হিন্দুস্তান টাইমসকে সাফাই গেয়ে সুধাংশু বলেন, 'আমি আইসিসের কথা বলছিলাম। যাদের পতাকা ভারতে উত্তোলিত হয়েছে। তাদের প্রতি বুদ্ধিজীবী প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে রাজনৈতিক দলের লোকেদের সহানুভূতি রয়েছে।'

প্রাচীন ভারত নিয়ে বলার সময় শনিবার নিজের ভাষণে দাবি করেন, 'গার্গী থেকে শুরু করে উপলা-সহ ১২ জনেরও বেশি বেদের পণ্ডিত ছিলেন। বিরোধীদের আমি চ্যালেঞ্জ করছি, অন্য কোনও ধর্ম, সংস্কৃতি বা সম্প্রদায়ে ধার্মিক বিষয়ে মন্তব্য করার অধিকার ছিল কিনা বলুন।'

তিনি আরও দাবি করেন, ভারতে মুসলিম শাসকদের সময় তিনটি রাজ্যের মসনদে ছিলেন হিন্দু রাজা। সেখানে নারীদের অসম্মান করা হয়নি।


বন্ধ করুন